বানভাসিদের পাশে তারকারা
jugantor
মানুষ মানুষের জন্য
বানভাসিদের পাশে তারকারা

  তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক  

২৩ জুন ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় সিলেট, সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি। হঠাৎ করে ভারতের আসাম ও মেঘালয় থেকে মাত্রাতিরিক্ত পানি এসে সিলেট সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জের এলকায় স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সেসব এলাকায় মানুষের দুঃখ-দুর্দশার খবর পাওয়া যাচ্ছে প্রতিদিন। এক মানবিক বিপর্যয় চলছে সেই এলাকাগুলোতে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শনে যান। অনেকেই দুর্গত মানুষদের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন, মহাবিপর্যয়ের সময় মানুষ বানভাসিদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার জন্য এগিয়ে এসেছেন। দেশের বিনোদন অঙ্গনের মানুষরাও বসে নেই। তারাও সামর্থ্য অনুযায়ী বন্যায় অসহায় হয়ে যাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

মিডিয়ায় তারকাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ব্যক্তিগত পর্যায়ে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ অর্থ সহায়তা দিয়েছেন চিত্রনায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। তিনি নগদ ৩০ লাখ টাকা পৌঁছে দিয়েছেন দুর্গতদের সাহায্যের জন্য। শুধু তাই নয় তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের নিয়ে একটি রেসকিউ টিম তৈরি করে সিলেট ও সুনামগঞ্জ পাঠিয়েছেন তিনি। সঙ্গে দিয়েছেন ট্রলারভর্তি খাবার, মোমবাতি, হ্যারিকেন (কেরোসিন তেলসহ)। এ প্রসঙ্গে অনন্ত জলিল বলেন, ‘আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব সহায়তা করার চেষ্টা করছি। যদি পরিস্থিতি দীর্ঘায়িত হয় তাহলে আবারও ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রম পরিচালিত করব আমি। তবে আশা করছি দ্রুতই যেন বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষেরা নিরাপদ জীবনে ফিরতে পারেন।’

অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজল ১০ ট্রাক শুকনো খাবার সরবরাহ করছেন বলে জানিয়েছেন। খাবারের তালিকায় রয়েছে চিড়া, গুড়, বিশুদ্ধ পানি ও শিশু খাদ্য। এ প্রসঙ্গে ডিপজল বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমি এ সহায়তা দিচ্ছি। প্রয়োজনে আমার সাহায্যের পরিমাণ আরও বৃদ্ধি করব।’

সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত ‘তালাশ’ নামের সিনেমা থেকে সব আয় বন্যা দুর্গতদের মাঝে পৌঁছে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সিনেমাটির কর্তৃপক্ষ। এদিকে ‘অমানুষ’ নামের আরেকটি সিনেমাও একই সঙ্গে মুক্তি পেয়েছে। এ সিনেমার টিম এরই মধ্যে ৫০০ পরিবারের জন্য খাবার সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে। এ কার্যক্রমটি পরিচালনা করছেন সিনেমাটির অভিনেতা নিরব। তিনি বন্যাদুর্গত এলাকায় গিয়ে নিজে তদারকি করেছেন সহায়তা কার্যক্রম। নিরব বলেন, ‘বন্যাদুর্গত এলাকায় মানুষ খুবই সংকটে আছেন। যে পরিমাণ সহায়তা যাচ্ছে তার থেকে বেশি পরিমাণ সহায়তা প্রয়োজন এলাকাগুলোতে।’

নাট্যাভিনেতা আবদুন নূর সজল নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন। তবে কোন ধরনের সহায়তা দিয়েছেন তা প্রকাশ করেননি। নাট্য নির্মাতা মাবরুর রশীদ বান্নাহ একটি সহায়তা টিম প্রস্তুত করছেন। অল্প সময়ের মধ্যেই টিম নিয়ে সিলেট এলাকায় যাবেন মানুষের সহায়তা করার জন্য। এদিকে ‘কুঁড়েঘর’ নামের একটি ব্যান্ড দলের গায়ক তাশরীফ খান এখন পর্যন্ত ১৬ লাখ টাকা বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করে পৌঁছে দিয়েছেন সিলেটের ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনাকারী সরকারি কর্তৃপক্ষের কাছে। অন্যদিকে ‘মধু হই হই’ গানখ্যাত গায়ক ইমরান হোসেন দুই লাখ টাকা ফান্ড সংগ্রহ করে তা দুর্গতদের সেবায় প্রেরণ করেছেন। ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান আমেরিকায় অবস্থান করলেও সিলেট অঞ্চলের মানুষের জন্য সহায়তা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি এ কাজটি করেছেন আরও কয়েকদিন আগেই। তার ঘোষণার পর থেকেই তারকারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্যায় অসহায় হয়ে যাওয়া মানুষের কাছে সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে যাচ্ছেন প্রায় প্রতিদিন। তারা হলেন জয়া আহসান, আসিফ আকবর, রোজিনা, হানিফ সংকেত, তাহসান খান, তানভিন সুইটি, তানজিন তিশা, স্পর্শিয়া, শবনম ফারিয়াসহ অনেকে। এরা ব্যক্তিগতভাবে সামর্থ্য অনুযায়ী কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে শুধু সিলেটই নয় মৌসুমি বন্যার কারণে দেশের উত্তর এবং পশ্চিমাঞ্চলেও বন্যা হানা দেওয়ার খবর শোনা যাচ্ছে। এদিকেও সংশ্লিষ্টদের খেয়াল রাখার জোর দাবি জানাচ্ছেন তারকারা।

