অচেনা আলিসে কুপোকাত রংপুর

  স্পোর্টস রিপোর্টার ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আলিস আল ইসলামের বোলিংয়ের একটি মুহূর্ত
আলিস আল ইসলামের বোলিংয়ের একটি মুহূর্ত

বিপিএলের গত আসরের ফাইনালে ক্রিস গেইলের তাণ্ডবে ঢাকা ডায়নামাইটসকে উড়িয়ে দিয়েছিল রংপুর রাইডার্র্স। এবার দু’দলের প্রথম সাক্ষাৎ ছড়ালো দারুণ রোমাঞ্চ।

শুক্রবার মিরপুরে টানটান উত্তেজনার ম্যাচে মাশরাফি মুর্তজার রংপুরকে (১৮১/৯) দুই রানে হারিয়েছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা (১৮৩/৯)। ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছিলেন ঢাকার কিয়েরন পোলার্ড ও রংপুরের রাইলি রুশো।

কিন্তু পেন্ডুলামের মতো দুলতে থাকা ম্যাচে দুই বিদেশিকে ছাপিয়ে শেষ পর্যন্ত ব্যবধান গড়ে দিয়েছেন বাংলাদেশের এক অচেনা তরুণ। দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিকে ঢাকার জয়ের নায়ক কালই বিপিএলে অভিষেক হওয়া আলিস আল ইসলাম।

২২ বছর বয়সী এই অফ-স্পিনার ১৬তম ওভারে রুশো-ঝড় থামানোর পর ১৮তম ওভারে অনবদ্য হ্যাটট্রিকে রংপুরের মুঠো থেকে ছিনিয়ে আনেন জয়। ২৬ রানে চার উইকেট নিয়ে আলিসই হয়েছেন ম্যাচসেরা।

ঘরোয়া ক্রিকেটেও অচেনা এ তরুণ গড়ে ফেলেছেন একটি বিশ্বরেকর্ড। স্বীকৃত টি ২০ ক্রিকেটে অভিষেকে হ্যাটট্রিকের নজির নেই আর কারও। আলিসের দারুণ বোলিংয়ে তিন ম্যাচে টানা তৃতীয় জয় পেল ঢাকা। অন্যদিকে চার ম্যাচে রংপুরের এটি দ্বিতীয় হার।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ঢাকা শুরু ও শেষের ধাক্কা সামলে নয় উইকেটে গড়েছিল ১৮৩ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর। আগের দুই ম্যাচেই ফিফটি হাঁকানো তরুণ আফগান ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই কাল আউট মাত্র এক রান করে। আরেক ওপেনার সুনীল নারাইনও ব্যর্থ। ৩৩ রানে তিন উইকেট হারানো ঢাকাকে কক্ষপথে ফেরান অধিনায়ক সাকিব।

একপ্রান্ত আগলে রেখে ৩৭ বলে করেন ৩৬ রান। অন্যপ্রান্তে ঝড় তোলেন দুই ক্যারিবীয় পোলার্ড ও আন্দ্রে রাসেল। পাঁচ চার ও চার ছক্কায় ২৬ বলে পোলার্ড করেন ৬২ রান। আর রাসেল ১৩ বলে করেন ২৩। শেষ ওভারে তিন উইকেট না হারালে স্কোরটা আরও বড় হতো। রংপুরের পক্ষে শফিউল ইসলাম তিনটি এবং বেনি হাওয়েল ও সোহাগ গাজী নেন দুটি করে উইকেট।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় রংপুরের শুরুটাও ভালো হয়নি। মূল ভরসা ক্রিস গেইল নয় বলে আট রান করেই ধরেন সাজঘরের পথ। আরেক ওপেনার মেহেদী মারুফ বিদায় নেন দলীয় ২৫ রানে। এরপর নিজেদের সেরা জুটিটা পায় রংপুর। মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে তৃতীয় উইকেটে মাত্র ১২ ওভারে ১২১ রানের বিস্ফোরক জুটি গড়েন রুশো।

আট চার ও চার ছক্কায় ৪৪ বলে ৮৩ রান করা রুশোকে ফিরিয়ে ঢাকাকে ম্যাচে ফেরান আলিস। তখনও জয় দেখছিল রংপুর। শেষ তিন ওভারে দরকার ছিল ২৬ রান, হাতে ছয় উইকেট।

কিন্তু ১৮তম ওভারে পাশার দান উল্টে দিলেন একসময়ের নেট বোলার আলিস। ওই ওভারের শেষ তিন বলে তিনি একে একে ফেরান মিঠুন, মাশরাফি ও ফরহাদ রেজাকে। বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে এটাই প্রথম হ্যাটট্রিক। ৩৫ বলে ৪৯ রান করা মিঠুন বিদায় নেয়ার পর রংপুরের সমীকরণটা কঠিন হতে থাকে।

১৯তম ওভারে সোহাগ গাজী ও বেন হাওয়েলকে ফেরান নারাইন। শেষ ওভারে দরকার ছিল ১৪ রান। টানা দুই বলে আলিসকে শফিউল ইসলাম বাউন্ডারি হাঁকালেও শেষ বলে চার রানের সমীকরণ আর মেলাতে পারেনি রংপুর।

ঘটনাপ্রবাহ : রংপুর রাইডার্স: বিপিএল ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×