ইউটিউবনির্ভর এবারের ঈদের গান

  তারা ঝিলমিল প্রতিবেদক ৩০ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

হাবিব ওয়াহিদের নতুন গান ‘আবার তুই’
হাবিব ওয়াহিদের নতুন গান ‘আবার তুই’ মিউজিক ভিডিও এর একটি দৃশ্য

এবারের ঈদে হারিয়ে যাওয়া বেশ কয়েকজন শিল্পীর গান শ্রোতা-দর্শক দেখতে ও শুনতে পেয়েছেন। তার মধ্যে এক সময়ের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মনি কিশোর ঈদুল আজহায় হাজির হয়েছেন একটি মিউজিক ভিডিও নিয়ে, ‘রাত আসলে’ শিরোনামে গানের কথা শিল্পী নিজেই লিখেছেন। সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন রেজওয়ান শেখ।

মিউজিক ভিডিওসহ গানটি প্রকাশ করা হয়েছিল সঙ্গীতার ব্যানারে। ভক্তরা পুরনো মনি কিশোরকে গানের মাধ্যমে খোঁজার চেষ্টা করেছে। ঈদে প্রকাশিত ‘সুখ পাখি’ শিরোনামের একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন ‘আজো প্রতি রাত জেগে থাকি’ গানখ্যাত শিল্পী ইমন খান। রুমানা আক্তার বৃষ্টির কথায় গানটির সঙ্গীতায়োজন করেছেন আল আমীন খান। এ গানটিও তেমন জমে ওঠেনি।

গানচিল মিউজিকের প্রযোজনায় প্রকাশিত হয়েছে তামিম রহমান অংশুর পরিচালনায় মিউজিক্যাল শর্টফিল্ম ‘আবার তুই’। হাবিব ওয়াহিদের নতুন গান ‘আবার তুই’ নিয়ে এটি তৈরি হয়েছে। এ গানের মাধ্যমে এবারই প্রথম কোনো শর্টফিল্মে অভিনয় করেছেন হাবিব। শর্টফিল্মটির শুটিং লোকেশন ও ক্যামেরার কাজ ভালো ছিল।

বেঙ্গল ফাউন্ডেশন থেকে প্রকাশ হয়েছে নন্দিত দুই কণ্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবী ও সামিনা চৌধুরীর যৌথ অ্যালবাম ‘আমার গানের প্রান্তে’। বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী মাহমুদুন্নবীর কালজয়ী ১০টি গান নিয়ে সাজানো হয়েছে অ্যালবামটি। আগে থেকে অ্যালবামটি নিয়ে আলোচনা ছিল।

সঙ্গীতা প্রকাশ করছে কাজী শুভ ও মায়া মনির ‘প্রেমের তরী’, মনি কিশোরের ‘সব ফুলে মালা গাঁথা যায় না’, মিনারের ‘আমি তো এমনই’, কাজী শুভর ‘একটু একটু জ্বলি’, লুমিনের ‘হারানো দিন’, মিজানের ‘বৃষ্টি হয়ে যাও’, বেবী নাজনীনের ‘প্রিয়তম’, সামিনা চৌধুরীর ‘এক গানের পাখি’, শাফিন আহমেদের ‘বলা তো হল না’ একক গান ও মিউজিক ভিডিও। এখন পর্যন্ত কোনো গানেরই আশানুরূপ ভিউয়ার্স হয়নি।

সিডি চয়েস ঈদে প্রকাশিত কুমার বিশ্বজিতের ‘বৃষ্টি এলেই আসো তুমি’ শিরোনামের গানটি ইউটিউবে কিছুটা ভিউয়ার্স তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে। এ ছাড়া এ প্রতিষ্ঠান থেকে প্রকাশিত অন্যান্য শিল্পীর গান নিয়ম মতোই চলছে বলে জানা গেছে।

ইউটিউবে জি-সিরিজ থেকে প্রকাশিত প্রিন্স মাহমুদের সুরে মিশ্র অ্যালবাম ‘ভূমিপুত্র’, বিউটির ‘প্রেম উপাসনা’, তৌসিফের ‘ভালোবাসা সেই জানে না’ গানগুলোও খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ধ্রুব মিউজিক স্টেশনে প্রকাশিত কণ্ঠশিল্পী চিত্রার ‘তোর কারণে’, সালমা ও তানজীব সারোয়ারের দ্বৈত গান ‘পোড়ামন’, ইমন খানের নতুন গান ‘ভুল মানুষের ঘর’ আলোচনায় রয়েছে। পাশাপাশি ঈদের আগে প্রকাশিত ধ্রুব গুহের নতুন গান ‘তোমার ইচ্ছে হলে’ও চলছে বেশ। সাউন্ডটেকের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত টুম্পার গাওয়া ‘দুঃখ বন্ধু’ গানটি নিয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করা যায়।

এবারের ঈদে সবচেয়ে বেশি লক্ষ্য করা গেছে আসিফ আকবরের মিউজিক ভিডিও। এর মধ্যে আঁখি আলমগীরের সঙ্গে দ্বৈত গান ‘ওরে পাখি’, একক গান ‘ও কন্যা তোমাকে’, কর্ণিয়ার সঙ্গে দ্বৈত গান ‘মেঘ বলেছে’ গানগুলো শ্রোতা-দর্শকরা শুনছেন ও দেখছেন বলে জানা গেছে।

গানচিলের ব্যানারে ঈদ উপলক্ষে প্রকাশিত প্রতীক ও প্রীতম হাসানের মিউজিক ভিডিও ‘গালফ্রেন্ডের বিয়ে’ আলোচনায় রয়েছে। পাশাপাশি ‘আমার এ মন’ শিরোনামে ইমরানের মিউজিক ভিডিওটি নিয়েও দর্শকদের আগ্রহ রয়েছে।

আরমান আলিফের ‘অপরাধী’র পর ‘নেশা’ শিরোনামে একটি গানের ভিডিও প্রকাশ হয়েছে জি সিরিজের অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে। প্রায় ৩০ লাখ ভিউয়ার্স পার হওয়া এ গানটি ‘অপরাধী’র চেয়ে অনেক পিছিয়ে আছে।

এবারের ঈদে ব্যান্ডগুলোর কোনো নতুন গান প্রকাশিত না হলেও প্রায় প্রতিটি টেলিভিশনে ব্যান্ডদলগুলো সঙ্গীতানুষ্ঠান দেখা গেছে। যেখানে ব্যান্ডশিল্পীগুলো তাদের আগের গানগুলো পরিবেশন করে দর্শকদের আনন্দ দিয়েছে। ফিডব্যাক, মাইলস, এলআরবি, সোলস, রেঁনেসাসহ বামবার প্রায় সব ব্যান্ডদলকে টেলিভিশনে গান পরিবেশন করতে দেখা গেছে।

ঈদ উপলক্ষে প্রকাশিত জনপ্রিয় শিল্পীদের গানগুলো তাদের আগের গানের দর্শক-শ্রোতা সংখ্যা অতিক্রম করতে পারেনি। তবুও চলমান সময়ে আগের ধারা অব্যাহত না রাখতে পারলেও শ্রোতাপ্রিয়তা পেতে ছুটছে ঈদে প্রকাশিত গানগুলো।

গানগুলো মুখে মুখে মুখরিত হয়নি বলে অনেকের মিশ্র সমালোচনা রয়েছে। সব মিলিয়ে এটা বলা যায়, যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সঙ্গীতশিল্পীরা চললেও দর্শকদের তেমন আশানুরূপ আনন্দ দিতে পারেননি। তার একটি কারণ হল, গান এখন আর ইউটিউব ছাড়া দেখা বা শোনা যায় না। যে কারণে অনেক গানপ্রেমী রয়ে গেছেন তাদের প্রিয় শিল্পীদের গান থেকে অনেক দূরে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter