অবরুদ্ধ শার্লিন

পরিকল্পনা করেই মিডিয়ায় এসেছেন শার্লিন ফারজানা। কাজের মাধ্যমে প্রতিবন্ধকতা জয় করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টাই ছিল তার। তাই মডেলিং, নাটকে অভিনয়ের পর কাজের সীমানা বিস্তৃত করে নাম লেখান সিনেমায়। এ জন্য সব কিছু থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন। হয়ে পড়েন অবরুদ্ধ। ছবি মুক্তির সময়টাতেই সামনে চলে আসে করোনাভাইরাস সমস্যা। এরপর আর মুক্তি মেলেনি তার কিংবা ছবির। বিস্তারিত লিখেছেন-

  সোহেল আহসান ০২ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গল্পটা তিন বছর আগের। মনের লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য নতুন এক অভিযাত্রায় যুক্ত হন ছোট পর্দার অভিনেত্রী শার্লিন ফারজানা। মিডিয়া ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই তার স্বপ্ন ছিল ছবিতে অভিনয় করা। সেই স্বপ্ন পূরণের সুযোগ পেয়ে যান অল্পদিনের অভিনয় জীবনে। মাসুদ হাসান উজ্জ্বলের পরিচালনায় ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’ ছবিতে প্রধান নায়িকা চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত এ অভিনেত্রী। দু’বছর ধরে ছবির কাজ করছেন। ২০১৮ সালে এর শুটিং শেষ হয়। সে বছরের কোরবানির পর থেকে পরিচালক কর্তৃক এক নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েন তিনি। ছবি মুক্তির আগে শার্লিন যেন অভিনয়বিষয়ক আর কোনো ধরনের কাজ না করেন। অভিনয় জীবনের বাঁক বদল করার জন্য তিনি এ সিদ্ধান্ত মেনেও নেন এবং অন্তরালে চলে যান। কিন্তু সেই সময় যে এতটা স্থায়ী হবে কে জানত?

অভিনয় না করলেও নাটকের সম্ভাবনাময়ী এ অভিনেত্রীর কাছে নাটকে অভিনয়ের প্রস্তাব তারপরও আসতে থাকে; কিন্তু সিনেমা পরিচালকের নিষেধাজ্ঞার কারণে সব ধরনের অভিনয় থেকে নিজেকে আড়াল করে নেন শার্লিন। করোনাভাইরাসবিষয়ক ঝামেলার কয়েকদিন আগে ছবিটি সেন্সর ছাড়পত্র পায়। এরপর ১৩ মার্চ এর মুক্তির তারিখও ঘোষণা করা হয়েছিল; কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে মুক্তির তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে।

অন্যদিকে ছবিটির যখন মুক্তির তারিখ ঘোষণা করা হয়, তখন এটি নিয়ে পরিচালকের প্রচারণার কোনো উদ্যোগ চোখে পড়েনি। একপর্যায়ে এসে এ অভিনেত্রী অনেকটাই হতাশ হয়ে পড়েন। পরিচালক কিংবা ছবি কর্তৃপক্ষ থেকে কোনো মুভমেন্ট না থাকলেও গণমাধ্যমের সঙ্গে নিজেই যোগাযোগ শুরু করে দেন। ক্যারিয়ার থেকে মূল্যবান কিছু সময় হারিয়ে এখন অনুশোচনায় ভুগছেন শার্লিন। তিনি বলেন, ‘ছবিতে অভিনয়ের কারণে সবকিছু থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছিলাম। ছবিটি যখন মুক্তির তারিখ ঘোষণা হয়, তখনও দৃশ্যমান কোনো উদ্যোগ চোখে পড়েনি। তাই আমি নিজের চেষ্টায় কিছুটা প্রচারণা চালিয়েছি। যেহেতু করোনাভাইরাসের কারণে মুক্তি পিছিয়ে দেয়া হয়েছে। তাই সহসাই হয়তো ছবিটি মুক্তি পাবে না; কিন্তু এ ছবির জন্য প্রায় তিন ডজনের মতো নাটকে অভিনয় করিনি। এখন নতুন একটি সিদ্ধান্ত নিয়ে ভাবছি। আগামী মাস থেকেই হয়তো শুটিংয়ে ফিরব। সে লক্ষ্যেই কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।’

জানা গেছে, তিন চিত্রনির্মাতার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে চলছেন এ অভিনেত্রী। এর মধ্যে একটি ছবির কাজ মৌখিকভাবে চূড়ান্ত করা আছে। যে কোনো সময় চুক্তিপত্র তৈরি করা হবে। এ ছবি দিয়েই অভিনয় ক্যারিয়ারের নতুন অভিযাত্রায় সওয়ার হবেন শার্লিন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘অমিতাভ রেজা, রায়হান রাফির সঙ্গে প্রাথমিক কথা হয়েছে। তাদের নতুন ছবিতে যে অভিনয় করব তা মোটামুটি চূড়ান্ত। এ ছাড়া ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খানের সঙ্গেও অভিনয় করার কথা চলছে। করোনাভাইরাসবিষয়ক সমস্যা শেষ হলেই এগুলো চূড়ান্ত হবে। আমি যেহেতু অভিনয়কে পেশা হিসেবে নিয়েছি, তাই একজন মুক্ত অভিনেত্রী হিসেবেই কাজ করতে চাই। অবরুদ্ধ হয়ে থাকা যে কোনো মানুষের জন্যই সুখকর নয়। দর্শক এবং সংশ্লিষ্ট সবার শুভ কামনা আছে আমার প্রতি। আশা করছি, কাজের মাধ্যমেই সবার মন জয় করব।’

আত্মপ্রত্যয়ী এ অভিনেত্রীর ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল মডেলিংয়ের মাধ্যমে। তবে অল্প সময়ের মধ্যেই টিভি নাটকে অভিনয় শুরু করেন। ভালো গল্প ও চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজেকে সঠিকভাবে মেলে ধরতে সক্ষম হন তিনি। নাটকে পরিচিতি ও জনপ্রিয়তা পাওয়ার পরই বড় পর্দামুখী হন। এবার ভালো কিছু কাজের মাধ্যমে বারবার দর্শকের মনের দরজায় কড়া নাড়তে চান শার্লিন ফারজানা।

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত