বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতিতে উদ্বেগ যুক্তরাজ্যের

  যুগান্তর ডেস্ক ০৮ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশে মানবাধিকার পরিস্থিতি ও গণতান্ত্রিক পরিবেশের অবনতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত একাদশ সংসদ নির্বাচনে অনিয়মের বিশ্বাসযোগ্য অভিযোগ রয়েছে বলে উল্লেখ করেছে দেশটি।
ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশে মানবাধিকার পরিস্থিতি ও গণতান্ত্রিক পরিবেশের অবনতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত একাদশ সংসদ নির্বাচনে অনিয়মের বিশ্বাসযোগ্য অভিযোগ রয়েছে বলে উল্লেখ করেছে দেশটি।

একই সঙ্গে বিচারবহির্ভূত হত্যার পরিমাণ ও বাক-স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপের ঘটনা বেড়েছে বলেও তুলে ধরেছে তারা। যুক্তরাজ্য সরকারের ‘হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি রিপোর্ট ২০১৮’-এ বাংলাদেশ সম্পর্কে এসব তথ্য উঠে এসেছে। দেশটির বিদেশ ও কমনওয়েলথ কার্যালয় থেকে গত বৃহস্পতিবার প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়।

প্রতিবেদনে একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ, অংশগ্রহণমূলক ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হোক- যুক্তরাজ্য এটা প্রত্যাশা করেছিল। গণতান্ত্রিক ও উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে তা সহায়তা করবে।

বাংলাদেশের সব বিরোধী দলের এ নির্বাচনে অংশ নেয়াটা উৎসাহব্যঞ্জক ছিল। নির্বাচনের সময় গ্রেফতারসহ নানারকম বাধা তৈরি করা হয়েছিল। যার কারণে বিরোধী দলগুলোর নির্বাচনী প্রচারে বিঘ্ন সৃষ্টি হয়। নির্বাচনের দিন সরকারের বিরুদ্ধে নানারকম অনিয়মের আশ্রয় নেয়ার অভিযোগ আছে। যার ফলে অনেকেই ভোট দিতে পারেননি।

নির্বাচন সংশ্লিষ্ট অভিযোগগুলোর গ্রহণযোগ্য সমাধানের জন্য বাংলাদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, গত বছর বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড বেড়ে যায়। কমেছে মতপ্রকাশের স্বাধীনতা। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়েও নিজেদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছে যুক্তরাজ্য। বাংলাদেশের মানবাধিকার সংগঠন আইন ও সালিশ কেন্দ্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৮ সালে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে ৫৪ জন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে মিয়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় বাংলাদেশের প্রশংসা করা হয়েছে। বলা হয়েছে, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় শিবিরগুলোর অবস্থা উন্নত হয়েছে। যদিও আশ্রয় শিবিরে যৌন হয়রানি, মানবপাচার, অপরাধমূলক কাজসহ নারী-পুরুষের মৌলিক সেবাগুলো এখনও ঝুঁকির মুখে রয়েছে।

প্রতিবেদনে জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থা ও এনজিওর মাধ্যমে যুক্তরাজ্যের আরও ৭ কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড প্রতিশ্রুতির বিষয়টি উল্লেখ করা হয়। দেশটির প্রতিশ্রুত অনুদানের পরিমাণ ১২ কোটি ৯০ লাখ পাউন্ড বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×