টেলিভিশনে ঈদ আয়োজন

সব কিছু ছাপিয়ে ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি চলছে সর্বত্র। আর কয়েকদিন পরেই ঈদুল ফিতর। দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতেও ঈদ উদযাপনের প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা হয়েছে। টেলিভিশনের ঈদ অনুষ্ঠান প্রচারের তথ্য নিয়ে প্রতিবেদনটি লিখেছেন-

  সোহেল আহসান ৩০ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বছর ঘুরে আবারও দোরগোড়ায় ঈদ। ঈদে মানুষের বিনোদনের চাহিদা পূরণ করতে দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলো নানা ধরনের অনুষ্ঠান প্রচারের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। চ্যানেলগুলোতে এ নিয়ে এক ধরনের প্রতিযোগিতাও লক্ষ্য করা যাচ্ছে। দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন চ্যানেল বাংলাদেশ টেলিভিশন এবার ঈদের অনুষ্ঠান প্রচার করবে স্বল্প পরিসরে। তাদের ঈদ অনুষ্ঠান প্রচার হবে ৪ দিন। এ চ্যানেলে ঈদের আগের দিন থাকছে নাটক ‘প্রাণ ভোমরা’, সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির খবর নিয়ে অনুষ্ঠান ‘বক্স অফিস’ ও ব্যান্ড সঙ্গীতের অনুষ্ঠান ‘রক কার্নিভাল’। ঈদের পরবর্তী তিন দিনে সকাল থেকে রাত অবধি প্রচারিতব্য বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে চলচ্চিত্রের গান নিয়ে অনুষ্ঠান ছায়াছন্দ, নাটক ‘অচিন সীমান্তে’, বিশেষ অনুষ্ঠান ‘ভ্রান্তি’, ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘আনন্দমেলা’, বিশেষ নাটক ‘রচি মম ফাল্গ–নী’, ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’, প্রতিবন্ধী শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠান, বাংলা ছায়াছবি, লোকগানের অনুষ্ঠান, নাটক ‘বক্ররেখা’। তবে বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা প্রচারের কারণে চ্যানেলটির অনুষ্ঠানসূচি সংক্ষেপ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিটিভি কর্তৃপক্ষ।

ঈদের আগের দিন থেকে ঈদের ষষ্ঠ দিন পর্যন্ত ঈদের অনুষ্ঠান প্রচার করবে বেসরকারি চ্যানেল এনটিভি। চ্যানেলটিতে ঈদের আগের দিন রয়েছে একটি বিশেষ নাটক ও সঙ্গীতানুষ্ঠান। পরবর্তী সাত দিনে সাতটি ছবি, তিনটি ধারাবাহিক নাটক, একটি করে টেলিফিল্ম, দুটি করে খণ্ড নাটক, কমেডি শো, শিশুতোষ অনুষ্ঠান এবং লাইভ গানের অনুষ্ঠান প্রচার করবে চ্যানেলটি।

ঈদের আগের দিন থেকে সপ্তম দিন পর্যন্ত ঈদের অনুষ্ঠান প্রচার করবে চ্যানেল আই। এই চ্যানেল অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে ৭ ছবি, ১০ টেলিফিল্ম, ১৩টি নাটক, ফরিদুর রেজা সাগরের ‘ছোট কাকু’ সিরিজের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত ৮ পর্বের ধারাবাহিক নাটক ‘জয় হল জয়দেবপুরে’, শাইখ সিরাজের ‘কৃষকের ঈদ আনন্দ’, গেম শো ‘ঈদ আনন্দ’, এন্ড্রু কিশোরের গান, ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ভালোবাসার বাংলাদেশ’ ও সেলিব্রেটি আড্ডা।

