উপজেলা নির্বাচন: তৃতীয় ধাপে ভোট পড়েছে ৪১.৪১ শতাংশ

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

উপজেলা নির্বাচন ২০১৯
উপজেলা নির্বাচন। ছবি: যুগান্তর

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ভোটার উপস্থিতি তেমন বাড়েনি। এ ধাপে সার্বিক ভোট পড়ার হার ৪১ দশমিক ৪১ শতাংশ। এর আগে দ্বিতীয় ধাপে ভোট পড়েছিল ৪১ দশমিক ২৫ শতাংশ ও প্রথম ধাপে ভোট পড়েছিল ৪৩ দশমিক ৩২ শতাংশ।

এ হিসাবে প্রথম ধাপের চেয়ে তৃতীয় ধাপে ভোট পড়ার হার কমেছে। অপরদিকে দ্বিতীয় ধাপের চেয়ে সামান্য বেশি ভোট পড়েছে। এদিকে তৃতীয় ধাপের নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের জয়জয়কার। এ ধাপে ১২২টি উপলোয় আওয়ামী লীগ ৮৩টিতে, একটিতে জাতীয় পার্টি ও ৩৮টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় সর্বনিু ১৯ দশমিক ২৬ শতাংশ ভোট পড়েছে। আর সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে ৭২ দশমিক ৯১ শতাংশ। ইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

যদিও রোববার ভোট পড়ার হার নিয়ে ইসির কোনো মাথাব্যথা নেই বলে মন্তব্য করেছিলেন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। তিনি বলেন, পার্সেন্টেজ ইজ নট ম্যাটার। ভোটের হার কত হল এটা নিয়ে কমিশনের মাথাব্যথা নেই। বিষয়টি হল শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচনটি অনুষ্ঠিত হয়েছে কিনা। ইসির তথ্য মতে, তৃতীয় ধাপে মোট ভোটার ছিল ১ কোটি ৮২ লাখ ১ হাজার ৭৭০ জন। ভোট পড়েছে ৭৫ লাখ ৩৬ হাজার ৯২৬টি। এর বাতিল ভোটের সংখ্যা ১ লাখ ৬৫ হাজার ৮৩৩টি। বৈধ ভোট ৭৩ লাখ ৪৬ হাজার ৪৯৭টি। আরও জানা গেছে, এ ধাপে আওয়ামী লীগের ৮৩ জন উপজেলা চেয়ারম্যানের মধ্যে ৫২ জন ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়েছেন। বাকি ৩১ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। আর স্বতন্ত্র ৩১ জন ও জাতীয় পার্টির ১ জন ভোটের লড়াইয়ে জয় পেয়েছেন।

আরও জানা গেছে, তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে সবচেয়ে কম ভোট পড়েছে লক্ষ্মীপুর সদরে। এ উপজেলায় ১৯ দশমিক ২৬ শতাংশ। এ উপজেলায় মোট ভোটার ছিল ৫ লাখ ২ হাজার ৫৬টি। ভোট পড়েছে ৯৬ হাজার ৬৮৩টি। এ উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া ২০ দশমিক ২৭ শতাংশ ভোট পড়েছে কুষ্টিয়া সদর উপজেলা। এ উপজেলার ৩ লাখ ৭২ হাজার ৯৪২ জন ভোটারের মধ্যে পড়েছে ৭৫ হাজার ৫৯৯টি। এ উপজেলায়ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আবু তৈয়ব বাদশা জয় পেয়েছেন।

অপরদিকে সর্বোচ্চ ভোট পড়েছে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলা। এ উপজেলায় ভোট পড়েছে ৭২ দশমিক ৯১ শতাংশ। এ উপজেলায় মোট ভোটার ছিল ৭৫ হাজার ৪ জন। ভোট দিয়েছেন ৫৪ হাজার ৬৮৬ জন। সংশ্লিষ্টরা জানান, গোপালগঞ্জের পাঁচটি উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয় পেয়েছেন। এ জেলায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ছিল না।

ইসি সূত্র জানায়, তৃতীয় ধাপে ১২৭টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ হওয়ার কথা ছিল। তবে ৬টিতে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয় পাওয়ায় সেখানে ভোট হয়নি। এ ধাপে ১১৭টি উপজেলার ভোট হয়। একটি উপজেলার সবকটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত রয়েছে। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার ছয়টিসহ মোট ১২২টির ফল প্রকাশ করল।

ঘটনাপ্রবাহ : উপজেলা নির্বাচন ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×