দোহার-নবাবগঞ্জে শোকের ছায়া

  যুগান্তর রিপোর্ট, নবাবগঞ্জ ১৪ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামের মৃত্যুতে দোহার-নবাবগঞ্জে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। একজন অভিভাবককে হারিয়ে চোখের পানি ফেলছেন এই এলাকার সর্বস্তরের মানুষ। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে শোক প্রকাশ করেছেন।

১৯৪৬ সালে নবাবগঞ্জের চুড়াইন ইউনিয়নের কামারখোলা গ্রামের এক মধ্যবিত্ত সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন নুরুল ইসলাম। তার বাবার নাম আমজাদ হোসেন। মায়ের নাম জমিলা খাতুন। ২৫ বছর বয়সে তিনি দেশমাতৃকার টানে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত করেন। একজন সাহসী ও সফল উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলেন অসংখ্য শিল্পপ্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানে কর্মসংস্থান হয়েছে লক্ষাধিক মানুষের। অসুস্থ হয়ে তিনি বেশকিছু দিন ঢাকার এভারকেয়ার (সাবেক এ্যাপোলো) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই সোমবার বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটে তার মৃত্যু হয়। শিল্পপতি নুরুল ইসলাম সুখে-দুঃখে দোহার-নবাবগঞ্জের মানুষের পাশে ছিলেন। যে কোনো দুর্যোগে এলাকার মানুষকে শক্তি-সাহস দিয়ে অনুপ্রাণিত করেছেন। শুধু নিজ এলাকা নয় সারা দেশের মানুষের কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন তিনি।

এই কর্মবীরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন দোহার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, আওয়ামী লীগ জাতীয় কমিটির সদস্য আবদুল বাতেন মিয়া, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় নেতা মো. আবুল হোসেন, নবাবগঞ্জ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন, নবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলহাজ ইব্রাহীম খলিল, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম, দোহার প্রেস ক্লাবের সভাপতি কামরুল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান টিপু, প্রিয়বাংলা সম্পাদক অমিতাপ পাল অপু ও এ লতিফ চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান নুরে আলম জিতু। এ ছাড়া দোহার-নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি, উপজেলা শিক্ষক সমিতি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, দোহার ও নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রেস ক্লাব, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা জেলা কমিটি, ঢাকা জেলা ও নবাবগঞ্জ উপজেলা কৃষক লীগ, নবাবগঞ্জ উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগ, ঢাকা জেলা ও নবাবগঞ্জ উপজেলা মানবাধিকার কমিশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শোক জানানো হয়েছে। আরও শোক জানিয়েছেন মরহুমের জন্মস্থান চুড়াইন কামারখোলা গ্রামের ছোটবেলার সাথী, বন্ধুমহল, শুভাকাক্সক্ষী ও আত্মীয়স্বজন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত