ঈদের ছবির হালচাল

ঈদের মাত্র অল্প কয়েকদিন বাকি। এরই মধ্যে জমে উঠেছে ঈদের ছবির বাজার। মুক্তির তালিকায় রয়েছে এখনও পর্যন্ত চারটি ছবি। যদিও আওয়াজ দিচ্ছেন অনেকে। তবে শেষ পর্যন্ত ক’টি ছবি টিকে থাকতে পারে সেটাই এখন দেখার বিষয়। এছাড়াও ঈদের ছবি নিয়ে দর্শকদের মধ্যেও আলাদা আগ্রহ থাকে। বিশেষ করে ঈদ মৌসুমে প্রিয় তারকার কাছ থেকে ভিন্ন ধারার ছবি আশা করেন ভক্তরা। সবকিছু মিলিয়ে ঈদের ছবি মানেই ব্যবসায়িক মুনাফার হাতছানি। এবারের ঈদে মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবিগুলো নিয়ে এ প্রতিবেদন লিখেছেন

  এফ আই দীপু ৩০ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিনোদন জগতে ঈদ আয়োজন উপভোগ করার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ছবি দেখা। তাই ঈদ উৎসবে ছবি মুক্তি দেয়ার জন্য প্রযোজক-পরিচালকরা যেমন প্রযোগিতায় লিপ্ত হন, তেমনি নায়ক-নায়িকারাও মুখিয়ে থাকেন ঈদের মতো বড় উৎসবে নিজের অভিনীত ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। কারণ ঈদে ছবি মুক্তি মানেই মুনাফার হাতছানি এবং আলোচনার খোরাক। অন্যসময় হলবিমুখ হলেও ঈদ উৎসবে দর্শকরা দল বেঁধে সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখেন। ঈদের আগে ছবিপাড়াখ্যাত রাজধানীর কাকরাইলও বেশ জমে ওঠে। বিশেষ করে রোজার শেষের দিকে সন্ধ্যার পর থেকে বুকিং এজেন্ট ও হলমালিকদের পদভারে মুখরিত হয়ে ওঠে জায়গাটি। এখান থেকেই হিসাব-নিকাশ শেষে পর্দায় প্রদর্শিত হয় ঈদের কাক্সিক্ষত ছবি। এখানে কেউ হারে, কেউ জিতে। তবুও থেমে থাকে না এখানকার ঈদের ব্যস্ততা।

এমনিতে প্রতি ঈদেই একাধিক ছবি মুক্তি পায়। এবারও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। এখন পর্যন্ত মুক্তির তালিকায় রয়েছে চারটি ছবি। এগুলো হচ্ছে শাকিব খান-বুবলী অভিনীত ‘পাসওয়ার্ড’, শাকিব খান-ববি অভিনীত ‘নোলক’, তারিক আনাম খান-স্পর্শিয়া অভিনীত ‘আবার বসন্ত’ ও নবাগত শান্ত খান-নেহা আমান্তি (কলকাতা) অভিনীত ‘প্রেমচোর’।

এর আগে শাকিব খান-নুসরাত ফারিয়া অভিনীত ‘শাহেনশাহ’, মাহি অভিনীত ‘অবতার’ ও জয়া আহসান-ফেরদৌস অভিনীত ‘বিউটি সার্কাস’ মুক্তির জন্য আওয়াজ দিলেও অবতার ও বিউটি সার্কাস রোজার শুরুতেই মুখ বন্ধ করে ফেলে। অন্যদিকে শাহেনশাহ নিয়েও শেষ পর্যন্ত অন্দরমহলে চলে যান পরিচালক শামীম আহমেদ রনী। এদিকে চলতি সপ্তাহের শুরুতে ‘প্রেমচোর’ ছবির মুক্তির আওয়াজও প্রায় স্থিমিত হয়ে এসেছে। বলা যায় এখন পর্যন্ত মুক্তির দৌড়ে টিকে আছে তিন ছবি ‘পাসওয়ার্ড’, ‘নোলক’ ও ‘আবার বসন্ত’।

মালেক আফসারি পরিচালিত ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি শাকিব খানের প্রযোজনায় নির্মিত। এ ছবিটি ঈদে মুক্তি দেয়া হবে সেটা নিশ্চিত। অন্যদিকে তার অভিনীত ‘নোলক’ মুক্তির তালিকায় থাকলেও এ ছবি নিয়ে কোনো কথাই বলেননি শাকিব খান। নিজের প্রযোজিত ছবি নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। ‘নোলক’ তার অভিনীত ছবি। অন্যদিকে ‘পাসওয়ার্ড’ তার প্রযোজিত ছবি। অর্থাৎ এ ছবির জন্য তিনি অর্থ ঢেলেছেন। স্বভাবতই এর জন্য তার দরদ বেশি থাকবে- এমনটিই বলেছেন এফডিসি সংশ্লিষ্টরা।

অন্যদিকে নোলক নিয়ে কিছুটা বিতর্ক থাকার কারণেও অনেকটা মুখে কুলুপ এঁটেছেন শাকিব খান। কারণ, এ ছবিটি পরিচালনা শুরু করেছিলেন নাট্যপরিচালক রাশেদ রাহা। কিন্তু তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎসহ নানা অভিযোগ এনে পরিচালনার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেন প্রযোজক সাকিব সনেট। পরবর্তীতে প্রযোজকের পরিচালনায় ছবির বাকি কাজ শেষ হয়। এ নিয়ে আইন আদালতও হয়েছে। জানা গেছে, আদালত সাকিব সনেটের পক্ষে রায় দিয়েছেন। ছবির সেন্সর সার্টিফিকেটেও প্রযোজকের পাশাপাশি পরিচালকের নাম হিসেবে সাকিব সনেটের নাম দেখা গেছে। তবুও ছবিটির পরিচালক হিসেবে রাশেদ রাহা এখনও নিজের নাম দাবি করছেন। এদিকে ঈদে ‘নোলক’ মুক্তি দেয়া হচ্ছে, এটা নিশ্চিত বলেই জানিয়েছেন সাকিব সনেট। এরই মধ্যে হল বুকিংও শুরু করেছেন তারা। তবে ঈদে শাকিবের দুই ছবির মধ্যে ‘পাসওয়ার্ড’ই যে হল সংখ্যা ও ব্যবসায়িকভাবে এগিয়ে থাকবে এতে কোনো সন্দেহ নেই। কারণ, শাকিব ভক্তরা শুধু পাসওয়ার্ডের জন্যই প্রচারণা চালাচ্ছেন। নায়িকাদের মধ্যে পাসওয়ার্ড নিয়ে বুবলী ও নোলক নিয়ে ববির মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও দর্শকরা এবার চুটিয়ে উপভোগ করবেন।

অন্যদিকে অনন্য মামুন পরিচালিত ‘আবার বসন্ত’ নামে একটি ছবিও ঈদে মুক্তির জন্য চূড়ান্ত। হল বুকিংও শুরু করেছেন তারা। এ ছবিতে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান ও স্পর্শিয়া। সম্পর্কের মূল্যায়নের গল্প নিয়ে তৈরি এ ছবিটি ঈদের ব্যবসায়িক সফলতার চেয়ে প্রশংসা কুড়াবে বেশি, সেটাও বলছেন বিজ্ঞরা। কারণ, ছবির নির্মাতা অনন্য মামুন বরাবরই বলে এসেছেন, আবার বসন্তের নায়ক হচ্ছে ছবির গল্প।

এছাড়াও এবারের ঈদে চ্যানেল আইতে ওয়াল্ড প্রিমিয়ার হবে ‘আলোয় ভুবন ভরা’ নামে একটি ছবি। এটি পরিচালনা করেছেন আমিরুল ইসলাম। এতে অভিনয় করেছেন সাইফ খান ও নবাগত মিষ্টি মারিয়া। তবে বাণিজ্যিক হিসেবে এ ছবিটিকে ঈদের ছবির প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাখা সমীচীন হবে না বলেই মন্তব্য করেছেন সিনেবিশেষজ্ঞরা। কারণ এ ছবি সিনেমাহলের হিসাব-নিকাশের বাইরে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×