এক দশকে ঢাকাই সিনেমায় যত ফাঁকা আওয়াজ

ফাঁকা আওয়াজ। এর আরেক নাম স্ট্যান্টবাজি। ঢাকাই সিনেমায় এই ফাঁকা আওয়াজ তথা স্ট্যান্টবাজিটা একটু বেশিই যেন। অনেক শিল্পী, পরিচালক ও প্রযোজক মিথ্যা কথা কিংবা প্রতিশ্রুতি দিয়ে আলোচনায় থাকতে চান। অথচ একবারও ভাবেন না, দিন-মাস-বছর শেষে সেই স্ট্যান্টবাজিটাই তার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের ওপর কালি লেপ্টে দিচ্ছে! এই ফাঁকা আওয়াজের মধ্যে বিগ বাজেটের ছবি নির্মাণ, বিদেশি তথা বলিউডের শিল্পী আমদানিসহ আরও অনেক কিছুই থাকে। ব্যক্তিগত ব্যস্ততা কিংবা আর্থিক দুর্বলতার কারণে কেউ কেউ নিজের দেয়া কথা থেকে সরে গেলেও কালক্রমে এই স্ট্যান্টবাজিকে অনেকে শিল্পে পরিণত করে ফেলেছেন। গত এক দশকে ঢালিউডের এসব স্ট্যান্টবাজি নিয়ে বিস্তারিত লিখেছেন-

  অরন্য শোয়েব ১০ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

২০১১ সাল থেকেই চিত্রনায়িকা শাবনূর বলে এসেছেন ‘থ্রি ইডয়টস’ নামে একটি ছবি নির্মাণ করবেন। কিন্তু সেটা বলার মধ্যেই সীমাবদ্ধ। কাজেকর্মে তার প্রতিফলন আজও ঘটেনি। একই বছর ঘোষণা এসেছিল নিরব-কেয়াকে নিয়ে ‘ওয়ান ফোর থ্রি’ নামে একটি ছবি নির্মাণের। সেটিও আর হয়নি। অনিমেষ আইচের ‘না মানুষ’ ছবিতে সিমলার সঙ্গে আইটেম গান করেছিলেন নিরব। ছবিটির কাজ শেষ হয়নি আজও।

২০১২ সালে চিত্রনায়িকা শাবানা ও তার স্বামী চিত্র প্রযোজক ওয়াহিদ সাদিক ঘোষণা দিয়েছিলেন তারা একসঙ্গে চারটি ছবি নির্মাণ করবেন। এর মধ্যে একটি ছবি হবে কলকাতার সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায়। এ ছবিতে বাংলাদেশের শাকিব খান ও কলকাতার রাইমা সেনের অভিনয়ের কথাও জানিয়েছেন। শেষ পর্যন্ত খবরটি ঘোষণার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে। একই বছর রাজধানীর একটি পাঁচতারা হোটেলে রিপন মিয়া পরিচালিত ‘তুমি সন্ধ্যারও মেঘমালা’ নামে একটি ছবির অডিও অ্যালবামের প্রকাশনা অনুষ্ঠিত হয়। ছবিটি সেই অনুষ্ঠান থেকে আর মুক্ত আলোয় বেরিয়ে আসতে পারেনি। এতে মিম ও ইমনের অভিনয় করার কথা ছিল।

২০১৩ সালে রাজধানীর শ্রুতি রেকর্ডিং স্টুডিওতে মহরত হয়েছিল শাহিন খান পরিচালিত ‘কেউ কথা রাখেনি’ ছবির। এতে আঁচলের নায়ক ছিলেন ইমন। জাহিদ খান নামে এক নবাগতকেও পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছিল। মালয়েশিয়ায় শুটিং হওয়ার কথা ছিল। এত বছর পেরিয়ে গেলেও ছবির কাজ এতটুকু এগোয়নি। আর কখনও নির্মাণ হবে না বলেই ধারণা করা যায়।

২০১৪ সালে একসঙ্গে তিনটি ছবি নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিল প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান দ্য রেইন পিকচার্স। প্রথম ছবির নাম ‘লাভলী’ (মন বোঝে না)। আরেফিন শুভ ও তমা মির্জাকে নিয়ে এ ছবির শুটিং শ্রীলংকায় শুরু হয়েছিল। এরপর ‘মিশন আমেরিকা’ ও ‘বয়ফ্রেন্ড গার্লফ্রেন্ড’ নামের দুটি ছবির মহরত হয়। কিন্তু জানা যায়নি তিনটি ছবির শেষ খবর।

২০১৪ সালে পরিচালক রাকিবুল আলম রাকিব, তিনি ঘোষণা দেন তার পরিচালিত ‘প্রেম করব তোমার সাথে’ সিনেমার একটি আইটেম গানে নাচবেন বলিউডের আনুশকা শর্মা। কিন্তু সিনেমাটি মুক্তির পর দেখা গেল আইটেম গানে পারফর্ম করেছেন বাংলাদেশি আইটেম গার্ল বিপাশা কবির। একই বছর এফআই মানিক সাইমন ও পরীকে নিয়ে ঘোষণা দেন ‘সারপ্রাইজ’ নামে একটি ছবি নির্মাণের। এ ছবিরও কোনো অগ্রগতি নেই। গত বছর আসিফ নূরকে এই থমকে যাওয়া ছবির সাইনিং মানি দিয়ে গণমাধ্যমে ছবি প্রকাশ করা হয়। জানা যায় এটিও ছিল ফাঁকা আওয়াজ।