মানুষ মানুষের জন্য

বানভাসিদের পাশে তারকারা

 তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক 
২৩ জুন ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় সিলেট, সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি। হঠাৎ করে ভারতের আসাম ও মেঘালয় থেকে মাত্রাতিরিক্ত পানি এসে সিলেট সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জের এলকায় স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। সেসব এলাকায় মানুষের দুঃখ-দুর্দশার খবর পাওয়া যাচ্ছে প্রতিদিন। এক মানবিক বিপর্যয় চলছে সেই এলাকাগুলোতে। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শনে যান। অনেকেই দুর্গত মানুষদের জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন, মহাবিপর্যয়ের সময় মানুষ বানভাসিদের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার জন্য এগিয়ে এসেছেন। দেশের বিনোদন অঙ্গনের মানুষরাও বসে নেই। তারাও সামর্থ্য অনুযায়ী বন্যায় অসহায় হয়ে যাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

মিডিয়ায় তারকাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ব্যক্তিগত পর্যায়ে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ অর্থ সহায়তা দিয়েছেন চিত্রনায়ক ও প্রযোজক অনন্ত জলিল। তিনি নগদ ৩০ লাখ টাকা পৌঁছে দিয়েছেন দুর্গতদের সাহায্যের জন্য। শুধু তাই নয় তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের নিয়ে একটি রেসকিউ টিম তৈরি করে সিলেট ও সুনামগঞ্জ পাঠিয়েছেন তিনি। সঙ্গে দিয়েছেন ট্রলারভর্তি খাবার, মোমবাতি, হ্যারিকেন (কেরোসিন তেলসহ)। এ প্রসঙ্গে অনন্ত জলিল বলেন, ‘আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সম্ভব সহায়তা করার চেষ্টা করছি। যদি পরিস্থিতি দীর্ঘায়িত হয় তাহলে আবারও ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রম পরিচালিত করব আমি। তবে আশা করছি দ্রুতই যেন বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষেরা নিরাপদ জীবনে ফিরতে পারেন।’

অভিনেতা ও প্রযোজক মনোয়ার হোসেন ডিপজল ১০ ট্রাক শুকনো খাবার সরবরাহ করছেন বলে জানিয়েছেন। খাবারের তালিকায় রয়েছে চিড়া, গুড়, বিশুদ্ধ পানি ও শিশু খাদ্য। এ প্রসঙ্গে ডিপজল বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে আমি এ সহায়তা দিচ্ছি। প্রয়োজনে আমার সাহায্যের পরিমাণ আরও বৃদ্ধি করব।’

সম্প্রতি মুক্তিপ্রাপ্ত ‘তালাশ’ নামের সিনেমা থেকে সব আয় বন্যা দুর্গতদের মাঝে পৌঁছে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সিনেমাটির কর্তৃপক্ষ। এদিকে ‘অমানুষ’ নামের আরেকটি সিনেমাও একই সঙ্গে মুক্তি পেয়েছে। এ সিনেমার টিম এরই মধ্যে ৫০০ পরিবারের জন্য খাবার সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে। এ কার্যক্রমটি পরিচালনা করছেন সিনেমাটির অভিনেতা নিরব। তিনি বন্যাদুর্গত এলাকায় গিয়ে নিজে তদারকি করেছেন সহায়তা কার্যক্রম। নিরব বলেন, ‘বন্যাদুর্গত এলাকায় মানুষ খুবই সংকটে আছেন। যে পরিমাণ সহায়তা যাচ্ছে তার থেকে বেশি পরিমাণ সহায়তা প্রয়োজন এলাকাগুলোতে।’

নাট্যাভিনেতা আবদুন নূর সজল নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন। তবে কোন ধরনের সহায়তা দিয়েছেন তা প্রকাশ করেননি। নাট্য নির্মাতা মাবরুর রশীদ বান্নাহ একটি সহায়তা টিম প্রস্তুত করছেন। অল্প সময়ের মধ্যেই টিম নিয়ে সিলেট এলাকায় যাবেন মানুষের সহায়তা করার জন্য। এদিকে ‘কুঁড়েঘর’ নামের একটি ব্যান্ড দলের গায়ক তাশরীফ খান এখন পর্যন্ত ১৬ লাখ টাকা বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করে পৌঁছে দিয়েছেন সিলেটের ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনাকারী সরকারি কর্তৃপক্ষের কাছে। অন্যদিকে ‘মধু হই হই’ গানখ্যাত গায়ক ইমরান হোসেন দুই লাখ টাকা ফান্ড সংগ্রহ করে তা দুর্গতদের সেবায় প্রেরণ করেছেন। ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান আমেরিকায় অবস্থান করলেও সিলেট অঞ্চলের মানুষের জন্য সহায়তা পাঠানোর ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি এ কাজটি করেছেন আরও কয়েকদিন আগেই। তার ঘোষণার পর থেকেই তারকারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বন্যায় অসহায় হয়ে যাওয়া মানুষের কাছে সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে যাচ্ছেন প্রায় প্রতিদিন। তারা হলেন জয়া আহসান, আসিফ আকবর, রোজিনা, হানিফ সংকেত, তাহসান খান, তানভিন সুইটি, তানজিন তিশা, স্পর্শিয়া, শবনম ফারিয়াসহ অনেকে। এরা ব্যক্তিগতভাবে সামর্থ্য অনুযায়ী কার্যক্রমে অংশ নিয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে শুধু সিলেটই নয় মৌসুমি বন্যার কারণে দেশের উত্তর এবং পশ্চিমাঞ্চলেও বন্যা হানা দেওয়ার খবর শোনা যাচ্ছে। এদিকেও সংশ্লিষ্টদের খেয়াল রাখার জোর দাবি জানাচ্ছেন তারকারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন