মিরাজের পর মোস্তাফিজের বিয়ে

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ২৩ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মিরাজের পর মোস্তাফিজের বিয়ে
মিরাজের পর মোস্তাফিজের বিয়ে

দুপুর ২টা ৩০। প্রাইভেটকার থেকে ঘিয়ে রঙের শেরওয়ানি পরা বর নামলেন। চোখেমুখে হাসির ঝিলিক। বরের নাম মোস্তাফিজুর রহমান। বিশ্ব কাঁপানো ‘ফিজ’ কাটার মাস্টার মোস্তাফিজের বিয়ে বলে কথা। পাঁচ লাখ এক টাকা দেনমোহরে বিয়ে সম্পন্ন হল বাঁহাতি পেসারের। আগের দিন খুলনায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরেছেন বন্ধু মেহেদী হাসান মিরাজ। একদিন পর বর সাজলেন মোস্তাফিজ। এদিকে আগামী ১৯ এপ্রিল মুমিনুল হকের বিয়ে। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের যেন বিয়ের মৌসুম।

কনের বাড়িতে সাজসাজ রব। আত্মীয়স্বজনের কমতি ছিল না। বাদ পড়েনি মোস্তাফিজের বাড়িও। ক্ষীর খেলেন মোস্তাফিজ। বরযাত্রী বহরের সঙ্গে বাবা আবুল কাসেম ও মা মাহমুদা খাতুনকে নিয়ে পৌঁছলেন কনে সুমাইয়া পারভিন শিমুর বাড়িতে।

বরকে সোজা নিয়ে যাওয়া হল বাড়ির দোতলায়। সেখানে একটি কক্ষে অপেক্ষমাণ সবাই। সময় তখন বিকেল ৩টা ছুঁই ছুঁই। মোস্তাফিজের মাথায় উঠল পাগড়ি। রেজিস্ট্রার দেবহাটার নোয়াপাড়ার কাজী আবুল বাসার অপেক্ষায়। অনুমতি নিয়ে কলেমা পড়ালেন ফিজ-শিমুকে। রেজিস্ট্রি কাগজপত্রে সই করালেন। সাক্ষী হলেন কাটার মাস্টারের বড় ভাই মাহফুজুর রহমান মিঠু। আর দুই পক্ষের উকিল রবিউল ইসলাম ও আজিজুর রহমান।

পাঁচ লাখ এক টাকার দেনমোহরে বাঁধা পড়লেন মোস্তাফিজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী সুমাইয়া পারভিন শিমু। পরিবারের লোকজন জানালেন, ‘ঘরোয়া পরিবেশে স্বজনদের সান্নিধ্যে সেরে ফেলা হয়েছে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা। মহা ধুমধামে বিয়ের অনুষ্ঠান হবে বিশ্বকাপের পর। জানানো হবে সবাইকে।’

নবপরিণীতা মোস্তাফিজের মামাতো বোন শিমু ২০১৮ সালে দেবহাটার সখিপুর খান বাহাদুর আহসানউল্লাহ কলেজ থেকে এ-প্লাস পেয়ে এইচএসসি পাস করেন। ২০১৬ সালে নলতা হাইস্কুল থেকে তিনি গোল্ডেন এ-প্লাস পেয়ে পাস করেন এসএসসি।

বরের বাড়ি কালিগঞ্জের তারালি ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রাম থেকে জনাচল্লিশেক বরযাত্রীর বহর এসেছিলেন মাইক্রো, প্রাইভেট আর মোটরসাইকেলে। গন্তব্যস্থল দেবহাটা উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের হাদিপুর এলাকার জগন্নাথপুর গ্রাম। সেখানেই তার শ্বশুরালয়। আনন্দঘন পরিবেশে সম্পন্ন হল বিয়ে। এরপর মধ্যাহ্ণভোজে আপ্যায়িত হলেন আমন্ত্রিতরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×