বৈশাখী টেলিভিশন ৭ দিনের ঈদের অনুষ্ঠানমালা সাজিয়েছে। তাদের ঈদ অনুষ্ঠানমালায় থাকছে ৭টি একক নাটক, ৭টি মেগা এবং ৪টি বিশেষ ধারাবাহিক ও ৭টি ছবি। একক নাটকগুলো হচ্ছে ‘ভাবীর দোকান’, ‘বরিশাল টু ঢাকা’, ‘মন্টু মিয়ার মটর সাইকেল’, ‘মেইড ইন ফরেন-৪’, ‘লেডিস সু’, ‘বউ বাধ্য পাত্র চাই’ ও ‘জ্যোতিষ জাফর’। ধারাবাহিক নাটকের মধ্যে রয়েছে ‘আয়না মতি’, ‘নায়িকার বিয়ে-২’, ‘বউয়ের দোয়া পরিবহন-২’, ‘ঈদ বোনাস’, ‘খোকা কঞ্জুস’, ‘হাইপ্রেসার’-২, ‘বউয়ের দোয়া পরিবহন’, ‘নায়িকার বিয়ে’, ‘কিড সোলায়মান-২’, ‘মিস আমলাপাড়া’ ও ‘চশমা পরিবার’। মন যেখানে হৃদয় সেখানে, স্বামী-স্ত্রীর যুদ্ধ, সন্তান আমার অহঙ্কার, আব্বাজান, মায়ের হাতে বেহেস্তের চাবি, শুভ বিবাহ ও আমি জেল থেকে বলছি- ছবিগুলোও প্রচার হবে এ চ্যানেলে।

বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা সরাসরি সম্প্রচারের কারণে মাছরাঙা টেলিভিশনে ঈদের তেমন কোনো আয়োজন নেই। ঈদের দিন থেকে সপ্তম দিন পর্যন্ত চ্যানেলটি প্রতিদিন সকালে আমার প্রাণের স্বামী, জান্নাত, চাঁদনী রাতে, আমার প্রতিজ্ঞা, সত্যের মৃত্যু নেই, মায়ের জেহাদ ও প্রেম প্রেম পাগলামি ছাবগুলো প্রচার করবে। এছাড়া ঈদের দিন থেকে পঞ্চম দিন পর্যন্ত প্রচার হবে ‘রাঙা সকাল’ অনুষ্ঠানটির বিশেষ পর্ব।

বাংলাভিশন আট দিনব্যাপী আয়োজন নিয়ে ঈদ অনুষ্ঠান প্রচার করবে। ঈদের আগের দিন থেকে ঈদের সপ্তমদিন পর্যন্ত চ্যানেলটিতে প্রচারিতব্য অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে থাকছে ৭ পর্বের ৫টি ধারাবাহিক নাটক, ২১টি স্বল্প বিরতির নাটকসহ ২৯টি নাটক, ৭টি টেলিফিল্ম, ৭টি বাংলা ছবি ও ঈদকেন্দ্রিক অনুষ্ঠান। স্বল্প বিরতির নাটকগুলোর মধ্যে- আজ রাতে একজন, ড্রাইভার ডালিম, সেই রকম কাচ্চিখোর, আঙুলে-আঙুল, ভালোবাসতে বারণ, টাউট হইতে সাবধান, সানগ্লাস শফিক, এক্সিডেন্টাল ব্রেকআপ, দার্শনিক আবু হোসেন, আমার বউ, বাউন্ডেলে উল্লেখযোগ্য। ৭ পর্বের ধারাবাহিক নাটকগুলো হল ‘থ্রি টু ওয়ান জিরো অ্যাকশন’, ‘হানিমুন হবে কক্সবাজারে’ উল্লেখযোগ্য।

সাত দিনের আয়োজন নিয়ে ঈদ অনুষ্ঠান প্রচার করবে নাগরিক টেলিভিশন। এর মধ্যে থাকছে ১৫টি ছবি, ১৪টি একক নাটক, ৪টি ঈদ ধারাবাহিক ও ৭টি লাইভ কনসার্ট। ঈদের দিন থেকে প্রতিদিন রাতে থাকছে লাইভ গানের অনুষ্ঠান। এতে পারফর্ম করবে ‘জলের গান’, ‘দলছুট’, মনির খান, রিজিয়া পারভীন, মাহতিম শাকিব, ইমরান, শাহনাজ বেলি ও লিজা। ১৫টি সিনেমার মধ্যে শাকিব খান অভিনীত ৯টি ছবি। মান্না অভিনীত ৪টি এবং সালমান শাহ অভিনীত ২টি। ঈদ ধারাবাহিকগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘স্ক্যাইম্যান’, ‘ওভার স্মার্ট’, ‘ডায়াবেটিস’ ও ‘নকল হইতে সাবধান’। এছাড়া প্রতিদিন দুটি করে একক নাটক প্রচার হবে বলে জানিয়েছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।

আরটিভিতে আট দিনব্যাপী ঈদ অনুষ্ঠান প্রচার হবে। চ্যানেলটিতে ঈদের দিন থেকে ৭ম দিন পর্যন্ত প্রচার হবে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা- সাদিয়া ইসলাম মৌ-এর একক নৃত্য, জুনাইদ আহমেদ পলকের একক সঙ্গীত, রাজনীতিবিদদের ঈদ, বিশেষ শিশুদের নিয়ে অনুষ্ঠানসহ আরও কিছু অনুষ্ঠান। আরও প্রচার হবে ১৫টি ছবি। এছাড়াও এ চ্যানেলে বরাবরের মতো এবারও মোশাররফ করিম অভিনীত সাতটি নাটক নিয়ে ‘মোশাররফ উৎসব’ শিরোনামে ঈদের দিন থেকে ঈদের ৭ম দিন পর্যন্ত ৭টি নাটক প্রচার হবে। এছাড়া ১৬টি একক নাটক ও ৭টি টেলিফিল্ম প্রচার করা হবে বলে জানিয়েছে চ্যানেলটির অনুষ্ঠান বিভাগ।

দেশটিভিতে ৭ দিনের ঈদ আয়োজন প্রচার হবে। এসব আয়োজনে রয়েছে ৭টি বাংলা ছবি, লাইভ গানের অনুষ্ঠান, ২১টি নাটক, মিউজিক্যাল লাইভসহ ঈদের নানা অনুষ্ঠান।

এটিএন বাংলা চ্যানেলে ১০ দিনব্যাপী ঈদ অনুষ্ঠান প্রচার হবে। এই দশদিনে ১০টি টেলিফিল্ম, ২০টি বাংলা ছবি, ৩টি ১০ পর্বের ধারাবাহিক, ২০টি এক খণ্ডের নাটক, ৩টি ঈদ ম্যাগাজিন, ৯টি গানের অনুষ্ঠান, ১টি সেলিব্রেটি শো এবং তারকার উপস্থাপনায় রান্নার অনুষ্ঠান প্রচার হবে বলে চ্যানেলটির অনুষ্ঠান বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে।

একুশে টেলিভিশন ৭ দিনের ঈদ আয়োজন সাজিয়েছে। এ সময়ের মধ্যে ৩টি ঈদ ধারাবাহিক, ৭টি এক খণ্ডের নাটক, ৭টি বাংলা ছায়াছবি, ৭টি লাইভ গানের অনুষ্ঠান, ৭ পর্বের সেলিব্রেটি কুকিং শোর সঙ্গে রয়েছে ক্রিকেট নিয়ে লাইভ অনুষ্ঠান। এছাড়া একুশের ঈদ ঢোল নামে ৭ পর্বের একটি অনুষ্ঠানও প্রচার হবে বলে জানিয়েছে চ্যানেলটির অনুষ্ঠান বিভাগ।

এশিয়ান টিভি ঈদ অনুষ্ঠান প্রচার করবে সাত দিন। এসবের মধ্যে রয়েছে ১৪টি বাংলা ছবি (সাতটি শাকিব খানের ও সাতটি মান্না অভিনীত), ৭টি টেলিফিল্ম, ধারাবাহিক নাটক ৪টি, একক নাটক ১৪টি, লাইভ গানের অনুষ্ঠান, সেলেব্রেটি আড্ডা, ঈদ রঙ্গরসসহ আরও কিছু আয়োজন।

এবারের ঈদে সর্বাধিক নাটকে অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম। বিভিন্ন চ্যানেলেও সর্বাধিক তার অভিনীত নাটকই প্রচার হবে বলে জানিয়েছেন। এছাড়া অভিনয় তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন অপূর্ব, নিশো, সজল, জোভান, মেহাজিন, তানজিন তিশা, সাফা কবিরসহ এ প্রজন্মের আরও কয়েকজন শিল্পী।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×