বাস থেকে ফেলে সিকৃবি ছাত্রকে পিষে মারল চালক

গাজীপুর ও লৌহজংয়ে আরও ৩ শিক্ষার্থী নিহত * বিভিন্ন স্থানে পাঁচজনের মৃত্যু

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সিকৃবি ছাত্র

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের মৌলভীবাজারের শেরপুরে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) শিক্ষার্থীকে বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে চাকায় পিষে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম ওয়াসিম আফনান।

তিনি সিকৃবির বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের চতুর্থবর্ষের ছাত্র। বাড়ি হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের রুদ্র গ্রামে। তার বাবার নাম মো. আবু জাহেদ মাহবুব ও মা ডা. মীনা পারভিন। শনিবার বিকাল ৫টার দিকে সিলেট-ময়মনসিংহ রোডের উদার পরিবহন নামের একটি বাসের হেল্পার ও চালক মিলে এ হত্যাকাণ্ড চালায় বলে জানান ওয়াসিমের সহপাঠীরা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও সিকৃবির শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ময়মনসিংহ থেকে সিলেটগামী উদার পরিবহনের বাসে (ঢাকা মেট্রো-ভ-১৪-১২৮০) সিকৃবির ১১ শিক্ষার্থী ওঠেছিলেন। তারা শেরপুর এসে প্রয়োজনীয় কাজের জন্য নেমে যাচ্ছিলেন। তখন ভাড়া নিয়ে বাসের চালক ও হেলপারের সঙ্গে তাদের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ভাড়া পরিশোধ করে তারা বাস থেকে নেমে আসছিলেন। ওয়াসিম আফনান ছিলেন সবার পেছনে। তিনি বাস থেকে নামার আগেই তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। এরপর চালক বাসের স্পিড বাড়িয়ে দেয়। বাসটি ওয়াসিমকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। সঙ্গে থাকা সহপাঠী ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে রাত পৌনে ৮টায় সিকৃবির ছাত্ররা ওসমানী হাসপাতালে ছুটে যান। এ সময় উত্তেজিত ছাত্ররা বাসচালক ও হেলপারের গ্রেফতার দাবিতে বিক্ষোভ করেন। শিক্ষার্থীরা সড়কে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করেন এবং শহরের কদমতলী বাস টার্মিনালে গিয়ে ভাংচুর চালান।

এদিকে গাজীপুরে বাসের চাপায় দুই কলেজছাত্র ও লৌহজংয়ে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়কে আরও পাঁচজনের প্রাণহানি হয়েছে। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

গাজীপুর : শনিবার দুপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সালনা এলাকায় বাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী দুই কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন তাদের আরেক বন্ধুসহ দু’জন। নিহতরা হলেন গাজীপুর মহানগরের মাস্টারবাড়ি এলাকার জুম্মান হোসেন নাছির (১৮) ও ভীমবাজার এলাকার রবিন (২২)। আহত হয়েছেন দক্ষিণ বাউপাড়া এলাকার আলামিন (১৮) ও অটোরিকশার যাত্রী আসোয়াত (১১)। হতাহত শিক্ষার্থীরা স্থানীয় লিঙ্কন স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র।

গাজীপুর সদর থানার এসআই শহিদুল ইসলাম জানান, মহানগরের ইটাহাটা এলাকার লিঙ্কন কলেজ থেকে মোটরসাইকেলে তিন বন্ধু বাড়ি যাওয়ার পথে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। দুপুর পৌনে ১টার দিকে দক্ষিণ সালনা এলাকায় একটি অটোরিকশার সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে তিন বন্ধু মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে মহাসড়কের ওপর পড়ে যান। এ সময় ময়মনসিংহগামী শৌখিন পরিবহনের একটি বাস তাদের চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন নাছির। রবিনকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পথে মারা যান। আহত অপর দু’জনকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

লৌহজং : ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে উল্টোপথে বেপরোয়া যাত্রীবাহী বাসের চাপায় এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। শনিবার দুপুর ২টার দিকে লৌহজং উপজেলার ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের পদ্মা সেতুর টোলপ্লাজার সামনে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্র জানায়, মাওয়া থেকে বনফুল পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি উল্টোপথে ঢাকা যাচ্ছিল। এ সময় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা আনোয়ার চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র মো. অন্তরকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায় বাসটি। এতে ঘটনাস্থলেই অন্তর নিহত হয়। লৌহজং থানার ওসি মো. মনির হোসেন জানান, নিহত অন্তর উপজেলার মেদিনী মণ্ডল গ্রামের মো. রাজা মিয়ার ছেলে। তার মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পরে ঘাতক বাসটি আটক করে পুলিশ। এদিকে স্কুল কমিটির পক্ষ থেকে নিহত ছাত্রের পরিবারকে দাফন-কাফনের জন্য বিশ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে।

জয়পুরহাট ও পাঁচবিবি : শনিবার বিকালে সীমান্তবর্তী পাঁচবিবি উপজেলার হরেন্দ্রা বাজার এলাকায় দ্রুতগামী দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে তবিবুর রহমান মণ্ডল (৫৬) ও মাহফুজ আখতার (২১) নামে ওই দুই মোটরসাইকেলের একজন চালক ও একজন আরোহী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় রাতুল প্রসাদ গোয়ালা নামে অপর মোটরসাইকেলের চালক গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল ও পরে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত তবিবুর পাঁচবিবি উপজেলার পানিয়াল গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিন মণ্ডলের ছেলে এবং মাহফুজ একই উপজেলার দানেজপুর এলাকার আইজুল ইসলামের ছেলে।

চট্টগ্রাম : মহানগরী ও সীতাকুণ্ডে পৃথক দুর্ঘটনায় দু’জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে শনিবার ভোরে নগরীর বন্দর থানার কাস্টম মোড় এলাকায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় ওসমান গনি (২৯) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। ওসমান গনি চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলার লক্ষ্মীপুর গাজীবাড়ির আবুল খায়েরের ছেলে। এর আগে শুক্রবার রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডের ফকিরহাট এলাকায় একটি রাইডার গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গেলে মো. সোহেল নামে এক যাত্রী নিহত হন।

শিবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জ-সোনামসজিদ মহাসড়কের একাডেমি মোড় এলাকায় ট্রাকচাপায় এক পথচারী নিহত হয়েছেন। তার নাম মনিরুল ইসলাম মিনু (৬৫)। তিনি শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্তি ইউনিয়নের ডুবলি ভাণ্ডারের সলি মণ্ডলের ছেলে। পরে ট্রাকটি একটি বৈদ্যুতিক খুঁটিতে ধাক্কা খেলে ট্রাকচালক আল-আমিন গুরুতর আহত হয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×