প্রশ্নপত্র ফাঁসের দায় শিক্ষামন্ত্রীকেই নিতে হবে : মান্না

প্রকাশ : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, দেশের রাজনৈতিক অবস্থা চরম ধ্বংসাত্মক পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে। প্রধান দুই রাজনৈতিক দল বংশপরম্পরা রাজনীতি করে যাচ্ছে। জেলে যেতে হবে জেনেই রাজনৈতিক নেতৃত্বে উত্তরাধিকার প্রতিষ্ঠায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দলের নেতৃত্ব ঠিক করে গেছেন। অপরদিকে দেশে এখন একেবারেই বন্য আইন চলছে। শিক্ষা ক্ষেত্রে নৈরাজ্য চরমে উঠেছে। প্রশ্নপত্র ফাঁস হরহামেশাই হচ্ছে। এমন কেলেঙ্কারির দায় শিক্ষামন্ত্রীকেই নিতে হবে। মান্না বলেন, আড়াই কোটি টাকার দুর্নীতি কি হুলস্থূল ঘটিয়ে দিল আর শত শত কোটি টাকা লুটপাটের খবর নেই।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে নাগরিক ছাত্র ঐক্য আয়োজিত ‘প্রশ্নপত্র ফাঁস, শিক্ষা ও শিক্ষাঙ্গন’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। উত্তরাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি ডাকসুর নির্বাচন দেয়নি। এমন অভিযোগে মান্না বলেন, আওয়ামী লীগ বিএনপি চায় না ডাকসুর নির্বাচন হোক। বিএনপি-আওয়ামী লীগ নির্বাচন দেয়নি অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। অধিকার প্রতিষ্ঠা মানে বংশপরম্পরাই তারা দেশ চালাবে। দেখেন এত বড় ঘটনা, জেলেই তো যেতে হচ্ছে তারপরও দলের নেতৃত্ব ঠিক করে গেছেন। সেই নেতৃত্ব হচ্ছে উত্তরাধিকার। মান্না বলেন, দেশে সার্টিফিকেট বিক্রি হয়। সার্টিফিকেট বাণিজ্য চলে রীতিমতো। আর ওই কারণে দেখা যায় ডিগ্রিপ্রাপ্ত লোকজন ইন্টারভিউতে যখন আসেন তখন উত্তর দিতে পারেন না। প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে কারা জড়িত। দেশে দেখেন, আড়াই কোটি টাকার দুর্নীতি কি হুলস্থূল ঘটিয়ে দিল। লক্ষ কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে চলে গেল। কি হয়েছে?

সংগঠনের আহ্বায়ক নাজমুল হাসানের সভাপতিত্বে গোলটেবিল বৈঠকে বক্তব্য রাখেন কমরেড আবদুল মালেক রতন, ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।