লাঙ্গল নিয়ে মাঠে থাকবে জাতীয় পার্টিও

আপাতত একক নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্ভাব্য প্রার্থীদের মাঠে নামার নির্দেশ

  শেখ মামুনূর রশীদ ০৫ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জাতীয় পার্টি
জাতীয় পার্টি। ছবি: যুগান্তর

ঢাকার দুই সিটিতে ভোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি। আপাতত এককভাবে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে ভোটে নামার পরিকল্পনা করেছে দলটি। এ লক্ষ্য সামনে রেখে ইতিমধ্যে সম্ভাব্য মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীদের তৈরি হওয়র জন্য পার্টির হাইকমান্ড থেকে নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

তারা প্রস্তুতিও শুরু করেছে। জনসংযোগের পাশাপাশি শুভেচ্ছা বিনিময় শুরু করেছেন। জাতীয় পার্টির একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

ঢাকার দুই সিটিতে জানুয়ারিতে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। দুই সিটিতে একদিনেই ভোট হবে। এ মাসেই তফসিল ঘোষণা হবে। নির্বাচন কমিশনের এ ঘোষণার পর থেকেই ধীরে ধীরে জমতে শুরু করেছে নগর রাজনীতি। নগরপিতা হতে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নড়েচড়ে বসছেন।

বিশেষ করে বড় দুই দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির সম্ভাব্য মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীরা ভোটের লড়াইয়ে তাদের উপস্থিতির বিষয়টি জানান দিতে শুরু করেছেন। এ অবস্থায় পিছিয়ে থাকতে চায় না সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের হাতে গড়া দল জাতীয় পার্টিও।

দলীয় প্রতীকের এ নির্বাচনে অংশ নেবে জাতীয় পার্টি এমনটাই জানিয়েছেন দলটির বর্তমান চেয়ারম্যান ও জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি। সোমবার তিনি যুগান্তরকে বলেন, ‘ঢাকা মহানগরীর আজকের যে চিত্র মানুষ দেখছে তার মূল কারিগর ছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

তার হাত ধরেই আজকের ঢাকার এত উন্নয়ন। তিনি (এরশাদ) আজ নেই। তার স্বপ্নকে এগিয়ে নিতে জাতীয় পার্টি দুই সিটিতেই নির্বাচনে অংশ নেবে। তবে প্রার্থী কে হবেন- তা দলীয় ফোরামে বসে আমরা ঠিক করব।’

সর্বশেষ ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল তিন সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা উত্তর সিটিতে ২০১৫ সালের ১৪ মে, দক্ষিণ সিটিতে ওই বছরের ১৭ মে এবং চট্টগ্রাম সিটিতে ৬ আগস্ট প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এ হিসাবে ঢাকার উত্তর সিটিতে ১৩ মে, দক্ষিণ সিটিতে ১৬ মে এবং চট্টগ্রাম সিটিতে ৫ আগস্ট মেয়াদ শেষ হবে। স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ অনুযায়ী, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে ভোটগ্রহণ করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

গত নির্বাচনে দক্ষিণ সিটিতে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ভোটের মাঠে ছিলেন। কিন্তু দলটি উত্তরে কোনো প্রার্থী দেয়নি। এখানে তারা আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীকে সমর্থন দিয়েছিল। এবার আপাতত একক নির্বাচনের পরিকল্পনা করছে দলের হাইকমান্ড।

এর অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে দলের সম্ভাব্য মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীদের সবুজ সংকেত দেয়া হয়েছে। এখনই নাম প্রকাশ না করলেও গ্রহণযোগ্য এবং ক্লিন ইমেজের নেতারাই দুই সিটিতে প্রার্থী হবেন।

এ ধরনের প্রার্থী দেখা হচ্ছে কাউন্সিলর পদের জন্যও। শিগগিরই জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম এবং সংসদ সদস্যদের যৌথসভা অনুষ্ঠিত হবে। এ সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

জানতে চাইলে এ প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এসএম ফয়সল চিশতী সোমবার যুগান্তরকে বলেন, ‘জাতীয় পার্টি বরাবরই নির্বাচনমুখী রাজনৈতিক দল। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আমরা অংশ নেব।

ইতিমধ্যে দলের সম্ভাব্য মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীদের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘আপাতত আমাদের লক্ষ্য এককভাবে নির্বাচনে অংশ নেয়া। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে জোটগত নির্বাচনে অংশ নিলে তা দলীয় ফোরামে আলোচনার পরই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×