ইন্দোর টেস্ট : প্রথমদিনেই শেষের ইঙ্গিত

১৫০ রানে অলআউট বাংলাদেশ

  স্পোর্টস ডেস্ক ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইন্দোর টেস্ট: প্রথমদিনেই শেষের ইঙ্গিত

আবু জায়েদের বলে স্লিপে মায়াঙ্ক আগরওয়ালের ক্যাচটা যদি ইমরুল কায়েস ফেলে না দিতেন, তাহলে প্রথমদিনের শেষ বিকেলটা ঈষৎ স্বস্তির হতো।

ক্যাচ মিস খেলারই অংশ- এই আপ্তবাক্য মেনে নিয়েই বাংলাদেশ ইন্দোরে প্রথম টেস্টের প্রথমদিনটা শেষ করেছে। তারও আগে মুমিনুলরা নিজেদের ‘শেষ’ করেছেন মাত্র ১৫০ রানে গুটিয়ে গিয়ে।

একজন ব্যাটসম্যানের সংগ্রহও এর চেয়ে বেশি হয়। একজন ব্যাটসম্যান যে রান করতে পারেন, বাংলাদেশ দলের সবাই মিলে তা করেছেন। ভারত দিনটা শেষ করেছে এক উইকেটে ৮৬ রানে।

পূজারা ৪৩ ও আগরওয়াল ৩৭ রান নিয়ে আজ দ্বিতীয়দিন শুরু করবেন। একমাত্র আউট হওয়া ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা (৬)। ভারতের একমাত্র উইকেট নেয়া বোলার আবু জায়েদ।

ভারত ৬৪ রানে পিছিয়ে। হাতে তাদের প্রথম ইনিংসের ৯ উইকেট। প্রথমদিনেই সুস্পষ্ট- শেষটা কী হতে যাচ্ছে! তিনদিনে ইন্দোর টেস্ট শেষ হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

টস জিতে ইন্দোরের হলকার স্টেডিয়ামে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশ ১২ রানে দুই এবং ৩১ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বিবর্ণ সূচনা করে।

ইমরুল কায়েস (৬), সাদমান ইসলাম (৬) ও মোহাম্মদ মিঠুনের (১৩) বোধহয় ড্রেসিংরুমে ফেরার তাড়া ছিল। অধিনায়ক মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিমের ৬৮ রানের জুটিতে খানিকটা সুস্থির পেয়েছিল সফরকারীরা।

অশ্বিন সেই জুটি ভাঙেন ৮০ বলে ৩৭ রান করা মুমিনুলকে বোল্ড করে। মুশফিক ফিফটি স্পর্শ করতে পারেননি। সাত রান দূরে থাকতে মোহাম্মদ সামির শিকার হন ৪ ও ১৩ রানে রক্ষা পাওয়া মুশফিক।

শুরু থেকেই নড়বড়ে মাহমুদউল্লাহ ১০ রানের পুঁজি নিয়ে সাজঘরে ফেরেন। বাউন্ডারি দিয়ে ইনিংস শুরু করা লিটন দাস দায়িত্ব সারেন ২১ রান করে। বাংলাদেশ শেষ সাত উইকেট হারায় ৫১ রানে।

৫৯ ওভারের মধ্যে বাংলাদেশ অলআউট হয় ১৫০ রানে। গত দুই বছরে ভারত এ নিয়ে ১৯ বার প্রতিপক্ষকে অলআউট করল ২০০’র কম রানে।

পুরনো বলে রিভার্স সুইংয়ে পারদর্শী ভারতীয় পেসার মোহাম্মদ সামি নতুন বলেই মুনশিয়ানা দেখান। ১৩ ওভারে পাঁচ মেডেনসহ ২৭ রানে তার শিকার তিন উইকেট।

এর মধ্যে মুশফিক ও মেহেদী হাসান মিরাজকে পরপর দুই বলে ফিরিয়ে দিয়ে চা খেতে যান সামি।

ছয় উইকেট সমান ভাগ করে নেন তিন বোলার- ইশান্ত শর্মা (২/২০), উমেশ যাদব (২/৪৭) ও অশ্বিন (২/৪৩)। কোনো সন্দেহ নেই যে, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের শুরুটা হল একেবারে যাচ্ছেতাই।

১৯ বছর আগে ২০০০ সালের ১০ নভেম্বর ভারতের বিপক্ষেই নিজেদের অভিষেক টেস্ট খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ।

প্রথম ইনিংসে আমিনুল ইসলাম বুলবুলের শতকে (১৪৫) ৪০০ রান করেছিল বাংলাদেশ। ১৯ বছর পর সেই ভারতের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সবাই মিলে বুলবুলের চেয়ে মাত্র পাঁচ রান বেশি করলেন।

মুমিনুলের প্রথমে ব্যাট করার সাহসী সিদ্ধান্তের যথার্থতা প্রমাণ করতে পারেননি তার সহযোদ্ধারা। উইকেটে সবুজ ঘাসের আচ্ছাদন স্বাগতিকদের প্রলুব্ধ করে তিন সিমার নিয়ে একাদশ সাজাতে।

ইতিহাসের সেরা বোলিং ইউনিট এখন বিরাট কোহলির। তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসানের অভাব অনুভূত হয়েছে প্রবলভাবে।

আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলার প্রত্যয় ব্যক্ত করা মুমিনুল সোজা বল ছেড়ে দিয়ে বোল্ড হয়ে ভারতীয় অফ-স্পিনার অশ্বিনকে ঘরের মাঠে ২৫০তম উইকেট উপহার দেন ৪২ টেস্টে। (স্কোর কার্ড খেলার পাতায়)

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের ভারত সফর-২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×