‘বনলতা এক্সপ্রেস’র উদ্বোধনে প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর চেষ্টা হচ্ছে

জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করুন * দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান

প্রকাশ : ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  রাজশাহী ব্যুরো ও বাসস

শ্রীলংকার মতো বাংলাদেশেও জঙ্গি ও সন্ত্রাসী হামলা চালানোর চেষ্টা চলছে মন্তব্য করে দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ঢাকা-রাজশাহী রুটে বিরতিহীন আন্তঃনগর ট্রেন ‘বনলতা এক্সপ্রেস’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশে নয়, বিশ্বব্যাপী একটা সমস্যা। মাত্র কয়েকদিন আগে শ্রীলংকায় যে ঘটনা ঘটল, সেখানেও আমরা বাংলাদেশের কয়েকজনকে হারিয়েছি।

সবচেয়ে দুর্ভাগ্য অনেক শিশু সেখানে মারা যায়। সেখানে শিশু জায়ানকে আমাদের হারাতে হয়েছে এ জঙ্গি সন্ত্রাসের কারণে। তিনি বলেন, বাংলাদেশেও এ ঘটনা ঘটানোর অনেক চেষ্টা চলছে। তবে আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করে যাচ্ছে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি দেশবাসীকে আহ্বান জানাব, এ ধরনের সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত থাকবে, কে কোথায় এই ধরনের সন্ত্রাসী-জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে লিপ্ত সেটা শুধু আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা না, দেশবাসীকেও সতর্ক থাকতে হবে, খুঁজে বের করতে হবে এবং সঙ্গে সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থাকে জানাতে হবে।

আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াতের ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ডের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রেলের নতুন নতুন বগি কিনেছি সেগুলো আগুন দিয়ে পুড়িয়েছে। বাস কিনেছি, সেগুলো পুড়িয়েছে। তাছাড়া প্রাইভেট গাড়ি, বাস, ট্রাক, লঞ্চ এমন কিছু নেই যা অগ্নিসন্ত্রাসের কবলে ধ্বংস হয়নি।

ইসলামকে শান্তির ধর্ম উল্লেখ করে শেখ হাসিনা মসজিদে মসজিদে জুমার খুতবায় জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করার আহ্বান জানান। এ ছাড়াও অভিভাবক, শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, সব ধর্মের শিক্ষা গুরুদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

বনলতা এক্সপ্রেস উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় নির্মিত ইন্সটিটিউট ও স্থাপনার উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান, রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমামসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বেলা ১১টা ১০ মিনিটে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজশাহী রেলস্টেশনে যুক্ত হয়ে বাঁশি বাজিয়ে এবং সবুজ পতাকা উড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী ট্রেনটির উদ্বোধন ঘোষণা করেন। ১১টা ৪০ মিনিটে ট্রেনটি রাজশাহী থেকে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনের দিকে যাত্রা করে। তবে বাণিজ্যিকভাবে আগামীকাল শনিবার থেকে চলাচল করবে বনলতা। যাত্রীরা বৃহস্পতিবার থেকেই আগাম টিকিট কিনতে পারছেন। গণভবনের পাশাপাশি বনলতার উদ্বোধন উপলক্ষে রাজশাহী রেলস্টেশন চত্বরে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন জেলার দলীয় সংসদ সদস্য ও ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন তার বক্তৃতায় বলেন, ঢাকা-রাজশাহী রুটে চলাচলকারী একটি আন্তঃনগর ট্রেন যেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ পর্যন্ত চলতে পারে সেই পরিকল্পনাও আমরা ইতিমধ্যে গ্রহণ করেছি। এ জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জে ট্রেন ধোয়া-মোছার জন্য ওয়াশপিট নির্মাণের ব্যবস্থা করছি। একটু সময় লাগবে। কিন্তু অচিরেই আমরা এটি করতে সক্ষম হব।

ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। রাজশাহীর অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু রাজশাহী-৫ আসনের এমপি ডা. মনসুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের এমপি ডা. সালিম উদ্দিন আহমেদ শিমুল, সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি আদিবা আনজুম মিতা, সাবেক এমপি আখতার জাহান, রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) নূর-উর-রহমান, পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খোন্দকার শহিদুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। ভিডিও কনফারেন্স পরিচালনা করেন রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আবদুল কাদের।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বনলতার ১২টি বগিতে আপ ও ডাউন লাইনে প্রতিদিন ২ হাজার যাত্রী ভ্রমণ করতে পারবেন। রেলপথ বিভাগ থেকেই এই ট্রেনে ভ্রমণকারীদের জন্য নিশ্চিত করা হবে খাবার। ট্রেনটি থেকে বছরে সরকারের আয় হবে ৩৭ কোটি টাকা। বনলতা দেশের একমাত্র ট্রেন যা পরিবেশের কোনো ক্ষতি করবে না বলে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার শহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন।

