নতুন কেনা গাড়িতে ঘুরতে গিয়ে প্রাণ গেল ৫ বন্ধুর

মুন্সীগঞ্জে স্বামী-স্ত্রীসহ সড়কে নিহত আরও ১৬ * কালিয়াকৈরে শোকের মাতম

  যুগান্তর ডেস্ক ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সড়ক দুর্ঘটনা
সড়ক দুর্ঘটনা। প্রতীকী ছবি

খুলনায় ট্রাকের সঙ্গে প্রাইভেট কারের সংঘর্ষে গোপালগঞ্জের ৫ বন্ধুসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২১ জন। এর মধ্যে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় কাভার্ড ভ্যান-মাইক্রোবাসের সঙ্গে স্বামী-স্ত্রীসহ ৩ জন, লালমনিরহাটে পৃথক দুর্ঘটনায় ৩ জন, দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে নসিমন উল্টে ব্যবসায়ী, বগুড়ার সান্তাহারে বাসের ধাক্কায় সাইকেল আরোহী, ভোলায় মোটরসাইকেল-বাস সংঘর্ষে একজন, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় মোটরসাইকেল চাপায় ও নওগাঁর মান্দায় অটোচার্জারের ধাক্কায় শিশু, গাজীপুরে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মুক্তিযোদ্ধা, খুলনায় পিকনিকের বাস উল্টে স্কুলছাত্রী, কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ব্যাটারিচালিত ভ্যান-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে গৃহবধূ, রংপুরে দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক ও ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ৩০ জনের বেশি। এদিকে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে তিন কলেজছাত্রের মৃত্যুতে পরিবারে চলছে শোকের মাতম। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

গোপালগঞ্জ : খুলনার রূপসা ব্রিজ এলাকায় রোববার রাতে ট্রাক ও প্রাইভেটকারের সংঘর্ষে নিহতদের মধ্যে রয়েছেন গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকসহ ছাত্রলীগ ও যুবলীগের ৫ নেতা। তারা সবাই বন্ধু। তাদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

জানা গেছে, রোববার বন্ধু সাদিকের সদ্য কেনা প্রাইভেট কারে খুলনায় ঘুরতে যান পাঁচ বন্ধু। রাত পৌনে ১২টার দিকে খুলনা থেকে গোপালগঞ্জের উদ্দেশে ফেরার পথে রূপসা ব্রিজের কাছে লবণচরা এলাকায় পৌঁছলে একটি সিমেন্ট বোঝাই ট্রাকের সঙ্গে প্রাইভেট কারটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন পাঁচ বন্ধু। নিহতরা হলেন গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল হাসান বাবু (২৬), সদর থানা যুবলীগের সহ-সভাপতি সাদিকুল আলম (৩২), জেলা ছাত্রলীগের উপ-ছাত্র ও উপবৃত্তিবিষয়ক সম্পাদক গাজী ওয়ালিদ মাহমুদ উৎস (২৫), জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক সাজু আহমেদ ও সদর উপজেলা ছাত্রলীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক অনিমুল ইসলাম গাজী (২৪)।

নিহতদের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলা শহরের সবুজবাগ, থানাপাড়া ও গেটপাড়া এলাকায়। শহরের থানাপাড়ায় গিয়ে দেখা যায়, নিহত গাজী ওয়ালিদ মাহমুদ উৎসবের পরিবারে চলছে এখন শোকের মাতম।

একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে পাগলপ্রায় গোটা পরিবার। স্বজনদের আহাজারি আর কান্নায় থানাপাড়া এলাকার পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে। উৎসব জেলা আওয়ামী লীগ নেতা গাজী মিজানুর রহমান হিটুর ছেলে ও প্রধানমন্ত্রীর অ্যাসাইনমেন্ট অফিসার গাজী হাফিজুর রহমান লিকুর বড় ভাইয়ের ছেলে। সোমবার বাদ জোহর স্থানীয় শেখ মনি স্টেডিয়ামে নিহত ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাদের জানাজা শেষে লাশ দাফন করা হয়।

গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) : মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় কাভার্ড ভ্যানের পেছনে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহতরা হলেন- চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার গ্রামীণ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল অফিসার সিদ্দিকুর রহমান (৭০), তার স্ত্রী জেসমিন সুলতানা (৫৫) ও তাদের চালক আবদুল্লাহ সরকার (৩৫)। তাদের বাড়ি চাঁদপুরের দক্ষিণ মতলব উপজেলার শিবপুরে। পুলিশ জানায়, কুমিল্লা থেকে ঢাকা যাচ্ছিল কাভার্ড ভ্যানটি। পথে ওই এলাকায় ঢাকাগামী মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কাভার্ড ভ্যানের পেছনে ধাক্কা দেয়।

লালমনিরহাট : লালমনিরহাটে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে দু’জন মোটরসাইকেল আরোহী ও অপরজন অজ্ঞাত পথচারী। নিহত দু’জন হলেন লালমনিরহাট পৌরসভার গোশালা বাজার এলাকার খোরশেদ আলম (৪০) ও আরিফ হোসেন (৪০)।

সোমবার বেলা ৩টায় পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা মেছেরঘাট এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় তারা নিহত হন। এর আগে সকালের দিকে কুড়িগ্রাম রংপুর মহাসড়কের লালমনিরহাট সদর উপজেলার মোস্তফি বাজার এলাকায় চলন্ত বাসের ধাক্কায় এক পথচারী নিহত হন। তার পরিচয় মেলেনি।

দিনাজপুর : দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলা নসিমন উল্টে নিহত গরু ব্যবসায়ীর নাম তফিকুল ইসলাম (৩৫)। সোমবার দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের চিরিরবন্দর উপজেলার ইছামতি কলেজ মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তফিকুল ইসলাম পার্বতীপুরের দুর্গাপুর গ্রামের মমতাজ আলীর ছেলে। তফিকুলের কাছে নগদ ১ লাখ ৪৮ হাজার ২১০ টাকা ছিল।

বগুড়া : বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে বাসের ধাক্কায় নিহত চালকল শ্রমিকের নাম জিয়াউল হক জিয়া (৩০)। সোমবার সকালে সান্তাহার-নওগাঁ বাইপাস সড়কের পালকি কমিউনিটি সেন্টারের সামনে রাজশাহীগামী একটি পিকনিক বাস তাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

ভোলা : ভোলা-চরফ্যাশন সড়কের রোববার রাতে মোটরসাইকেল ও যাত্রীবাহী বাসের সংঘর্ষে নিহত যুবকের নাম মো. সবুজ (২৩)। মোটরসাইকেল চালক মো. মাহাবুব আলমকে আশঙ্কাজনক অস্থায় শেবাচিম হাসপাতালে রেফার করা হয়। নিহত সবুজ ভোলা সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে।

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) : মঠবাড়িয়ায় মোটরসাইকেল চাপায় নিহত শিশুটির নাম আবদুল্লাহ (৪)। সোমবার দুপুরে উপজেলার মঠবাড়িয়া-বড়মাছুয়া সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শিশুটি উপজেলার পশ্চিম মিঠাখালী গ্রামের মাহিন্দ্রা চালক রাজা শরীফের ছেলে।

গাজীপুর ও পূবাইল : গাজীপুর সিটির ভোরা মধ্যপাড়া এলাকায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত হলেন মুক্তিযোদ্ধা মো. ইদ্রিস আলী (৮০)। সোমবার সকালে জয়দেবপুর-কলেরবাজার রোডে সিটির ভোরা মধ্যপাড়া এলাকায় দ্রুতগতির মোটরসাইকেল পেছন থেকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খুলনা : ডুমুরিয়া উপজেলায় পিকনিকের বাস উল্টে নিহত স্কুলছাত্রীর নাম মেঘলা (৮ম শ্রেণী)। সোমবার সকালে খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের চুকনগরের চাকুন্দিয়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মেঘলা যশোর জেলা সদরের শ্যামনগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সোমবার সকালে তিনটি বাসে বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদের উদ্দেশে রওনা হয়। পথে একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এতে আরও প্রায় ৩০ শিক্ষার্থী আহত হয়।

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) : কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ব্যাটারিচালিত ভ্যান ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত গৃহবধূর নাম রেহেনা খাতুন। রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের ধর্মদহ গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি একই গ্রামের ইউসুফ আলীর স্ত্রী।

রংপুর : রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের পীরগঞ্জ উপজেলার কলাবাড়ী এলাকায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত চালকের নাম রফিকুল ইসলাম। তার বাড়ি পীরগঞ্জ থানা এলাকায়। সোমবার রংপুর থেকে ঢাকাগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে বিপরীতমুখী আরেকটি ট্রাকের সংঘর্ষ হয়।

নওগাঁ : নওগাঁর মান্দায় ব্যাটারিচালিত অটোচার্জারের ধাক্কায় নিহত শিশুর নাম হুমায়রা খাতুন (৮)। উপজেলার গনেশপুর ইউনিয়নের উত্তর পারইল গ্রামের সৌদি প্রবাসী নজরুল ইসলামের মেয়ে। রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার শিশুটি মারা যায়।

কালিয়াকৈরে শোকের মাতম : ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের নিহত তিন কলেজছাত্রের পরিবারে শোকের মাতম চলছে। দক্ষিণ মৌচাক গ্রামে রোববার রাতে জানাজা শেষে লাশ দাফন করা হয়েছে।

নিহত তিন বন্ধু হল মাহফুজুর রহমান সাকিব, জাকিরুল ইসলাম জনি ও রাশেদুল ইসলাম রাজা। রোববার রাতে সাড়ে ৮টার দিকে লাশ পৌঁছলে গ্রামবাসী শেষবার দেখার জন্য ভিড় জমান। লাশ ধরে মা-বাবা, ভাই-বোনসহ আত্মীয়-স্বজন এবং কলেজের শিক্ষক-সহপাঠীরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ) : ফুলবাড়িয়া উপজেলার পাটির-হুরবাড়ি সড়কে কাঠভর্তি ট্রলির ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী ব্যবসায়ী জহর উদ্দিন নিহত হয়েছে। তিনি সোয়াইতপুর গ্রামের হাফেজ আলীর ছেলে। জহর সোয়াইতপুর বাজারে মুরগির খাদ্যের ব্যবসা করেন।

ঘাতক ট্রলির চালক ইয়াসিন আলী, হেলপার মনির ও সুমনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে জনতা। সোয়াইতপুর বাজার থেকে বিকালে কাঠভর্তি করে ট্রলিটি ময়মনসিংহের যাওয়ার পথে হুরবাড়ি ঈদগা মাঠ সংলগ্ন সড়কে মোটরসাইকেল আরোহী যুবলীগ নেতা জহর উদ্দিনকে ধাক্কা দেয়। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×