ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কদের নিদাহাস ট্রফি আজ শুরু শ্রীলংকায়

  স্পোর্টস রিপোর্টার ০৬ মার্চ ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ক্রিকেট

র‌্যাংকিং ও ফর্মে যতই ফারাক থাকুক, এক জায়গায় দারুণ মিল বাংলাদেশ, শ্রীলংকা ও ভারতের। শ্রীলংকায় আজ শুরু হতে যাওয়া ত্রিদেশীয় টি ২০ সিরিজ নিদাহাস ট্রফিতে তিন দলই খেলবে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের নেতৃত্বে। পুরনো চোটের থাবায় আগেই দর্শক হয়ে যাওয়া সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতিতে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবেন মাহমুদউল্লাহ।

অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের চোটে স্বাগতিক শ্রীলংকার নেতৃত্ব বর্তেছে দিনেশ চান্দিমালের কাঁধে। ওদিকে বিরাট কোহলি বিশ্রামে থাকায় এ সিরিজে ভারত খেলবে রোহিত শর্মার নেতৃত্বে। অধিনায়কের মতো বাংলাদেশের কোচও ভারপ্রাপ্ত। সব মিলিয়ে এ যেন ভারপ্রাপ্তদের সিরিজ!

শ্রীলংকার স্বাধীনতার ৭০ বছর পূর্তি উপলক্ষে মূলত আমন্ত্রণমূলক এ সিরিজটি আয়োজন করা হয়েছে। নিদাহাস শব্দের অর্থ ‘স্বাধীনতা’। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে আজ উদ্বোধনী ম্যাচে ভারতের মুখোমুখি হবে শ্রীলংকা। একই ভেন্যুতে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে।

লীগ পর্বে তিন দলই পরস্পরের বিপক্ষে দুটি করে ম্যাচ খেলবে। সেরা দু’দল ১৮ মার্চ ফাইনালে খেলবে। কোহলি, ধোনিসহ মূল দলের ছয়জন ক্রিকেটারকে বিশ্রাম দিয়ে নিদাহাস ট্রফিতে কার্যত দ্বিতীয় সারির দল পাঠিয়েছে ভারত। তবু ভারতের গায়েই ফেভারিটের তকমা। মাত্রই দক্ষিণ আফ্রিকা জয় করে আসা দলটি রয়েছে টি ২০ র‌্যাংকিংয়ের তিন নম্বরে। আটে থাকা শ্রীলংকাও চন্ডিকা হাথুরুসিংহের ছোঁয়ায় দুর্ভাগ্যের পৃষ্ঠা উল্টে জেগে উঠেছে।

২০১৭ সালে সব মিলিয়ে ৫৭ ম্যাচের মাত্র ১৪টিতে জেতা লংকানরা নতুন বছরে তিন ফরম্যাটেই বাংলাদেশ থেকে সিরিজ জিতে ফিরেছে। আর বাংলাদেশ সেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকেই ব্যর্থতার চোরাবালিতে হাবুডুবু খাচ্ছে। বাংলাদেশের জন্য সিরিজটা আরও কঠিন হবে টি ২০ সংস্করণের কারণে। টি ২০ এখনও বাংলাদেশের জন্য গোলকধাঁধা হয়ে আছে। নইলে আফগানিস্তানেরও পেছনে র‌্যাংকিংয়ের ১০ নম্বরে পড়ে থাকতে হতো না।

কঠিন বাস্তবতাটা জানেন বলেই হয়তো নিদাহাস ট্রফিতে নিজেদের ‘আন্ডার ডগ’ ভাবতে কোনো আপত্তি নেই বাংলাদেশের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ কোর্টনি ওয়ালশের। তার লক্ষ্য আপাতত ফাইনালে ওঠা। তবে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ইতিবাচক মানসিকতা নিয়েই রণক্ষেত্রে নামতে চান, ‘লক্ষ্য অবশ্যই টুর্নামেন্ট জেতা। আমরা টি ২০তে কতটা ভালো করতে পারি, সেটা প্রমাণ করতে হবে।’ সেটা পারলেই ভালো!

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter