রাবির হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উন্মোচন
jugantor
রাবির হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উন্মোচন

  রাজশাহী ব্যুরো  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ বা মুজিববর্ষ উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আবদুল লতিফ হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি প্রতিকৃতি উন্মোচন করা হয়েছে। রাবি ভিসি প্রফেসর এম আবদুস সোবহান শনিবার প্রতিকৃতিটি উন্মোচন করেন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ বা মুজিববর্ষ উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আবদুল লতিফ হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি প্রতিকৃতি উন্মোচন করা হয়েছে। রাবি ভিসি প্রফেসর এম আবদুস সোবহান শনিবার প্রতিকৃতিটি উন্মোচন করেন।

একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধু পাঠাগার, হল মসজিদের সৌন্দর্য বর্ধন কাজসহ হলের এ উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন করেন ভিসি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের ছাত্র ও হলের আবসিক শিক্ষার্থী তাপস কুমার মণ্ডল বঙ্গবন্ধুর দৃষ্টিনন্দন প্রতিকৃতিটি তৈরি করেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিসি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, তোমাদের আলোকিত মানুষ হতে হবে।

আলোকিত তারাই যাদের দ্বারা অপকার ও অন্ধকার দূর হয়ে যায়। আলো যেমন সরল পথে যায়, তেমনি যারা উচ্চশিক্ষিত, জ্ঞানী, প্রজ্ঞাবান, বিচক্ষণ তারাই আলোর মতো সরল রেখায় চলে, সত্যকে মেনে নেয়। তিনি বলেন, তোমরা সত্যকে মেনে নাও, সত্যকে স্বীকার করতে শিখ।

বঙ্গবন্ধুর অস্তিত্ব অস্বীকার করা মানে দেশের অস্তিত্ব অস্বীকার করা। বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করা মানে নিজের অস্তিত্বের সঙ্গে প্রতারণা।

তরুণদের উদ্দেশ ভিসি আরও বলেন, তরুণরাই পারে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে। তাই বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে তরুণ শিক্ষকদের প্রাধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে যাতে তারা উদ্যমের সঙ্গে, দক্ষতা ও যোগ্যতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে পারে।

হলের আবাসিক শিক্ষক ও আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. ছালেকুজ্জামানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর প্রফেসর ড. লুৎফর রহমান, রহমতুন্নেছা হলের প্রাধ্যক্ষ প্রফেসর রুকসানা বেগম ও প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ।

সভাপতিত্ব করেন হলের প্রাধ্যক্ষ ড. একরাম হোসেন। উপস্থিত ছিলেন শহীদ হবিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ ড. জাহিদুল ইসলাম, সৈয়দ আমীর আলী হলের প্রাধ্যক্ষ ড. আমিনুল ইসলাম, হলের আবাসিক শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শিক্ষার্থীরা।

রাবির হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উন্মোচন

 রাজশাহী ব্যুরো 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ বা মুজিববর্ষ উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আবদুল লতিফ হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি প্রতিকৃতি উন্মোচন করা হয়েছে। রাবি ভিসি প্রফেসর এম আবদুস সোবহান শনিবার প্রতিকৃতিটি উন্মোচন করেন।
ছবি: যুগান্তর

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ বা মুজিববর্ষ উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আবদুল লতিফ হলে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি প্রতিকৃতি উন্মোচন করা হয়েছে। রাবি ভিসি প্রফেসর এম আবদুস সোবহান শনিবার প্রতিকৃতিটি উন্মোচন করেন।

একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধু পাঠাগার, হল মসজিদের সৌন্দর্য বর্ধন কাজসহ হলের এ উন্নয়নমূলক কাজের উদ্বোধন করেন ভিসি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের ছাত্র ও হলের আবসিক শিক্ষার্থী তাপস কুমার মণ্ডল বঙ্গবন্ধুর দৃষ্টিনন্দন প্রতিকৃতিটি তৈরি করেন। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিসি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, তোমাদের আলোকিত মানুষ হতে হবে।

আলোকিত তারাই যাদের দ্বারা অপকার ও অন্ধকার দূর হয়ে যায়। আলো যেমন সরল পথে যায়, তেমনি যারা উচ্চশিক্ষিত, জ্ঞানী, প্রজ্ঞাবান, বিচক্ষণ তারাই আলোর মতো সরল রেখায় চলে, সত্যকে মেনে নেয়। তিনি বলেন, তোমরা সত্যকে মেনে নাও, সত্যকে স্বীকার করতে শিখ।

বঙ্গবন্ধুর অস্তিত্ব অস্বীকার করা মানে দেশের অস্তিত্ব অস্বীকার করা। বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করা মানে নিজের অস্তিত্বের সঙ্গে প্রতারণা।

তরুণদের উদ্দেশ ভিসি আরও বলেন, তরুণরাই পারে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে। তাই বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে তরুণ শিক্ষকদের প্রাধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে যাতে তারা উদ্যমের সঙ্গে, দক্ষতা ও যোগ্যতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে পারে।

হলের আবাসিক শিক্ষক ও আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. ছালেকুজ্জামানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর প্রফেসর ড. লুৎফর রহমান, রহমতুন্নেছা হলের প্রাধ্যক্ষ প্রফেসর রুকসানা বেগম ও প্রধান প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ।

সভাপতিত্ব করেন হলের প্রাধ্যক্ষ ড. একরাম হোসেন। উপস্থিত ছিলেন শহীদ হবিবুর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ ড. জাহিদুল ইসলাম, সৈয়দ আমীর আলী হলের প্রাধ্যক্ষ ড. আমিনুল ইসলাম, হলের আবাসিক শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শিক্ষার্থীরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : মুজিববর্ষ