করোনায় নতুন বিপদ মস্তিষ্কেও ক্ষতি

  যুগান্তর ডেস্ক ০৯ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস নিয়ে এবার নতুন বিপদের কথা জানালেন বিজ্ঞানীরা। তারা বলছেন, করোনা আক্রান্তের ফলে মানুষের মস্তিষ্কে ব্যাপক প্রভাব ফেলে। এতে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা হারানোর পাশাপাশি স্ট্রোক, স্নায়ুর ক্ষতিসহ মারাত্মক জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। সম্প্রতি ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের (ইউসিএল) একদল গবেষক এমন তথ্য জানিয়েছে। আরেক গবেষণায় দেখা গেছে, সূর্যের তাপে করোনায় মৃত্যুঝুঁকি কমে। খবর বিবিসির। ইউসিএলের গবেষকরা ৪৩ জন করোনা রোগীর ওপর গবেষণা চালিয়েছেন। এর মধ্যে ৯ জনের ব্রেনে প্রদাহজনিত সমস্যা পাওয়া গেছে। তাদের চিকিৎসা দেয়া হলে একিউট ডিসামিনেটেড এনসেফেলোমেলাইটিস নামের নতুন রোগের উদ্ভব হয়। যেটা খুবই বিরল এবং শিশুদের ক্ষেত্রে দেখা যায়। ইউসিএলের গবেষণাটি ‘ব্রেন’ নামক একটি জার্নালে প্রকাশ করা হয়।

মাইকেল জানদি নামের গবেষক দলের একজন বলেন, আমরা যেভাবেই দেখি, এ মহামারী মানুষের মস্তিষ্কে বড় আকারের আঘাত হেনেছে। যেমনটা ১৯১৮ সালে স্প্যনিশ ইনফ্লুয়েঞ্জা এবং ১৯২০ ও ’৩০ সালে এনসেফালাইটিস ল্যাথারজিক আঘাত করেছিল।

তিনি বলেন, এছাড়া করোনাভাইরাসের কারণে স্নায়ুজনিত গুরুতর সমস্যা দেখা দিতে পারে। তার মধ্যে রয়েছে ব্যথা, মানসিক বৈকল্য ও মানসিক বিকারজনিত প্রলাপ।

কানাডার ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির নিউরোসায়েন্টিস্ট আদ্রিয়ান ওয়েন বলেন, আমার ভয় হল- কোটিরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এক বছরে যদি ১০ মিলিয়নের (এক কোটির) বেশি মানুষ করোনা থেকে পরিত্রাণ পান এবং যারা হিসাবের বাইরে রয়েছেন, এ ভাইরাস পরে তাদের দৈনন্দিন কাজে মারাত্মক প্রভাব ফেলবে।

সূর্যের তাপে করোনায় মৃত্যুঝুঁকি কমে : ইডেনবার্গ ইউনিভার্সিটির গবেষকরা দেখেছেন, সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি করোনাভাইরাসে মৃতের হার কমানোর ব্যাপারে প্রভাব ফেলে। তদের মতে, আবহাওয়ার তারতম্য, তাপমাত্রার ভিন্নতা ও অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাবে করোনাভাইরাস দুর্বল হয়ে যায়। গবেষণায় দেখা গেছে, সূর্যের আলো রক্তচাপ কমিয়ে দেয়। এছাড়া ভিটামিন ডি’র পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। সে কারণে অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাবে রক্তচাপ কমে যায়। এতে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিও কমে যায়।

গবেষকরা দেখেছেন, অতিবেগুনি-রশ্মি যুক্তরাষ্ট্রে ২৭ শতাংশ পর্যন্ত মৃত্যু ঝুঁকি কমিয়ে দিয়েছে। আর ইংল্যান্ডে কমিয়েছে ৪৯ শতাংশ।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত