মুন্সীগঞ্জে বাস-মাইক্রোবাস সংঘর্ষ: নিহত ৯ বরযাত্রী, ৫ জন একই পরিবারের

বিভিন্ন স্থানে আরও ৭ জনের প্রাণহানি * ২০৬ দিনে সড়কে ১৫৯৮ জনের মৃত্যু

  যুগান্তর ডেস্ক ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০১:২২ | প্রিন্ট সংস্করণ

দুর্ঘটনায় দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া বাস ও মাইক্রোবাস
দুর্ঘটনায় দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া বাস ও মাইক্রোবাস। ছবি: যুগান্তর

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায় ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে বাস ও বরযাত্রীবাহী মাইক্রোর সংঘর্ষে ৯ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে উপজেলার ষোলঘর বাসস্ট্যান্ডে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে দু’জন শিশু, তিন নারী ও চারজন পুরুষ। এর মধ্যে ৫ জন একই পরিবারের। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। এর মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিন ঢাকার দোহার, হবিগঞ্জের মাধবপুর, পিরোজপুরের স্বরূপকাঠি, ভোলা, মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড ও নারায়ণগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় আরও ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে ২০৬ দিনে সড়কে ১৫৯৮ জনের প্রাণহানি হল। যুগান্তর রিপোর্ট ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

শ্রীনগর ও লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) : পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দুপুরে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক দিয়ে স্বাধীন পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস ঢাকা থেকে মাওয়া যাচ্ছিল। একই মহাসড়ক দিয়ে বরযাত্রীবাহী একটি মাইক্রো ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। পথে শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর এলাকায় পৌঁছলে বাস ও মাইক্রোর মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ৮ বরযাত্রী। গুরুতর আহত চারজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- বর রুবেলের বাবা আ. রশিদ বেপারি (৭০), বোন লিজা (২৪), লিজার মেয়ে (ভাগনি) তাবাসসুম (৬), রুবেলের ভাই সোহেলের স্ত্রী রুনা আক্তার (২২), সোহেলের ছেলে তাহসান (৫), রুবেলের ভাবি রুনার ছোট বোন রেণু (১২), মাইক্রোচালক বিল্লাল (২৮), যাত্রী কেরামত বেপারি (৭১) ও মফিজুল মোল্লা (৬০)।

ঘটনার পরপরই স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও শ্রীনগর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা মাইক্রোর ভেতরে আটকেপড়া হতাহতদের উদ্ধার করেন। আহতদের মধ্যে মাইক্রোর যাত্রী জাহাঙ্গীরের (৪৫) অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে আহত ১২ জন বাসযাত্রীকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্বাধীন পরিবহনের বাসটির সামনের চাকা ফেটে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাছাড়া বাসটি বেপরোয়া গতিতে চলছিল।

হাঁসাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আবদুল বাসেদ বলেন, মাওয়াগামী স্বাধীন পরিবহনের বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঢাকাগামী মাইক্রোবাসে প্রচণ্ড বেগে ধাক্কা দেয়। এতে মাইক্রোটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।

মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। নিহতদের পরিবারকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা ও আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম বলেন, লাশগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় শ্রীনগরের হাঁসাড়া হাইওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা হবে। দুর্ঘটনার কারণ খুঁজতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) আসমা শাহিনকে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উৎসবের বাড়িতে নিমিষেই শোকের ছায়া : দুপুরে যে বাড়ি বিয়ের উৎসব আর আনন্দে মেতে উঠেছিল, তা বিকেল গড়াতেই নিমিষে শোকের ছায়ায় ঢেকে গেছে। পরিবারের ৫ সদস্যকে হারিয়ে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন বর রুবেলের মা নিহারা বেগম। লোকজন দেখলেই তিনি তার মেয়ে লিজার (নিহত) খোঁজ নিচ্ছেন, তারা কেউ লিজাকে দেখেছে কিনা জানতে চাইছেন। এরপর আবার মূর্ছা যাচ্ছেন।

চেতনা ফিরে এলেই জিজ্ঞেস করছেন, ‘আমার দাদা ভাই তাহসান (নিহত) কই’। এদিকে খবর শুনে আত্মীয়স্বজনসহ এলাকার শত শত লোক ছুটে আসেন। সবার কান্না আহাজারিতে ভারি হয়ে ওঠে বিয়ে বাড়িটি। রুবেলের বন্ধু রাকিব মোড়ল বলেন, লৌহজংয়ের কনকসার গ্রাম থেকে বরযাত্রী যাওয়ার কথা ছিল ঢাকার কামরাঙ্গীরচরে। তাদের নিয়ে দুটি মাইক্রোবাস ছেড়ে যায় ঢাকার উদ্দেশে। বরের গাড়িটি ছিল সামনে। অপরটিতে ছিলেন রুবেলের বাবা, বোন, ভাই ভাগনি, ভাতিজা ও প্রতিবেশীসহ ১৫ জন যাত্রী। এ গাড়িটিকেই প্রচণ্ড বেগে ধাক্কা দেয় বেপরোয়া গতির বাসটি।

নবাবগঞ্জ : ঢাকার দোহারে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় জিহাদ হোসেন বিল্লাল (১৯) নামে এক পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন। নিহত জিহাদ উপজেলার নারিশা ইউনিয়নের পশ্চিম চর লঞ্চঘাট এলাকার জালাল হোসেনের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাতে টাঙ্গাইল থেকে ৩ মাসের পুলিশ প্রশিক্ষণ শেষে বাড়িতে আসেন জিহাদ। কিছুক্ষণ পর মোটরসাইকেল নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে দেখা করতে বের হন। পরে পশ্চিম চর আর্মি ক্যাম্পের ডিভাইডারের পাশে ড্রেজারের পাইপের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল উল্টে মারাত্মকভাবে আহত হন জিহাদ। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) : শুক্রবার সকালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের মাধবপুর উপজেলার বাখরনগর নামক স্থানে পিকআপভ্যানে বাসের ধাক্কায় খালেক মিয়া (৪২) নামে একজন নিহত ও ২ জন আহত হয়েছেন। আহতদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত খালেক কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর এলাকার তেলিয়াগান্দি গ্রামের চাঁদ আলীর ছেলে।

স্বরূপকাঠি (পিরোজপুর) : যাত্রীবাহী বাসচাপায় রিপন হাওলাদার নামে মোটরসাইকেল আরোহী এক স্কুলশিক্ষক নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে কামারকাঠির মোল্লাবাড়ী রোডে এ ঘটনা ঘটে। নিহত রিপন উপজেলার দক্ষিণ জলাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন।

ভোলা : শুক্রবার ভোরে কুঞ্জেরহাট-তজুমদ্দিন সড়কের মুচিবাড়ি মোড়ে ফায়ার সার্ভিসের পানিবাহী গাড়ি ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মো. জাকির হোসেন (৪০) নামের এক রাজমিস্ত্রি নিহত হয়েছেন। এ সময় শামিম নামের আরও একজন গুরুতর আহত হন। নিহত জাকির ভোলা সদর উপজেলার বাপ্তা ইউনিয়নের বাসিন্দা ও তজুমদ্দিনের মডেল মসজিদের রাজমিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতেন।

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) : শুক্রবার সকালে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে বাসচাপায় এক মোটরবাইকচালক নিহত হয়েছেন। নিহত মিলন শেখ (২২) উপজেলার চালতিপাড়া গ্রামের শাহআলম শেখের ছেলে। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছেন সিরাজদিখান উপজেলার কেয়াইন ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি মো. কবির হোসেন।

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) : বাসচাপায় মো. কালাম (৩৫) নামে এক ভ্যানচালক নিহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় সীতাকুণ্ড উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের এসকেএম জুট মিলস গেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তিনি আলী চৌধুরীপাড়া এলাকার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে।

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) : নারায়ণগঞ্জে রাস্তা পারাপারের সময় পিকআপের ধাক্কায় মো. গনি নেওয়াজ (৮০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। নিহত গনি গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার জাঙ্গালিয়া গ্রামের মৃত মো. আহসান উদ্দিনের ছেলে। তিনি কুমুুদিনী ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের (অব.) প্রধান হিসাবরক্ষক ছিলেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×