প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যুবলীগ নেতাদের সাক্ষাৎ আজ: সংকট উত্তরণে চাওয়া হবে দিকনির্দেশনা

ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, কংগ্রেসে সভাপতি, ঢাকা মহানগরের কাউন্সিল ও বয়সসীমা নিয়ে আলোচনা হবে * গণভবনে যাচ্ছেন ৩০ জন, নেয়া হবে না ওমর ফারুক ও শাওনকে

  হাসিবুল হাসান ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সংকট

আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে সংগঠনের চলমান ‘সংকট’ উত্তরণে দিকনির্দেশনা চাইবেন যুবলীগ নেতারা। একই সঙ্গে সপ্তম জাতীয় কংগ্রেসসহ ভবিষ্যৎ করণীয় বিষয়েও তার পরামর্শ চাওয়া হবে। আজ বিকাল ৫টায় গণভবনে অনুষ্ঠেয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে যেসব বিষয়ে পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা চাওয়া হবে, সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান কে হবেন, জাতীয় কংগ্রেসে (সম্মেলন) কে সভাপতিত্ব করবেন, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কাউন্সিলের তারিখ নির্ধারণ এবং দক্ষিণের সভাপতি পদে ভারপ্রাপ্ত দেয়া হবে কিনা।

পাশাপাশি নতুন করে গঠিত যুবলীগের তদন্ত কমিটির কার্যপরিধির বিষয়েও সুনির্দিষ্টভাবে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চাওয়া হবে। এছাড়া যুবলীগের পক্ষ থেকে উত্থাপন করা না হলেও সংগঠনটির নেতাকর্মীদের বয়সসীমার বিষয়টি আলোচনায় স্থান পেতে পারে। যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির একাধিক নেতার সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে এসব তথ্য। সূত্র জানায়, চেয়ারম্যানসহ যুবলীগের প্রেসিডিয়ামে বর্তমানে ২৭ জন সদস্য রয়েছেন। এছাড়া সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে ৫ জন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং ৯ জন সাংগঠনিক সম্পাদক রয়েছে। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী এবং ২৬নং প্রেসিডিয়াম সদস্য নূরন্নবী চৌধুরী শাওনকে গণভবনে না নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা রয়েছে। এছাড়া কয়েকজন রয়েছেন নিষ্ক্রিয়। যারা সংগঠনের কোনো অনুষ্ঠানে আসেন না। ঢাকার বাইরে থাকার কারণেও দু-একজনের যাওয়া হবে না গণভবনে। ফলে সব মিলিয়ে প্রায় ৩০ জনের মতো কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেতা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ পাচ্ছেন।

জানতে চাইলে যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ শনিবার বিকালে যুগান্তরকে বলেন, আলোচনার প্রধান বিষয় জাতীয় কংগ্রেস। কংগ্রেস সফল করতে নেত্রীর দিকনির্দেশনা চাওয়া হবে। ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণের সম্মেলনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। কংগ্রেসে কে সভাপতিত্ব করবেন তা নিয়েও আলোচনা হবে। প্রেসিডিয়াম, যুগ্ম ও সাংগঠনিক সম্পাদকরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে থাকবেন জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা এই তালিকা জমা দিয়েছি। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী ও প্রেসিডিয়াম সদস্য নূরন্নবী চৌধুরী শাওন যাচ্ছেন না।

এদিকে যুবলীগের ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধারে সংগঠনটির সভাপতির দায়িত্ব নেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মীজানুর রহমান। যুবলীগের ১নং প্রেসিডিয়াম সদস্য মীজানুর রহমান বলেন, যদি তাকে যুবলীগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়া হয় তাহলে তিনি ভিসি পদ ছেড়ে দিয়ে সেই দায়িত্ব পালন করবেন। সম্প্রতি যমুনা টেলিভিশনের একটি টকশোতে তার এমন মন্তব্য ব্যাপক আলোচিত হচ্ছে। তবে তিনি আজ গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যাচ্ছেন না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শনিবার বিকালে তিনি যুগান্তরকে বলেন, আমি গণভবনে যাচ্ছি না। যখন থেকে ভিসি হয়েছি তখন থেকেই আর যুবলীগের কোনো প্রোগ্রামে যাই না। ভিসি পদ ছেড়ে যুবলীগের দায়িত্ব নেয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কথা প্রসঙ্গে সেটা বলেছিলাম, যুবলীগের হারানো গৌরব পুনরুদ্ধারে আমাকে যদি যুবলীগের দায়িত্ব দিতে চায় তাহলে আমি দুই পদে থাকব না। সেক্ষেত্রে ভিসির পদ ছেড়ে দিয়ে যুবলীগের দায়িত্ব নেব। অতীতেও আমাকে যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সেটা আমি পালন করেছি।

প্রসঙ্গত, ক্যাসিনোঝড়ের পর অনেকটা টালমাটাল অবস্থা যুবলীগে। এরপর থেকে অনেকটাই আড়ালে চলে গেছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী। যুবলীগের জাতীয় কংগ্রেস আসন্ন হলেও যাচ্ছেন না সাংগঠনিক ও ব্যক্তিগত কার্যালয়ে। এর মধ্যে তাকে ছাড়াই প্রেসিডিয়ামের মিটিং হয়েছে। সেই মিটিং থেকেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করা ও তার নির্দেশনা নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। সেই বৈঠকেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোন কোন বিষয় তুলে ধরা হবে সে বিষয়ে আলোচনা করে খসড়া তৈরি করা হয়। এরপর বুধবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন হারুনুর রশীদ। এ সময় প্রধানমন্ত্রী প্রথমে শুক্রবার দেখা করার সময় দিয়েছিলেন। কিন্তু ওইদিন শেখ রাসেলের জন্মদিন হওয়ায় যুবলীগ নেতাদের সাক্ষাতের দিন পরিবর্তন করে আজ বিকাল ৫টা করা হয়।

জানা গেছে, সাধারণত যুবলীগের চেয়ারম্যান কংগ্রেসের সভাপতিত্ব করেন। কিন্তু যেহেতু এখন যুবলীগের চেয়ারম্যানকে নিয়ে বিতর্ক উঠেছে। তিনি সংগঠনের সঙ্গে এখন আর সম্পৃক্ততা নেই। কাজেই যুবলীগের কাউকে ভারপ্রপাপ্ত চেয়ারম্যান করা হবে কিনা- সে ব্যাপারে প্রেসিডিয়াম বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ চাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া যুবলীগের কংগ্রেসের আনুষ্ঠানিকতা কোথায় হবে, কংগ্রেসে অতিথি কারা থাকবেন, সম্মেলন প্রস্তুতির কমিটিগুলো কিভাবে হবে- সে বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনা নেবেন যুবলীগ নেতারা। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে যুবলীগের ঢাকাসহ সারা দেশের সাংগঠনিক অবস্থার রিপোর্ট প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরা হবে। ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণের সম্মেলন ও দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাউকে করা যায় কিনা সে বিষয়েও প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ চাইবেন নেতারা।

সূত্র মতে, যুবলীগের যাদের বিরুদ্ধে টেন্ডার বাণিজ্য, ক্যাসিনো বাণিজ্যসহ বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিতে চায় যুবলীগের নেতারা। এ বিষয়ে ১১ নভেম্বরের প্রেসিডিয়াম বৈঠকে একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়। আজকের বৈঠকে এ কমিটির কার্যপরিধি নিয়েও বিস্তারিত দিকনির্দেশনা চাওয়া হবে প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

যুবলীগের সম্মেলনের আগেই এবার আলোচনায় এসেছে বয়সসীমা ৪৫ থেকে ৫০ বছর নির্ধারণ করার বিষয়টি। এই বয়সসীমার ওপর নির্ভর করবে আগামী কমিটিতে কারা নেতৃত্ব দেবেন। তবে আজকের বৈঠকে যুবলীগের পক্ষ থেকে বিষয়টি তোলা হবে না। কারণ যুবলীগের বর্তমান কমিটির পদপ্রত্যাশী প্রায় সব নেতার বয়স ৫০-এর ওপরে। তবে গত শুক্রবার আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যুবলীগ নেতাদের বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. ফারুক হোসেন যুগান্তরকে বলেন, আমরা এর আগে গত ১১ অক্টোবর প্রেসিডিয়াম বৈঠক করেছিলাম। সেই মিটিংয়ে আমাদের সিদ্ধান্ত ছিল- কংগ্রেসে কে সভাপতিত্ব করবেন এবং কংগ্রেস পর্যন্ত কার নেতৃত্বে দল পরিচালিত হবে। প্রেসিডিয়ামের মধ্যে কোনো একজন এ দায়িত্ব পালন করবেন কিনা- সেটা আমরা নির্ধারণ করতে পারি না। নির্ধারণ করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে আমরা একটা তদন্ত কমিটি করেছি। সেটার ব্যাপারেও কথা বলব।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×