সাকিব বন্দনায় ক্রিকেটবিশ্ব

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৬ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সাকিব বন্দনায় ক্রিকেটবিশ্ব

বিশ্বকাপ তুমি কার? ১৪ জুলাই লর্ডসের ব্যালকনিতে শিরোপা হাতে পোজ দেবেন কোন অধিনায়ক, তা সময়ই বলে দেবে। তবে আসরের উজ্জ্বলতম মুখের সন্ধানে ততদিন অপেক্ষা করার আর প্রয়োজন নেই। লিগপর্ব শেষ হওয়ার আগেই উপসংহারে পৌঁছে ক্রিকেটবোদ্ধারা এক সুরে বলছেন, ‘এই বিশ্বকাপটা সাকিব আল হাসানের।’ কিংবদন্তি সাকিবকে নিয়ে গোটা ক্রিকেটবিশ্বে এখন ধন্য ধন্য রব।

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের উদ্ভাসিত নৈপুণ্যে ক্রিকেটের সবচেয়ে অভিজাত মঞ্চে বাংলাদেশের নামটাও আপন আলোয় জ্বল জ্বল করছে। ব্যাটে-বলে সাকিবের মতো সব্যসাচী ক্রিকেটার বিশ্বকাপের ইতিহাসে আর দ্বিতীয়টি নেই। এক দশকের ধারাবাহিকতায় তর্কাতিতভাবেই সময়ের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব। একই সঙ্গে তিন সংস্করণেই র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকা ইতিহাসের একমাত্র অলরাউন্ডারও তিনি। তবু বিলেতি ক্রিকেটবোদ্ধারা তার শ্রেষ্ঠত্বের স্বীকৃতির প্রশ্নে বরাবরই ছিলেন কুণ্ঠিত। তাদের চোখে সাকিব ছিলেন ‘বাংলাদেশের সেরা।’

এই বিশ্বকাপে রেকর্ডরাঙা স্বপ্নযাত্রায় দেশের ক্রিকেটকে আরও উঁচুতে তুলে ধরার পাশাপাশি তাকে নিয়ে সব সংশয়ও মুছে দিয়েছেন সাকিব। তাকে বাংলাদেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে খেলাটির ইতিহাসের সেরাদের একজন মানতে আপত্তি ছিল যাদের, সেই ধারাভাষ্যকার, বিশ্লেষকরা এখন সাকিবের প্রশংসায় উপযুক্ত শব্দ খুঁজে পান না! আসরজুড়ে সাকিবের নিত্যনতুন কীর্তিতে তাদের বিশেষণের ভাণ্ডারে টান পড়ে গেছে।

দাপুটে পারফরম্যান্সে একের পর এক রেকর্ড লুটোপুটি খাচ্ছে সাকিবের পায়ে। ম্যাচ জিতিয়ে, ব্যবধান গড়ে দিয়ে নিজের শ্রেষ্ঠত্বের ছাপ রেখে যাচ্ছেন তিনি। আসরে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের তিনটি জয়েই ম্যাচসেরা সাকিব।

বিশ্বকাপের শুরু থেকেই মুগ্ধতা ছড়াচ্ছেন ব্যাটসম্যান সাকিব। সোমবার সাউদাম্পটনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের ৬২ রানের দাপুটে জয়ে বোলার সাকিব ছাপিয়ে গেছেন ব্যাটসম্যান সাকিবকে।

ব্যাট হাতে ফিফটির পর ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে ২৯ রানে পাঁচ উইকেট নিয়েছেন। সাকিবের আগে বিশ্বকাপে এক ম্যাচে ফিফটি ও পাঁচ উইকেটের একমাত্র কীর্তি ছিল ভারতের যুবরাজ সিংয়ের (২০১১ বিশ্বকাপে)। আরও কিছু গর্বের রেকর্ডে অনন্য সাকিব। বিশ্বকাপে সব মিলিয়ে অন্তত এক হাজার রান ও ৩০ উইকেটের ডাবল নেই আর কারও।

চলতি আসরে এরই মধ্যে দুই সেঞ্চুরি ও তিন ফিফটিতে ৪৭৬ রান করার পাশাপাশি ১০ উইকেট নিয়েছেন সাকিব। বিশ্বকাপের ইতিহাসে সাকিবই প্রথম ক্রিকেটার, যিনি এক আসরে অন্তত ৪০০ রানের পাশাপাশি ১০ উইকেট নিয়েছেন। শেষ দুই ম্যাচে ভারত ও পাকিস্তানকে হারিয়ে এবং বাকি সব সমীকরণ মিলিয়ে বাংলাদেশ সেমিফাইনালে যেতে পারলে নিশ্চিতভাবেই বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার উঠবে সাকিবের হাতে।

