ফাঁকা রাস্তায় প্রতিযোগিতা রাজধানীতে ঝরল ২ প্রাণ

স্কুলছাত্রী, পোশাক শ্রমিকসহ বিভিন্ন স্থানে নিহত আরও ১০

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফাঁকা রাস্তায় প্রতিযোগিতা রাজধানীতে ঝরল ২ প্রাণ
প্রতীকী ছবি

রাজধানীতে ফাঁকা রাস্তায় প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে বাস-প্রাইভেট কারসহ কয়েকটি গাড়ির সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন ২ জন।

এছাড়া দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় আরও ১০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এর মধ্যে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে পিকআপের ধাক্কায় স্কুলছাত্রী ও ধর্মপাশায় ট্রলির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চালক, গাজীপুরের কালিয়াকৈরে সিএনজিচালিত অটোরিকশার ধাক্কায় পোশাক শ্রমিক, খুলনায় ট্রাকের ধাক্কায় স্কুল কর্মচারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অটোরিকশার চাপায় শিশু, নাটোরের বড়াইগ্রামে বাসচাপায় ভ্যানযাত্রী, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় কাভার্ডভ্যানচাপায় পথচারী, গাইবান্ধায় অটোবাইকের ধাক্কায় যুবক, ময়মনসিংহের ফুলপুরে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় বৃদ্ধ ও জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে মিনি ট্রাকের চাপায় বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। ব্যুরো, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

রাজধানী : রাজধানীর মৎস্য ভবন এলাকায় মঙ্গলবার ভোরে ফাঁকা রাস্তায় প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে বাস-প্রাইভেট কারসহ ৬টি গাড়ির সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয়েছেন। তাদের একজন রিকশাচালক সুমন। অপরজনের নাম ওয়াহেদুল ইসলাম সেলিম (৪০)। তিনি বাসাবো বালুর মাঠ এলাকার ফুল ব্যবসায়ী ও ১৫৯ মধ্য সবুজবাগের বাসিন্দা।

সেলিমের ভগ্নিপতি ডা. মজিবুর রহমান ঢামেক হাসপাতাল মর্গে সেলিমের লাশ শনাক্ত করেন। সেলিম ফুল কিনতে রিকশায় শাহবাগ যাচ্ছিলেন। পুলিশ স্বাধীন পরিবহনের বাসের চালক নজরুল ইসলামকে আটক করেছে। আহত তিনজন হলেন- শরীফ, নুর আলম ও আয়াত। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে মৎস্য ভবনের মোড় থেকে ঘুরে গুলিস্তানের দিকে যাওয়ার সময় স্বাধীন পরিবহনের একটি বাস সামনে থাকা পরমাণু শক্তি কমিশনের আরেকটি বাসকে ধাক্কা দেয়। সেই বাসটি সামনে একটি রিকশাকে ধাক্কা দিলে আরোহী ও চালক গুরুতর আহত হন। তাদের মধ্যে একজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। আরেক জনকে হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান।

প্রত্যক্ষদর্শী আহমেদ শামীম বলেন, ভোরে রমনা পার্কের পাশের ফুটপাত ধরে হাঁটছিলাম। শাহবাগের দিক থেকে স্বাধীন পরিবহনের একটি বাস, সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও দুইটি প্রাইভেট কার প্রতিযোগিতা করে বেপরোয়া গতিতে যাচ্ছিল। হঠাৎ মৎস্য ভবন মোড়ে বিকট শব্দে তাকিয়ে দেখি স্বাধীন পরিবহনের বাসটি এবং দুটি প্রাইভেট কার ধুমড়েমুচড়ে গেছে। একটি প্রাইভেট কারের একপাশের দরজা এবং যাত্রী আসন রক্তে ভিজে গেছে। এছাড়া রাস্তার ওপরও কয়েক জায়গায় রক্তের ছোপ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

দ্রুত সেখানে পুলিশ উপস্থিত হয়। রমনা থানার পরিদর্শক তদন্ত জহিরুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বাধীন পরিবহনের চালক নজরুল ইসলাম জানিয়েছেন ব্রেক ফেল হয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শাহবাগ মোড় থেকে ঘোরার সময় বাসটির ব্রেক কাজ করছিল না। এরপর গতি কমিয়ে ফেলেন তিনি। কিন্তু মৎস্য ভবনের মোড় ঘুরতে গিয়ে বাসের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। বাসযাত্রী মনির হোসেন জানান, রক্তাক্ত অবস্থায় কয়েকজন সড়কে পড়ে ছিল।

তাহিরপুর ও ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) : তাহিরপুরে পিকআপের ধাক্কায় নিহত পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীর নাম শিউলী রানী রায় (১২)। সে বাদাঘাট উত্তর ইউনিয়নের গড়কাটি গ্রামের প্রদীপ চন্দ্র রায়ের মেয়ে ও গড়কাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার বাদাঘাট গড়কাটি সড়কে বালুবোঝাই পিকআপ তাকে ধাক্কা দিলে তার মৃত্যু হয়।

