ওরা কোথায়?

  তারা ঝিলমিল ডেস্ক ১২ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিল্পী মামুন, বিপ্লব ও অর্ণব (বা থেকে)
শিল্পী মামুন, বিপ্লব ও অর্ণব (বা থেকে)

সঙ্গীতাঙ্গনে অনেকেই আছেন যারা রাতারাতি তারকা বনে গেছেন। আবার কেউ কেউ সাধনা করে কিছুটা সময় নিয়ে ভক্ত-শ্রোতাদের হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছেন। ঠিক এদেরই মাঝে অনেকে খুব তাড়াতাড়ি হোক কিংবা অনেক সময় পরে হোক হঠাৎ এ অঙ্গন থেকে উধাও। ভক্ত-শ্রোতাদের কোনো কারণ না দেখিয়ে চলে গেছেন আড়ালে। দেশীয় সঙ্গীতাঙ্গনে এমন হারিয়ে যাওয়া কিছু তারকা নিয়ে বিশেষ আয়োজন তুলে ধরেছেন এইচ সাইদুল

‘আমি আর গানের খবর তেমন একটা রাখি না’- এক সাক্ষাৎকারে এমনই বলেছেন ‘ত্রিশ বছর পরেও আমি স্বাধীনতাটাকে খুঁজছি’ গানের স্রষ্টা হায়দার হোসেন। দেশ-বিদেশে রয়েছে তার অগণিত ভক্ত। যিনি মানুষের গান গেয়ে ভক্তদের হৃদয়ে আজও চিরসবুজ হয়ে আছেন।

‘আমি ফাইস্যা গেছি’, ‘আমি সরকারি অফিসার’সহ বহু জনপ্রিয় গান গেয়েছেন এ জীবনমুখী গানের শিল্পী। তার একটি বিখ্যাত গান ‘চিৎকার করতেও আমি করিতে পারিনি চিৎকার।’ হায়দার হোসেন এখন অনেকটা আড়ালে। গানের বাইরে অন্য কাজে ব্যস্ত তিনি। আসলেই গানের তেমন কোনো খবর রাখেন না। তবে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন সামনে কিছু গান উপহার দেবেন ভক্ত-শ্রোতাদের। এ সময়টা কবে তিনি বলেননি।

‘প্রমিথিউস’ ব্যান্ডের মাধ্যমে অনেক জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন বিপ্লব। একক গানেও তিনি সফল ও জনপ্রিয়। তবে চলতি অডিও শিল্প নিয়ে নাখোশ তিনি। বছর কয়েক হল দেশে পাওয়া যায়নি তার গান।

নিজের ওয়েবসাইটে আগের করা গানগুলোও কয়েক বছর আগে প্রকাশ করেছিলেন। বেশ কয়েক বছর ধরে বিপ্লব নেই কোথাও! যেন হারিয়ে গেছেন! কনসার্ট, টিভি প্রোগ্রাম কিংবা গানের কোনো কর্মকাণ্ডেই পাওয়া যাচ্ছে না তাকে। বিপ্লব ভক্তদের মনে তাই প্রশ্ন, কোথায় হারালেন প্রিয় শিল্পী? জানা গেছে, গত বছর থেকে আমেরিকায় থাকছেন বিপ্লব। ওখানে স্থায়ীভাবে থাকার পরিকল্পনা তার।

‘আমার একটা নদী ছিল জানল না তো কেউ’ গানের শিল্পী পথিক নবীর খবরও কেউ জানে না। প্রায় এগারো বছর ধরে তার কোনো গান দর্শক-শ্রোতারা শুনতে পায়নি। অন্তত তিন শতাধিক গান নিজে লিখেছেন, সুর করেছেন। গেল বৈশাখে তাকে একটি শোতে দেখা গেলেও অনেকটা আড়ালেই আছেন এ জনপ্রিয় শিল্পী।

‘রূপের মাইয়া একবার চাইয়া গো ভাব লাগাইয়া পরাণ কাড়িলে’ গানটা শোনেননি এমন মানুষ বাংলাদেশে খুব কমই আছেন। সিলেটের সন্তান মামুনের এ গান আজও সমান তালে জনপ্রিয়। খুব তাড়াতাড়ি জনপ্রিয়তা পাওয়া এ শিল্পী এখন কোথায় কেউ জানে না।

গানের জগৎ থেকে হারিয়ে গেছেন। গেল মার্চে কথা হয় এ প্রতিবেদকের সঙ্গে। ওই সময় মামুন বলেন, ‘দেশ থেকে দূরে আছি; কিন্তু গান ছাড়িনি।’ ২০০২ সালে তার প্রথম অ্যালবাম ‘রূপের মাইয়া’ প্রকাশ হয়। প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান মামুন। বর্তমানে পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন লন্ডনে। নতুন কোনো গান করবেন কিনা প্রশ্ন করলে তিনি নিশ্চিত কিছু বলেননি।

সুপারহিট ছবি গিয়াসউদ্দিন সেলিমের ‘মনপুরা’র সঙ্গীত পরিচালনা করেছিলেন অর্ণব। এ সঙ্গীতপরিচালক ও শিল্পীর নিজের গাওয়া গানগুলো আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা লাভ করে। ‘আহা! ‘সিনেমায় গান গাওয়া, পরবর্তী সময়ে ‘জাগো’ চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা দিয়েই তার চলচ্চিত্রের গানে যাত্রা শুরু। তারপর ‘কলকাতা কলিং’, ‘দীপ নেভার আগে’ সিনেমার সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন। ‘পদ্ম পাতার জল’, ‘আইসক্রিম’ ও ‘আয়নাবাজি’ সিনেমার গানেও কণ্ঠ দিয়েছেন। অর্ণব চলচ্চিত্রে গান কম গাইলেও হয়েছেন প্রশংসিত। অ্যালবামের গানেও রয়েছে তার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। এক সময়ের ব্যস্ত এ শিল্পী সঙ্গীতে এখন আর নিয়মিত নেই। দর্শক-শ্রোতারা পাচ্ছে না তার নতুন কোনো গান। গণমাধ্যমে তাকে নিয়ে নেই কোনো আলোচনা।

দাপটের সঙ্গে সঙ্গীতাঙ্গনে বিচরণ করা বালামও এখন অনেকটা আড়ালে। প্রজাপতি, কমন জেন্ডার, হৃদয় ভাঙা ঢেউ, প্রিয়তমেষু, আমাদের ছোট সাহেব চলচ্চিত্রের গানে তাকে পাওয়া গেছে। সব গানই ছিল জনপ্রিয়। বালামের দাপট মূলত ছিল অডিও শিল্পতে। স্বনামে ‘বালাম’ প্রথম অ্যালবাম থেকে বেশ কিছু সলো ও মিক্সড অ্যালবামে গান করেছেন। বহুদিন আড়ালে থাকা বালামকে কিছুদিন আগে গানে দেখা যায়। তবে এ প্রতিবেদবকে তিনি জানিয়েছেন, স্ত্রীর অসুস্থতার কারণেই তিনি গানে অনিয়মিত। আবারও নিয়মিত হওয়ার চেষ্টা করবেন।

দীর্ঘদিন থেকে পরিবার নিয়ে আছেন যুক্তরাষ্ট্রে আরেক জনপ্রিয় শিল্পী ও সঙ্গীত পরিচালক ফুয়াদ আল মুক্তাদির। একটা সময়ে অ্যালবামের পাশাপাশি সিনেমাতেও কাজ করেছেন। দাপিয়ে বেড়িয়েছেন বিজ্ঞাপনের জিজ্ঞেলেও। কিছুদিন আগে তার শরীরে প্যাপিলারি কারসিনোমা ধরা পড়েছে। এটি থাইরয়েড ক্যানসার, সহজে নিরাময়যোগ্য। অস্ত্রোপচার হয়েছে। বহুদিন ফুয়াদের নতুন কোনো গান পাচ্ছে না দর্শক-শ্রোতা। অনেকেই মনে করছেন সঙ্গীতাঙ্গন থেকে তিনি হারিয়ে গেছেন।

ক্যারিয়ারের শুরুতেই ব্যাপক জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছেন আরেফিন রুমি। কিছুদিন আগে আর গান করবেন না বলে ঘোষণা দেন। এখন একেবারই গান থেকে দূরে। গান ছেড়ে দেয়ার ঘোষণার কয়েকদিন পর রুমি সাংবাদিকদের জানান, পাঁচ মাস পর নতুন গান করবেন।

ক্লোজআপ ওয়ান তারকা নোলক বাবুও কোনো খবরে নেই। কালেভাদ্রে তাকে গান নিয়ে দেখা গেলেও আগের মতো জনপ্রিয়তা তার এখন নেই।

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.