এদিকে ট্রেনটিতে সংযুক্ত রয়েছে উড়োজাহাজের মতো বায়োটয়লেট। এ কারণে মলমূত্র রেললাইনের ওপর পড়বে না। রয়েছে রিক্লেনার চেয়ার ও স্লাইডিং ডোর। আছে ওয়াই-ফাই সুবিধা। প্রতিটি বগিতে রয়েছে এলইডি ডিসপ্লে, যার মাধ্যমে স্টেশন ও ভ্রমণের তথ্য প্রদর্শন করা হবে। রয়েছে আলাদা অজুখানা ও নামাজের স্থান। এ ছাড়াও রয়েছে প্রতিবন্ধীদের জন্য নির্দিষ্ট আসন। ট্রেনে মোট আসন ৯২৮টি। বিরতিহীন চার্জ ধরে এই ট্রেনে ভ্রমণের জন্য অন্য আন্তঃনগর ট্রেনের তুলনায় যাত্রীদের ১০ শতাংশ বেশি ভাড়া গুনতে হবে। সাধারণ শোভন চেয়ারের ভাড়া পড়বে ৪২৫ টাকা। আর এসি চেয়ারের ভাড়া লাগবে ৮৭৫ টাকা। বনলতা রাজশাহী-ঢাকা ৩৪৩ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেবে চার ঘণ্টা ৪০ মিনিটে। অন্য ট্রেনের তুলনায় সময় বাঁচবে প্রায় দুই ঘণ্টা।

আগামীকাল শনিবার থেকে সপ্তাহের শুক্রবার বাদে বাকি ছয় দিন ট্রেনটি ঢাকা-রাজশাহী-ঢাকা রুটে চলাচল শুরু করবে। সকাল ৭টায় ট্রেনটি রাজশাহী থেকে ঢাকার কমলাপুরের উদ্দেশে যাত্রা করে পৌঁছাবে বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে। আর ঢাকা থেকে দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে যাত্রা করে রাজশাহী পৌঁছাবে সন্ধ্যা ৬টায়।

ফিরে গেলেন দুই আ’লীগ নেতা : বনলতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসন না পেয়ে রাজশাহীর দুই আওয়ামী লীগ নেতা ফিরে গেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা হলেন- রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ ও রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণও পেয়েছিলেন এই দুই নেতা। কিন্তু যথাসময়ে অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে বসার জায়গা না পেয়ে তারা ফিরে যেতে বাধ্য হন। এ ব্যাপারে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) খন্দকার শহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। তারাও আমাদের আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন।

মৎস্য ডিপ্লোমা ইন্সটিটিউট ও ভেটেরিনারি কলেজ উদ্বোধন : চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার আজগড়া এলাকায় প্রতিষ্ঠিত মৎস্য ডিপ্লোমা ইন্সটিটিউট ও সরকারি ভেটেরিনারি কলেজের উদ্বোধন করেন। এ সময় সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না, সিরাজগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল মমিন মণ্ডল প্রমুখ।

আমন্ত্রণ পাননি এমপি বাদশা : এদিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাননি রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা। এ নিয়ে জরুরি সভা করে ক্ষোভ ও নিন্দা জানানো হয়েছে। দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে সভায় মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামাণিক দেবু, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট এন্তাজুল হক বাবু, অ্যাডভোকেট ফেরদৌস জামিল টুটুল, আবদুর রাজ্জাক প্রমুখ নেতা বক্তব্য দেন। তারা বলেন, রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী বিরতিহীন ট্রেন চালুর জন্য সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা তিনবার সংসদে প্রস্তাব ও দাবি উত্থাপন করেন। ট্রেনটি চালুর জন্য রেলপথ মন্ত্রণালয়ে ডিও প্রদান করেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাকে আমন্ত্রণ না জানানো অসৌজন্যের চূড়ান্ত রূপ।

তিনজনকে প্রধানমন্ত্রীর ৬৭ লাখ টাকা অনুদান : দু’জন মুক্তিযোদ্ধাসহ তিনজনকে ৬৭ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদ ভবনে তাদের হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। এর মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা ও মুজিবনগর সরকারের কর্মচারী মো. ইয়াকুব হোসেন খানকে ২৫ লাখ টাকা এবং মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মোহাম্মদ ইমরানকে ১০ লাখ টাকার চেক অনুদান দেয়া হয়। এছাড়া ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা মতিয়ার রহমানের স্ত্রী শিরিনা রহমানকে দেয়া হয়েছে ৩২ লাখ টাকা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছেন।