শুটিং স্পট

মানসিক চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলেন নাঈম

  তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সুন্দর গোছানো পরিপাটি একটি কক্ষ। সেই কক্ষে একাকী দাঁড়িয়ে অভিনেতা এফএস নাঈম। কখনও হাসছেন, পায়চারি করছেন, আবার কখনও উ™£ান্তের মতো এদিক-সেদিক উঁকি দিচ্ছেন। একটু পরপর চা খাচ্ছেন। কখনও দাঁড়িয়ে আবার কখনও বসে পড়ছেন। এই তার মানসিক অবস্থা। পোশাকে পরিপাটি থাকলেও তার মনের ভেতরটা টালমাটাল। কাকে কী বলবেন, সেটাও মনে হয় ঠিক করতে পারছেন না। এমন সময় পাশের একটি কক্ষ থেকে তার ডাক আসে। সেটি একজন মনোচিকিৎসকের চেম্বার। দরজা খুলে ভেতরে ঢুকতেই সহাস্যে মনোরোগবিদ সুষমা সরকার তাকে বসার ইঙ্গিত করলে নাঈম তার সামনের চেয়ারে বসে পড়েন। কক্ষটিতে সুনসান নীরবতা। চিকিৎসক আগ বাড়িয়ে কোনো কথা বলছেন না রোগীর সঙ্গে। আসলে চিকিৎসক দেখতে চাচ্ছেন রোগী নাঈম কী বলতে চাচ্ছেন তাকে। এদিকে নাঈমও ভেতরে ভেতরে প্রচুর ভাবছেন যে চিকিৎসককে কোন ঘটনাটি আগে বলবেন। এমন করেই অনেক সময় গড়িয়ে যায়। এবার নাঈম কিছু একটা বলতে যাচ্ছিলেন, তার আগেই তাকে থামিয়ে দিয়ে কুশল জানতে চান চিকিৎসক।

এর আগেও এ চিকিৎসকের সঙ্গে দেখা হয়েছে নাঈমের। তাই রোগীর বুঝতে একটুও সমস্যা হয়নি চিকিৎসকের। মৃদু স্বরে তারা কথা চালিয়ে যাচ্ছেন। নাঈমের সমস্যাগুলো আবারও মনযোগ দিয়ে জানার চেষ্টা করে যাচ্ছেন চিকিৎসক। তিনি ঢাকা শহরের প্রতিষ্ঠিত চিকিৎসক। নাঈম মূলত প্রেমে ছ্যাঁকা খেয়ে মানসিক সমস্যায় আক্রান্ত হয়েছেন। প্রেমিকা জাকিয়া বারী মম তার সঙ্গে ব্রেকআপ করেছেন। অনেক চেষ্টা করেও মমর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কটি টিকিয়ে রাখতে কিংবা পুনঃস্থাপন করতে পারেননি নাঈম। অসম্ভব রকমের এই রোমান্টিক ছেলে প্রিয়তমার সান্নিধ্য না পেয়ে মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করে। এ থেকে উত্তরণের জন্য পরিবারের সদস্যদের পরামর্শে এই মনোচিকিৎসকের শরণাপন্ন হন নিয়ম করে। চিকিৎসক রোগীর এই কনভারসেশনের মধ্যেই হঠাৎ নাট্য পরিচালক সব থামিয়ে দেন।

এভাবেই ধারণ করা হয় ‘ঘরে বাইরে’ নামে নাটকের একটি দৃশ্য। রাজধানী উত্তরার একটি শুটিং হাউসে চলছিল এ নাটকের শুটিং। সফলভাবে দৃশ্যটি ধারণ হয়ে যাওয়ার কারণে বেশ উৎফুল্ল সবাই। অনেকটা আয়েশি ভঙ্গিতে এবার চিকিৎসকের চেম্বারেই চায়ের আড্ডা বসে পড়লেন সবাই। এমন সময় কেউ একজন বলে ওঠে, নাঈমকে কিছুক্ষণ আগে ক্যামেরার সামনে সত্যিকারের মানসিক রোগীর মতো মনে হয়েছে। এ কথা নাঈমের কানে গেলে সে বলে, ‘আমি যদি এই চরিত্র নিয়ে প্রতিদিন শুটিং করি তাহলে হয়তো সত্যিকারের পাগল হয়ে যাব।’ নাঈমের কথার সঙ্গে পরিচালক জুড়ে দেন আরও কিছু। বলেন, ‘তাহলে এখন থেকে প্রতিদিনই এই নাটকের শুটিং রাখা হবে।’ এতে অভিনয় প্রসঙ্গে নাঈম বলেন, ‘ধারাবাহিক নাটকে খুব বেশি কাজ করার সুযোগ পাচ্ছি না। তবে এ নাটকটির গল্প এবং আমার চরিত্রটি ভিন্নধর্মী হওয়ায় নাটকটিতে অভিনয় করছি। এরই মধ্যে নাটকটিতে অভিনয়ের জন্য দর্শকের কাছে থেকে ভালো সাড়া পাচ্ছি। তবে গল্প পছন্দ হলে নতুন ধারাবাহিকে অভিনয়ে আপত্তি নেই আমার।’ নজরুল ইসলাম রাজুর পরিচালনায় নাটকটি মাছরাঙা টিভিতে প্রচার হচ্ছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×