এই সময়ে তিশা

  তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক ০২ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

এই সময়ে তিশা

যেদিকেই যা করেছেন, তাতেই সফল হয়েছেন। অভিনয়ের প্রতিটি মাধ্যমেই সফলতা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। চলচ্চিত্রে সুঅভিনয়ের স্বীকৃতি স্বরূপ গত মাসে ‘অস্তিত্ব’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘরে তুলেছেন।

তার স্বামী নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পরিচালনায় আবারও নতুন একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। এটির নাম ‘শনিবার বিকেল’। শুটিংসহ অন্যান্য কাজও এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। মুক্তির প্রহর গুনছে এই ছবিটি। এতেও কেন্দ্রীয় একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিশা।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আসলে আমি যখন যে কাজটা করি তখন সেটিই সর্বক্ষণ মাথায় ঘুরতে থাকে। এটির ক্ষেত্রেও ব্যক্রিতম হয়নি। এ ছবির গল্প, নির্মাণশৈলী আমার খুব ভালো লেগেছে। এ ছাড়া সহশিল্পীরাও সহযোগিতা করেছেন আমার চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলার জন্য। আশা করছি দর্শক এবারও আমার অভিনীত এ ছবিটি আগ্রহের সঙ্গেই দেখবেন।’ অন্যদিকে তিশা অভিনীত ‘হালদা’ ছবিটি তিনটি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রে প্রদর্শিত হবে। এ নিয়েও উচ্ছ্বসিত তিনি।

বেশ আগে থেকেই চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করেছেন তিশা। ২০০৯ সালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পরিচালনায় ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’ চলচ্চিত্র দিয়ে বড় পর্দার অভিযাত্রা শুরু হয় তার। পরের বছরই তারেক মাসুদের মতো খ্যাতিমান নির্মাতার পরিচালনায় ‘রানওয়ে’ ছবিতে অভিনয় করে প্রশংসা কুড়ান।

এরপর মাকসুদ হোসেনের ‘বাহাত্তর ঘণ্টা’, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘টেলিভিশন’, ‘ডুবোশহর’ ও ‘ডুব’, অনন্য মামুনের ‘অস্তিত্ব’, শামিম আহমেদ রনীর ‘রানা পাগলা : দ্য মেন্টাল’, তৌকীর আহমেদের ‘হালদা’ ছবিতে পর্যায়ক্রমে অভিনয় করেন।

এ ছাড়া তৌকীর আহমেদের পরিচালনায় ‘ফাগুন হাওয়া’ ছবিটি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। প্রতিটি ছবিরই কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিশা বলেন, ‘আমার অভিনীত প্রতিটি ছবিরই গল্প আকর্ষণ করার মতো। দর্শক এসব ছবিতে আমার অভিনয়কে উৎসাহ দিয়ে আসছেন, যা আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। দর্শকের ভালোবাসা সঙ্গে থাকলে ভবিষ্যতেও নিত্য নতুন গল্পের চরিত্রে আমাকে দেখা যাবে।’

বর্তমানে তিশা আগামী ঈদের নাটকের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। সম্প্রতি মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পরিচালনায় একটি টেলিফিল্মে অভিনয় করেছেন। এটির নাম ‘আয়েশা’। আনিসুল হকের ‘আয়েশা মঙ্গল’ উপন্যাস অবলম্বনে এর গল্প তৈরি করা হয়েছে। টেলিফিল্মটি আগামী ঈদে প্রচার হবে। এ ছাড়া প্রথমবারের মতো একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন তিশা। আরিফুর রহমানের পরিচালনায় এটির নাম ‘অতঃপর জয়া’।

এ প্রসঙ্গে তিশা বলেন, ‘এই প্রথম ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছি। গল্পটা ভালো, সেই জন্য কাজটিও ভালো লেগেছে।’ মিডিয়ায় কণ্ঠশিল্পী হিসেবেই কাজ শুরু করেছিলেন তিশা। ১৯৯৫ সালে নতুন কুড়ি প্রতিযোগিতায় গানে প্রথম হন। এর ঠিক দুই বছর পর অনন্ত হিরার পরিচালনায় একটি নাটকে শখের বসে অভিনয় করেছিলেন। ২০০৩ সাল থেকে অভিনয় ও মডেলিংয়ে ব্যস্ত হয়ে ওঠেন তিশা। ‘অ্যাঞ্জেল ফোর’ নামে একটি ব্যান্ড দলের সঙ্গে গান গাওয়ার কাজটিও চালিয়ে যেতে থাকেন।

পরে ধীরে ধীরে তিনি অভিনয়ের দিকে ঝুঁকে পড়েন। এ প্রসঙ্গে তিশা বলেন, ‘অভিনয় ব্যস্ততার জন্য কোনো অনুষ্ঠানে গান গাওয়া না হলেও বাসায় যখন অবসরে থাকি তখন প্রায়ই গানের চর্চা করি। গান আমার অস্তিত্বের সঙ্গে মিশে আছে। সময় পেলেই আমার পছন্দের শিল্পীদের গান প্রায়ই শুনি। আগে প্রায়ই টেলিভিশনে গানের অনুষ্ঠানে অংশ নিতাম।’

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter