শুটিংয়ে আছেন পর্দায় নেই

ঢাকার সিনেমার অবস্থা খুব বেশি ভালো নয়, এটা পুরনো কথা। গত কয়েক বছর ধরেই ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা করুণ। এর মধ্যেও অনেকে টিকে থাকার চেষ্টা করছেন। তবে হাতেগোনা কয়েকজন ছাড়া কারও অবস্থানই বলার মতো নেই। এই ‘হাতেগোনা’র মধ্যে একমাত্র শাকিব খান ছাড়া অন্য কারও ছবি ব্যবসায়িকভাবে সফলতা পায় না। তবু বন্ধ নেই শুটিং। নিয়মিত শুটিং করছেন অনেক তারকাশিল্পী। কিন্তু মুক্তি পাচ্ছে না তাদের ছবি। ক্যামেরার সামনে ব্যস্ত কিন্তু অন্তত এক বছর ধরে পর্দায় নেই এমন কয়েকজন তারকা নিয়েই এ প্রতিবেদন। লিখেছেন-

  হাসান সাইদুল ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চলচ্চিত্রে সুন্দর একটি ক্যারিয়ার ছিল ‘মিষ্টি মেয়ে’খ্যাত এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা দিলারা হানিফ পূর্ণিমার। অভিনয় নৈপুণ্যতার কারণে অর্জন করেছেন নানা পুরস্কারের পাশাপাশি দর্শক প্রশংসা। বিয়ে, সংসারসহ নানা কারণে সিনেজগৎ থেকে কয়েক বছর দূরে থাকলেও গত তিন বছর ফের সরব হয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে শোনা যাচ্ছে এ নায়িকা দুটি ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত। কিন্তু পর্দায় তাকে দেখা যাচ্ছে না কয়েক বছর ধরে। তার অভিনীত সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘লোভে পাপ পাপে মৃত্যু’। এটি ২০১৪ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পায়। এরপর কয়েকবার ছবিতে শুটিং করছেন শোনা গেলেও পর্দায় তাকে আর দেখা যায়নি। সম্প্রতি অভিনয় করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘গাঙচিল’ ও ‘জ্যাম’ নামে দুটি ছবিতে। এগুলোও কবে নাগাদ মুক্তি পাবে সেটা এখনই বলা মুশকিল। তবে সিনেমাহলের পর্দায় না থাকলেও এ নায়িকাকে নিয়মিত টিভি পর্দায় দেখা যায় নাটকে অভিনয় কিংবা উপস্থাপনা নিয়ে।

সিনেমায় এক সময়ের দাপুটে চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। তিনিও দীর্ঘদিন সিনেপর্দায় অনুপস্থিত। অথচ সিনেমার শুটিং করছেন নিয়মিতই। ২০১৬ সালের ২৬ আগস্ট নার্গিস আক্তার পরিচালিত ‘পৌষ মাসের পিরিত’ নামে তার অভিনীত একটি ছবি সর্বশেষ মুক্তি পায়। এরপর থেকে তাকে পর্দায় আর দেখা যায়নি। যদিও তিনি একাধিক ছবির শুটিং নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ব্যস্ত রয়েছেন।

শাকিব খানের সঙ্গে জুটি বেঁধে সর্বাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন অপু বিশ্বাস। ব্যবসাসফল ছবির নায়িকার তালিকা করলেও তার নামটি হাল আমলের নায়িকাদের মধ্যে সবার ওপরে থাকবে। যদিও সেসব শাকিব খানের সুবাদে। কিন্তু শাকিবের সঙ্গে বিয়ের খবর প্রকাশ, সন্তান জয়কে নিয়ে মিডিয়ার সামনে আসা ও বিয়ে বিচ্ছেদ নিয়ে বিভিন্ন ঘটনার কারণে সিনেমা থেকে অনেকটা দূরে সরে যেতে হয় তাকে। তবু ফেরার চেষ্টা করছেন। সর্বশেষ ২০১৮ সালের ১৬ জুন আবদুল মান্নান পরিচালিত ‘পাংকু জামাই’ নামে একটি ছবি মুক্তির পর পর্দায় তাকে আর দেখা যায়নি। এ নায়িকাও গত দুই বছর ধরে নতুন ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন।

ক্যারিয়ারের একাধিক ছবি যুক্ত হলেও এখনও বাংলাদেশি প্রযোজনায় কোনো ছবি নেই- এমন নায়িকার কথা উঠলে একটি নামই আসবে। তিনি হচ্ছেন উপস্থাপনা থেকে আসা নুসরাত ফারিয়া। এ পর্যন্ত তার অভিনীত যে কয়টি ছবি মুক্তি পেয়েছে যৌথ প্রযোজনার। এ নায়িকারও গত এক বছর ধরে কোনো ছবি মুক্তি পায়নি। অথচ দেশি-বিদেশি অনেক ছবিতেই তার শুটিংয়ের খবর নিয়মিতই প্রকাশ হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। যদিও দেশীয় ছবিতে অভিনয়ের খরা কাটতে যাচ্ছে তার। আগামী ৪ অক্টোবর তার অভিনীত ‘শাহেনশাহ’ নামে একটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। এ ছবিতে নায়ক হিসেবে পেয়েছেন শাকিব খানকে।

দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ভারতের কলকাতায়ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। কলকাতায় নিয়মিত ছবি মুক্তি পেলেও বাংলাদেশে গত এক বছর তার কোনো ছবি মুক্তি পায়নি। তার অভিনীত সর্বশেষ ছবি ছিল অনম বিশ্বাসের পরিচালিত ‘দেবী’। এটি ২০১৮ সালের ১৯ অক্টোবর মুক্তি পায়। এর থেকে অনেক ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন বলে জানা গেলেও দীর্ঘদিন হল তাকে পর্দায় দেখা যাচ্ছে না। তবে তার অভিনীত কয়েকটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে।

হালের আরেক চিত্রনায়িকা পরীমনি। অভিনয় করতে গিয়ে যতটা প্রশংসা কুড়িয়েছেন তার চেয়ে বেশি সমালোচিত হয়েছেন। এ নায়িকা অভিনীত সর্বশেষ ছবি মুক্তি পায় ২০১৮ সালের ৬ এপ্রিল। গিয়াসউদ্দিন সেলিমের পরিচালনায় ছবির নাম ছিল ‘স্বপ্নজাল’। এর পর থেকে কয়েকটি ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন বলে জানা গেছে। শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকা নিয়েও অনেকে সমালোচনা করছেন। কবে তা শেষ হবে? কবে আবার পর্দায় দেখা যাবে এ নায়িকাকে? এ প্রশ্নের উত্তর খোদ এ নায়িকারও অজানা।

এতে গেল তালিকায় থাকা চিত্রনায়িকাদের হালহকিকত। শুটিংয়ে আছেন কিন্তু সিনেমাহলে ও পর্দায় নেই- এ তালিকায় চিত্রনায়করাও রয়েছেন। এমন একজন নায়কের নাম ফেরদৌস। দীর্ঘদিন ধরে শোনা যাচ্ছে তিনি ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন। তবে পর্দায় দেখা যাচ্ছে না তাকে। তার অভিনীত আবির খান ও রাশেদ শামীম শ্যাম পরিচালিত ‘পোস্টমাস্টার-৭১’ নামে একটি ছবি ২০১৮ সালের ১৪ ডিসেম্বর মুক্তি পায়। এরপর থেকেই শুধু শুটিংয়ের খবরেই আছেন এ নায়ক।

হালের আরেক অভিনেতার নাম আরেফিন শুভ। তার অভিনীত সর্বশেষ ছবি মুক্তি পায় ২০১৮ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘ভালো থেকো’ নামে এ ছবি মুক্তির পর আরেফিন শুভ অভিনীত আর কোনো ছবি মুক্তি পায়নি। তবে গত বছর থেকেই তিনি কয়েকটি ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন বলে জানা গেছে। আশার কথা হচ্ছে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর তার অভিনীত সাজ্জাদ হোসেন দোদুল পরিচালিত ‘সাপলুডু’ নামে একটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

অন্যদিকে এ সময়ের চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক অভিনীত সর্বশেষ ছবি মুক্তি পায় ২০১৮ সালের ৫ অক্টোবর। ছবির নাম ‘মাতাল’। এটি পরিচালনা করেন শাহীন সুমন। এরপর কয়েকটি ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত আছেন বলে জানা গেছে। কিন্তু সিনেমাহলে তাকে দেখা যায়নি এখনও। এ সময়ের আরেক চিত্রনায়ক বাপ্পি অভিনীত সর্বশেষ ছবি মুক্তি পায় চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি। তারেক সিকদার পরিচালিত এ ছবির নাম ‘দাগ হৃদয়ে’। এরপর এ নায়কের কোনো ছবি এখনও মুক্তি পায়নি। তবে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর এ নায়ক অভিনীত কমল সরকার পরিচালিত ‘পাগলামী’ নামে একটি ছবি মুক্তির কথা রয়েছে।

এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও পর্দায় দেখা যায়নি এক সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক আমিন খানকে। তার অভিনীত সর্বশেষ ছবি মুক্তি পায় ২০১৪ সালে। ১৩ সেপ্টেম্বর চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহিকে নিয়ে ‘অবতার’ নামে একটি ছবির মাধ্যমে পর্দাখরা কাটানোর কথা রয়েছে তার।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×