এছাড়া ধর্মপাশায় মালবাহী ট্রলি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চালক আকাশ মিয়ার (১৯) মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি সেলবরষ ইউনিয়নের ভাটাপাড়া গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে।

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) : সফিপুর-বড়ইবাড়ী সড়কের কালিয়াকৈর উপজেলার সুরিচালা এলাকায় মঙ্গলবার সিএনজির ধাক্কায় নিহত পোশাক শ্রমিকের নাম উজ্জ্বল হোসেন (২১)। তিনি উপজেলার বাঁশতলী এলাকার সাচ্চু সিকদারের ছেলে। ওই সড়ক দিয়ে উজ্জ্বল সকালে বাইসাইকেলে তার কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা তাকে ধাক্কা দিলে তার মৃত্যু হয়।

খুলনা : রূপসা উপজেলার শ্রীফলতলা ইউনিয়নে কয়লাবোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় নিহত স্কুল অফিস সহকারীর নাম আবদুর রহমান (৫৫)। মঙ্গলবার বিকালে তিনি ভ্যানে করে ভবানীপুর বাড়িতে যাচ্ছিলেন। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের সঙ্গে ভ্যানের সংঘর্ষ হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চাপায় নিহত শিশুটির নাম তানহা (৬)। সে সদর উপজেলার নাটাই গ্রামের শাহজাহান মিয়ার মেয়ে এবং ব্র্যাক পরিচালিত স্কুলে প্রথম শ্রেণীতে পড়াশোনা করত। মঙ্গলবার দুপুরে শিশুটি নিজ বাড়ির সামনে সহপাঠীদের সঙ্গে খেলছিল। এ সময় পাশের বাড়ির সাদেক মিয়া তার ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা নিয়ে বের হচ্ছিল। এ সময় তানহা চাপা পড়ে।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : নাটোরের বড়াইগ্রামে বাসচাপায় নিহত বৃদ্ধের নাম শ্রীপদ সরকার (৬০)। মঙ্গলবার সকালে নাটোর থেকে পাবনাগামী চ্যালেঞ্জার পরিবহন বনপাড়া এলাকায় একটি অটোভ্যানকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এ সময় বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভ্যানের চালকসহ তিন যাত্রী আহত হন। পরে তাদের নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে শ্রীপদ সরকার মারা যান। তিনি উপজেলার হারোয়া গ্রামের মৃত ধীরেন সরকারের ছেলে।

উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) : ফুলজোড় কলেজের পাশে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় নিহত পথচারীর নাম রহিম মণ্ডল (২৭)। মঙ্গলবার রাস্তার পাশে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন তিনি। এ অবস্থায় কাভার্ডভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাকে চাপা দেয়। রহিম সিরাজগঞ্জের সলংগা থানার আলোকদিয়ার গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে। এ দুর্ঘটনায় আহত হন আরও ৫ জন।

গাইবান্ধা : গাইবান্ধা সদর উপজেলার খোলাহাটি ইউনিয়নের পূর্বকোমরনই বাঁধের মাথা এলাকায় অটোবাইকের ধাক্কায় নিহত যুবকের নাম মকসুদ মিয়া (২৪)। তিনি ওই ইউনিয়নের পূর্বকোমরনই মিয়াপাড়া গ্রামের জহুরুল হকের ছেলে। সোমবার দুপুরে বাড়ি থেকে বাইসাইকেল চালিয়ে আসার সময় ওই এলাকায় পৌঁছলে একটি অটোবাইক তাকে ধাক্কা দেয়। মঙ্গলবার রমেক হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) : ফুলপুর উপজেলার পয়ারী ইউনিয়নের কালীবাড়িকে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় নিহত হন বৃদ্ধ সাইজুদ্দিন (৯৩)। তার বাড়ি গাজীপুর জেলার সালনা এলাকায়। তিনি আত্মীয়ের বাড়ি বেড়াতে এসে সোমবার রাস্তা পার হওয়ার সময় মোটরসাইকেলটি তাকে চাপা দেয়।

জয়পুরহাট : জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে এক নিকটাত্মীয়ের জানাজা ও দাফন শেষে বাড়ি ফেরার পথে মালবাহী মিনি ট্রাকের নিচে চাপা পড়েন বৃদ্ধ রেজাউল করিম (৭১)। মঙ্গলবার দুপুরে পাঁচবিবি পৌর এলাকার ‘লাঙ্গলহাটি’ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। রেজাউল করিম জয়পুরহাটের সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর-পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত কাদের আলী মণ্ডলের ছেলে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×