মঞ্চ সংবাদ

মৈত্রীর বন্ধনে জমে উঠেছে গঙ্গা-যমুনা নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব

  ফারুক হোসেন শিহাব ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জমে উঠেছে রাজধানীর নাটকপাড়া ও নাটক সরণিতে চলমান ‘গঙ্গা-যমুনা নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসব’। প্রতিদিনই বাড়ছে নাট্যপ্রেমীদের ভিড়। ৮ম বারের মতো আয়োজিত এবারের উৎসবটিকে সাজানো হয়েছে আরও বর্ণিল ও বৃহৎ পরিসরে। বরাবরের মতো এবারও নাটকপাড়াখ্যাত বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তন, পরীক্ষণ থিয়েটার হল ও স্টুডিও থিয়েটার হল ও নাটক সরণিখ্যাত বেইলি রোডের বাংলাদেশ মহিলা সমিতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে জমকালো এ সাংস্কৃতিক যজ্ঞ। জাতীয় নাট্যশালা সম্মুখে নির্মিত অস্থায়ী মুক্তমঞ্চের পাশাপাশি এবারের উৎসবে ভেন্যু হিসেবে যুক্ত করা হয়েছে জাতীয় সঙ্গীত, নৃত্য ও আবৃত্তি মিলনায়তন এবং মহিলা সমিতির ড. নীলিমা ইব্রাহীম মিলনায়তন। মুক্তমঞ্চ এবং জাতীয় সঙ্গীত, নৃত্য ও আবৃত্তিশালায় প্রতিদিন বিকাল সাড়ে চারটা থেকে চলছে নানা বিষয়-বৈচিত্র্যের পথনাটক, আবৃত্তি, সঙ্গীত ও নৃত্যসহ বর্ণিল পরিবেশনা। ১১ থেকে ২০ অক্টোবর ১০ দিনব্যাপী এবারের আসরে মঞ্চস্থ হচ্ছে ঢাকা ও ঢাকার বাইরের ৩৬টি নাট্যদল ও ভারতের ৪টি দলের সাড়া জাগানো ৪০টি মঞ্চনাটক।

১১ অক্টোবর শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে উৎসবের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য ও বরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর এবং ভারতের নাট্যজন মেঘনাদ ভট্টাচার্য। বুধবার নাটক মঞ্চায়নের আগে মুক্তমঞ্চ এবং সঙ্গীত, নৃত্য ও আবৃত্তিকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে অন্যসব দিনের মতোই ছিল নানা সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এতে দেখা মিলে সর্বস্তরের সংস্কৃতিপ্রেমীদের উপচে পড়া ভিড়। আসরে আজও থাকবে একই রূপ। আজ সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেবে ক্রান্তি শিল্পী গোষ্ঠী এবং বহ্নিশিখাসহ বেশ কিছু সাংস্কৃতিক সংগঠন। সন্ধ্যা সাতটায় জাতীয় নাট্যশালার মূল মঞ্চে প্রদর্শিত হবে চট্টগ্রামের স্বনামধন্য নাট্যদল তির্যকের সাড়া জাগান নাটক ‘ইডিপাস’, পরীক্ষণ হলে মঞ্চস্থ হবে চন্দ্রকলা থিয়েটারের ‘শেখ সাদী’, স্টুডিও থিয়েটার হলে রয়েছে জাগরণী থিয়েটারের নাটক ‘রাজার চিঠি’ এবং মহিলা সমিতি মঞ্চে পরিবেশিত হবে নাগরিক নাট্যসম্প্রদায়ের নাটক ‘ওপেন কাপল’। একইভাবে সাংস্কৃতিক অঙ্গনের আলোচিত ও বৃহত্তর এ আয়োজন চলবে আগামী ২০ অক্টোবর পর্যন্ত।

আসরে অংশ নেয়া নাট্যদলগুলো হচ্ছে- ভারতের দল ‘সায়ক’, ‘অনীক’, ‘বেলঘরিয়া অভিমুখ’ এবং ‘বেলঘরিয়া রূপতাপস’। বাংলাদেশের দলগুলো হচ্ছে- নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়, থিয়েটার, নাট্যচক্র, থিয়েটার আর্ট ইউনিট, ঢাকা পদাতিক, আরণ্যক, লোক নাট্যদল, দেশ নাটক, নাগরিক নাট্যাঙ্গন, মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়, প্রাচ্যনাট, সময়, দৃষ্টিপাত, সুবচন, নাট্যতীর্থ, শব্দ নাট্যচর্চা কেন্দ্র, বাতিঘর, বাংলা নাট্যদল, জাগরণী, নাট্যম রেপার্টরি, আপস্টেজ, আরশিনগর, ঢাকা নান্দনিক, থিয়েটার ফ্যাক্টরি’, চন্দ্রকলা, চট্টগ্রামের দল তির্যক, প্যান্টোমাইম মুভমেন্ট, দর্শনার দল অনির্বাণ থিয়েটার, নাট্যম বরিশাল, থিয়েটার ৫২ এবং থিয়েট্রন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×