২০১৫ সালের শুরুর দিকে যৌথ প্রযোজনায় কলকাতার পরিচালক আশীষ কুমারের ‘ফার্স্ট জানুয়ারি’ নামে একটি ছবি নির্মাণের ঘোষণা আসে। এতেও মিমের বিপরীতে ইমনের অভিনয় করার কথা ছিল। এ ছবিও আর হয়নি। একই বছর ঘোষণা আসে ‘রক’ নামে আরও একটি ছবি নির্মাণের। শফিক হাসান ছিলেন পরিচালনার দায়িত্বে। কলকাতার ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত ও অরিন্দমের অভিনয় করার কথা ছিল। জানান হয়েছিল, অরিন্দমের বিপরীতে অভিনয় করবেন বিদ্যা সিনহা মিম। এটাও ছিল ফাঁকা আওয়াজ। বাপ্পির সঙ্গে আইরিন জুটি বাঁধতে চেয়েছিলেন সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘লাভার বয়’ ছবিতে। ২০১৫ সালের জুলাইতে শুটিং হওয়ার কথা থাকলেও আজও শুটিং হয়নি ছবিটির। এটিও ঘোষণায় সীমাবদ্ধ।

২০১৭ সালে শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসের বিয়ে ও ডিভোর্স নিয়ে ছবি করার জন্য পরিচালক সমিতিতে ‘অপুর সংসার’ শিরোনামে একটি নাম এন্ট্রি করেন নির্মাতা শাহীন সুমন। এর প্রযোজক ছিলেন খোরশেদ আলম খসরু। এ ছবি যে শুধুই ফাঁকা আওয়াজ ছিল সেটা পরবর্তীতে স্পষ্ট হয়ে যায়।

২০১৮ সালে চিত্রনায়িকা রোজিনা ঘোষণা দেন তার প্রযোজনায় ‘বীরঙ্গনা’ নামে একটি ছবি নির্মিত হবে। সময় গড়িয়ে গেলেও এর আপডেট নেই এখনও। চিত্রনায়ক ফারুক সিনেমা প্রযোজনা করবেন, এক দেড় বছর আগে এ ঘোষণা তিনি দিয়েছিলেন। যদিও আর খবর পাওয়া যায়নি সে ছবির।

চলতি বছরের এপ্রিলে ‘সিনেবাজ’ নামের নতুন এক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে চার ছবি নির্মাণের ঘোষণা দেয়া হয়। বছর শেষের পথে থাকলেও এখন পর্যন্ত শুটিংয়ে গড়ায়নি এসব ছবি।

ফেনীর নুসরাত হত্যা নিয়ে সিনেমার ঘোষণা দিয়েছিলেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। খবর নিয়ে জানা যায়, তিনি দেশের কোনো চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটলেই সেটাকে পুঁজি করে সিনেমার ঘোষণা দেন!

গত বছর অক্টোবরে আনিসুল হকের সঙ্গে শাকিব খানের সিনেমা নির্মাণ নিয়ে রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে চুক্তি স্বাক্ষর হয়। বছর পেরিয়ে গেলেও সে ছবি এখন পর্যন্ত আলোর মুখ দেখেনি। শাকিব খান নিজে ‘প্রিয়া রে’ নামে ছবি করার ঘোষণা দিয়েও পরে পিছিয়ে গেছেন। আগে এ নায়কের ‘প্রিয়তমা’ নামে একটি ছবি নির্মাণের বিষয় ঘোষণার মধ্যেই আটকে আছে। শাকিব খান বলিউডের সিনেমায় অভিনয় করবেন এ খবর প্রকাশ হয়েছিল। কিন্তু সে ছবি আর হয়নি। নায়িকা পরীমনি ২০১৮ সালের মার্চে এফডিসিতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বেশ ঘটা করে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান খুলে ‘ক্ষত’ নামে সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দিয়েও আর সে পথে হাঁটেননি। এটাও ছিল তার ফাঁকা আওয়াজ। প্রযোজক নাজিমউদ্দিন চেয়ারম্যান একসঙ্গে ১০ ছবি নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন বছর দশেক আগে। তা আর আলোর মুখ দেখেনি। ভারত-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হওয়া ‘ক্র্যাক প্লাটুন’ নামে একটি ছবিতে ভারতের রানী মুখার্জি অভিনয় করবেন খবর প্রকাশ হয়। কিন্তু বাংলাদেশি কেউ ছবিতে কাজ করার জন্য তার সঙ্গে যোগাযোগ করেননি বলে জানান রানীর সহকারী। এ ছাড়া গত দশ বছরে ঢালিউডে আরও অনেকেই ছবি নির্মাণ সিনেপ্লেক্স নির্মাণসহ সিনেমা সংশ্লিষ্ট আরও কথা বললেও সেগুলো ঘোষণার মধ্যেই এখনও আটকে আছে বলে জানা গেছে। মূলত এসব মিথ্যা ঘোষণা ছিল তাদের প্রচারণার কৌশল।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×