নিরানন্দে কেটেছে সিনেমাপাড়ার ঈদ
jugantor
নিরানন্দে কেটেছে সিনেমাপাড়ার ঈদ

  তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক  

২৯ জুলাই ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ দেশের প্রেক্ষাগৃহ। মাঝে কিছুদিনের জন্য চালু হলেও নতুন ছবি মুক্তি দিয়ে নির্মাতা প্রযোজকরা ক্ষতির ঝুঁকি নিতে চাননি।

ঈদের দিকে তাকিয়ে ছিলেন সবাই। কিন্তু বিধিবাম। গতবারের মতো চলতি বছরের রোজা এবং কুরবানির ঈদও গেছে ছবিশূন্য। রোজার ঈদে সিনেমা হল বন্ধ ছিল। কুরবানির ঈদে কয়েকটি ছবি মুক্তির প্রক্রিয়ায় থাকলেও শেষ মুহূর্তে এসে সেই পরিকল্পনাও বাতিল করে দেন প্রযোজকরা। কারণ ঈদের আগে লকডাউন শিথিল করলেও ঈদের পরে মাত্র একদিন খোলা ছিল প্রেক্ষাগৃহ। এরপরই আবার সবকিছু বন্ধ হয়ে যায়। সঙ্গে প্রেক্ষাগৃহও।

আগে থেকেই কুরবানির ঈদে অনন্য মামুন পরিচালিত ‘কসাই’ নামে একটি ছবি মুক্তির ঘোষণায় ছিল। যদিও এটি অনলাইন প্ল্যাটফরমে অবমুক্ত করা হয়েছে ঈদের মাসখানেক আগে। প্রেক্ষাগৃহ, অর্থাৎ বড় পর্দায় ছবিটি দর্শককে দেখানোর উদ্দেশ্যেই ঈদে নতুন করে মুক্তি দিয়েছেন পরিচালক, প্রযোজক। দর্শকও হচ্ছিল। কিন্তু আবার লকডাউনের কারণে সেটাও বন্ধ হয়ে যায়।

এ ছাড়া ঈদের ছুটিতে দেশের বিভিন্ন জেলায় কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহ পুরোনো ছবি প্রদর্শন করেছে। জানা গেছে, সেগুলোতেও ছিল না কোনো দর্শক সমাগম। স্বভাবতই বলা যায়, নিরানন্দে কেটেছে সিনেমাপাড়ার এবারের ঈদও। এদিকে উৎসব উপলক্ষ্য করে নির্মিত বিগ বাজেটের ছবিগুলো মুক্তি দিতে না পেরে এরই মধ্যে বড় ধরনের জটও তৈরি হয়েছে।

নিরানন্দে কেটেছে সিনেমাপাড়ার ঈদ

 তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক 
২৯ জুলাই ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ দেশের প্রেক্ষাগৃহ। মাঝে কিছুদিনের জন্য চালু হলেও নতুন ছবি মুক্তি দিয়ে নির্মাতা প্রযোজকরা ক্ষতির ঝুঁকি নিতে চাননি।

ঈদের দিকে তাকিয়ে ছিলেন সবাই। কিন্তু বিধিবাম। গতবারের মতো চলতি বছরের রোজা এবং কুরবানির ঈদও গেছে ছবিশূন্য। রোজার ঈদে সিনেমা হল বন্ধ ছিল। কুরবানির ঈদে কয়েকটি ছবি মুক্তির প্রক্রিয়ায় থাকলেও শেষ মুহূর্তে এসে সেই পরিকল্পনাও বাতিল করে দেন প্রযোজকরা। কারণ ঈদের আগে লকডাউন শিথিল করলেও ঈদের পরে মাত্র একদিন খোলা ছিল প্রেক্ষাগৃহ। এরপরই আবার সবকিছু বন্ধ হয়ে যায়। সঙ্গে প্রেক্ষাগৃহও।

আগে থেকেই কুরবানির ঈদে অনন্য মামুন পরিচালিত ‘কসাই’ নামে একটি ছবি মুক্তির ঘোষণায় ছিল। যদিও এটি অনলাইন প্ল্যাটফরমে অবমুক্ত করা হয়েছে ঈদের মাসখানেক আগে। প্রেক্ষাগৃহ, অর্থাৎ বড় পর্দায় ছবিটি দর্শককে দেখানোর উদ্দেশ্যেই ঈদে নতুন করে মুক্তি দিয়েছেন পরিচালক, প্রযোজক। দর্শকও হচ্ছিল। কিন্তু আবার লকডাউনের কারণে সেটাও বন্ধ হয়ে যায়।

এ ছাড়া ঈদের ছুটিতে দেশের বিভিন্ন জেলায় কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহ পুরোনো ছবি প্রদর্শন করেছে। জানা গেছে, সেগুলোতেও ছিল না কোনো দর্শক সমাগম। স্বভাবতই বলা যায়, নিরানন্দে কেটেছে সিনেমাপাড়ার এবারের ঈদও। এদিকে উৎসব উপলক্ষ্য করে নির্মিত বিগ বাজেটের ছবিগুলো মুক্তি দিতে না পেরে এরই মধ্যে বড় ধরনের জটও তৈরি হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন