সাম্প্রতিক

এই তো মিলি

মঞ্চ থেকে মডেলিং। এরপর টিভি নাটক থেকে সিনেমায়। ক্যারিয়ারে এমন গ্রাফে সব জায়গাতেই সফল ফারহানা মিলি। তার বর্তমান কর্মযজ্ঞ নিয়ে লিখেছেন সোহেল আহসান

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সিনেমা শিল্পের চারদিকে ঘন অন্ধকার, হতাশা আর স্বপ্নভঙ্গের হাতছানি। এ রকম একটি সময়ে আশার আলো হয়ে দর্শকের সামনে আসেন পরী। আবহমান বাংলার প্রতিচ্ছবি হয়ে নয়ন জুড়ায় তার অভিব্যক্তি। চারদিকে এই পরী বন্দনায় মেতে ওঠেন সবাই। পরীরূপে তারকা হয়ে ওঠার গল্পটা তখন থেকেই শুরু। এই পরীই ফারহানা মিলি। ‘মনপুরা’ ছবির মাধ্যমে আপামর দর্শকের মনের মণিকোঠায় ঠাঁই করে নেন তিনি। গিয়াসউদ্দিন সেলিমের পরিচালনায় সেই ছবিটি নতুন যুগের মাইলফলক হিসেবে আখ্যায়িত হচ্ছে এখনও। সে ছবিতে অভিনয় দিয়ে দর্শকের ভালোবাসার জায়গা দখল করলেও আর কোনো সিনেমায় অভিনয় করেননি মিলি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তার প্রতি দর্শকের আকাঙ্ক্ষা বেড়েই চলছে। কেন আর ছবিতে তাকে দেখা যাচ্ছে না- এ নিয়ে উৎসুক সিনেপ্রেমীরা। তবে ফারহানা মিলির এ নিয়ে তেমন কোনো উদ্বেগ নেই। তিনি বলেন, “আমার অভিনীত প্রথম ছবি ‘মনপুরা’র জন্য আজও আমি দর্শকের কাছ থেকে সমান ভালোবাসা পেয়ে যাচ্ছি। আমারও ইচ্ছা আছে ছবিতে অভিনয়ের। কিন্তু প্রথমবার দর্শক যেভাবে আমাকে উৎসাহিত করেছেন, ভালোবেসেছেন, এ বিষয়টি মাথায় রেখেই পরবর্তী ছবিতে কাজ করার পরিকল্পনা আছে। তবে সেই একই বিষয়, যেসব ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পাই, সেগুলো আমার পরিকল্পনার সঙ্গে মিলে না। তাই বিলম্বিত হচ্ছে নতুন ছবিতে কাজ করার বিষয়টি। তবে আমি আশাবাদী শিগগিরই হয়তো দর্শক আমাকে সিনেমায় দেখতে পাবেন।” সিনেমায় কাজ না করলেও এই তারকা অভিনেত্রী নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছেন। একক ও ধারাবাহিক দুই ধরনের নাটকেই তিনি হাজির হচ্ছেন দর্শকের সামনে। ধারাবাহিক নাটকগুলোর মধ্যে সঞ্জিত সরকারের পরিচালনায় ‘মজনু একজন পাগল নহে’ আরটিভিতে, এসএম শাহীনের ‘সোনাভান’ এটিএন বাংলায়, নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘কাগজের ফুল’ এনটিভিতে এবং রাশেদ রাহার ‘আকাশে মেঘ নেই’ বাংলাভিশনে প্রচার হচ্ছে। এ ছাড়া শিগগিরই সঞ্জিত সরকারের পরিচালনায় নির্মিত ‘চিটিং মাস্টার’ নামে একটি ধারাবাহিক নাটক আরটিভিতে প্রচার শুরু হবে। পাশাপাশি আরও কয়েকজন পরিচালকের এক খণ্ডের নাটকে অভিনয় করেছেন ফারহানা মিলি। নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সিনেমায় অভিনয় না করলেও আমি কিন্তু নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছি। দর্শকও এসব কাজে আমাকে উৎসাহিত করছেন। তাদের ভালোবাসার জন্যই আমি আজকের এ পর্যায়ে এসেছি। তাই দর্শকের এ ভালোবাসা যতদিন থাকবে ঠিক ততদিনই মিডিয়ায় কাজ করে যাব।’ সর্বোপরি তার চলার পথ আরও যেন মসৃণ হয় এই কামনাই করেন সংশ্লিষ্টরা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter