প্রিয় শহর

সবাই সচেতন হলেই ঢাকার পরিবেশ ভালো থাকবে : তিশা

  যুগান্তর ডেস্ক    ১০ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আমি যে শহরে বসবাস করছি সে শহরই আমার কাছে সবচেয়ে প্রিয় শহর। বলছি ঢাকার কথা। ঢাকা-ই আমার দেখা সবচেয়ে প্রিয় শহর। গণমাধ্যম কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঢাকা শহর নিয়ে অনেক নেগেটিভ নিউজ দেখি ও পড়ি। যতই খারাপ মন্তব্য করি না কেন, আমাকে ঢাকাতেই থাকতে হচ্ছে। যারা ঢাকা নিয়ে গবেষণা করেন বা ঢাকার আপডেট খবর প্রকাশ করেন তারাও হয়তো ভুলে যান তারা যে ঢাকায় থাকছেন। আমারও ঢাকা নিয়ে অনেক খারাপ বিষয় জানা আছে। এ শহরের অনেক বিষয় আমার পছন্দ নয়। তবুও তো ঢাকা ছাড়া অন্য কোথাও যাচ্ছি না। আমার প্রিয় শহর কিংবা এ দেশ আমার কাছে যে কতটা আপন ঠিক তখনই বুঝি যখন এ শহর ছেড়ে দূরে কোথাও যাই। শুটিং বা অন্য কোনো কাজে আমি ইউরোপ, আমেরিকাতে গিয়েছি, ওখানে থেকেছি। পত্রপত্রিকায় যেসব শহরের অনেক সুনাম শুনি বা দেখি সেরকম অনেক শহরে আমার থাকার সৌভাগ্য হয়েছে। কিন্তু সেখানে থেকে এক মুহূর্তের জন্যও ঢাকার কথা ভুলতে পারিনি। কেন ভালো লাগে? এ শহর নিয়ে তো অনেক নেগেটিভ নিউজ পড়েছি। তবুও ভালো লাগে। কারণ এ শহরের মানুষ, পরিবেশ ও ধূলিকণার সঙ্গে মিশে আছি আমি ও আমার পরিবার। আর একটি কথা কি ভুলে যাওয়া সম্ভব? এ শহরেই তো হচ্ছে আমার আত্মকর্মসংস্থানের ব্যবস্থা। অভিনয় আমার আয়ের উৎস। এটাও যে এ শহর থেকেই উপার্জন করছি। পরিশেষে একটি কথাই বলব, আমরা যদি এ শহরের নানাবিধ নেগেটিভ বিষয় প্রচার না করে যে যার অবস্থান থেকে সচেতন হই এবং কমপক্ষে আমাদের বসবাসের জায়গার পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখি, তবে এ শহর সবারই প্রিয় হবে। সব সময় সুন্দর থাক আমার প্রিয় শহর ঢাকার পরিবেশ। প

লেখক : অভিনেত্রী

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×