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ যদি সেমির সমীকরণ মেলাতে না পারে, তবুও ইতিহাসের পাতায় সোনার হরফে লেখা থাকবে সাকিবের নাম। বাংলাদেশ দলের ভারতীয় স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশি তো বলেই দিয়েছেন, ‘সাকিব একজন কিংবদন্তি। এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। বাংলাদেশ দলে তার মতো একজন খেলোয়াড় থাকা গর্বের ব্যাপার। সে হচ্ছে মিস্টার ধারাবাহিক। সেটা ব্যাটে হোক, বলে হোক কিংবা ফিল্ডিংয়ে।’

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান মাইক হাসির চোখে এখন পর্যন্ত সাকিবই বিশ্বসেরার সেরা খেলোয়াড়। ক্রিকইনফোর ম্যাচ বিশ্লেষণে সাকিবকে নিয়ে মুগ্ধতা ঝরেছে হাসির কণ্ঠে, ‘ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা অলরাউন্ডারদের তালিকায় চলে এসেছেন সাকিব আল হাসান। কেউ অস্বীকার করতে পারবে না যে, এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের সেরা ক্রিকেটার সাকিব। এই বিশ্বকাপ সাকিবের।’

হাসির দেশের মিডিয়ায়ও সাকিব-বন্দনা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ রিপোর্টের শিরোনাম করেছে, ‘সাকিবের আলোয় ঝলসে গেল আফগানিস্তান। সাকিবের সঙ্গে ২০১১ বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় যুবরাজ সিংয়ের তুলনা করেছেন ভারতের সাবেক পেসার জহির খান, ‘একটি দলকে টেনে তোলার আদর্শ উদাহরণ হতে পারে সাকিব। সে ঠিক যুবরাজ সিংয়ের মতো টুর্নামেন্ট পার করছে। ২০১১ বিশ্বকাপে প্রতি ম্যাচেই ব্যাটে-বলে অবদান ছিল যুবরাজের। এই বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে ঠিক সেই কাজটাই করছে সাকিব। প্রতি ম্যাচেই যেন নিজেকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে সে।’

এদিকে ভিভিএস লক্ষ্মণ তার টুইটারে লিখেছেন, ‘সাকিব যেভাবে কাজ করেন, সেটা আমি ভালোবাসি, এত পাওয়ার পরও বিনয়ী ও ভদ্র একজন ক্রিকেটার।’ লক্ষ্মণ তার টুইটে সাকিবকে ‘রোল মডেল’ আখ্যা দিয়েছেন। তার এই টুইট রিটুইট করে সহমত জ্ঞাপন করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদও শুভ কামনা জানিয়েছেন সাকিবকে।

আইপিএলে কলকাতা নাইটরাইডার্সের সতীর্থ মনোজ তিওয়ারি তাকে বাংলাদেশের পিলার উপাধি দেন। তিনি লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রতি সাকিবের অবদান অস্বাভাবিক ভালো।’ তিওয়ারি মজা করে লেখেন, ‘ভারত ছাড়া অন্য দলের বিপক্ষে বড় রেকর্ড গড়।’ ক্রিকেট বিশ্লেষক ও লেখক বোরিয়া মজুমদার তার টুইটারে লেখেন, ‘সাকিব আল হাসান এই টুর্নামেন্টের সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার।’ ডিএনএ ইন্ডিয়া লিখেছে, ‘সুপারম্যান সাকিব, অলরাউন্ডারের রেকর্ড-বন্যায় ভেসে গেল আফগানিস্তান।’

বাংলাদেশ শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে যাবে কি না, সেটা জানতে এখনও সময় লাগবে। কিন্তু এই বিশ্বকাপ যে সাকিবের, তা প্রতি ম্যাচে বুঝিয়ে দিচ্ছেন তিনি। পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব আখতার লিখেছেন, ‘কেউই সাকিবকে তারকা মনে করে না। কিন্তু সাকিব যে পর্যায়ে যাচ্ছে, সেই পর্যায়ে খুব কম ক্রিকেটার গেছে।’ আইপিএলের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদে সাকিবের কোচ টম মুডি বলেন, ‘চোখ এড়িয়ে যাচ্ছে; কিন্তু সাকিব ক্রিকেটবিশ্বকে বলে যাচ্ছে, সে খেলাটির সেরা অলরাউন্ডার। পরিসংখ্যান মিথ্যে বলে না।’

আইসিসির টুইটার ও ফেসবুক পেজেও সাকিবের সরব উপস্থিতি। বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচ শেষে আইসিসির পোস্ট ছিল এমন-

* বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সেরা বোলিং ফিগার

* বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান

* বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট

* ২০১৯ বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক- লেডিস অ্যান্ড জেন্টলম্যান, সাকিব আল হাসান।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×