দেশব্যাপী করোনা সংক্রমণ

একদিনে মৃত্যু ৪৮, শনাক্ত ২৬৬৮

  যুগান্তর রিপোর্ট ৩১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়লেও কমেছে শনাক্ত। ২৪ ঘণ্টায় এ ভাইরাসে আরও ৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ নিয়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৮৩। এর আগের দুইদিন ৩৫ জন করে মারা গেছেন। একদিনে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৬৯৫ জন।

পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৮৩ শতাংশ, যা গত কয়েক দিনের তুলনায় সর্বনিম্ন। চিহ্নিত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮৮৯।

এর আগের দিন ১৪ হাজার ১২৭টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছিল ৩ হাজার ৯ জন। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ছিল ২১ দশমিক ৩০ শতাংশ।

মঙ্গলবার শনাক্তের হার ছিল ২৩ দশমিক ২৮ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৬৬৮ জনসহ এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৩২ হাজার ৯৬০ জন সুস্থ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার কোভিড-১৯ সম্পর্কিত নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮২টি পরীক্ষাগারে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১২ হাজার ৬৬৭টি, পরীক্ষা হয়েছে ১২ হাজার ৯৩৭টি (আগের জমাগুলোসহ)। এখন পর্যন্ত ১১ লাখ ৬৪ হাজার ১৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৮৩ শতাংশ, এখন পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ২০ দশমিক ১৮ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৬ দশমিক ৬১ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

নাসিমা সুলতানা জানান, মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ৩৬ জন এবং নারী ১২ জন। এখন পর্যন্ত মোট পুরুষ মারা গেছেন ২ হাজার ৪২৪ জন, যা ৭৮ দশমিক ৬২ শতাংশ এবং নারী ৬৫৯ জন, যা ২১ দশমিক ৩৮ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ৪১ জন এবং বাড়িতে সাতজন মারা গেছেন। তাদের বয়স বিবেচনায় ৩১ থেকে ৪০ বছরের একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের চার জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ১৪ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের ১২ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের ১১ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের পাঁচজন এবং ৯১ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, এ পর্যন্ত যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে ১৮ জন, যা শূন্য দশমিক ৫৮ শতাংশ।

১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ৩০ জন, যা শূন্য দশমিক ৯৭ শতাংশ। ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ৮৫ জন, যা দুই দশমিক ৭৬ শতাংশ। ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২০২ জন, যা ছয় দশমিক ৫৫ শতাংশ।

৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৪৩৫ জন, যা ১৪ দশমিক ১১ শতাংশ। ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৮৯০ জন, যা ২৮ দশমিক ৮৭ শতাংশ। ষাটের অধিক এক হাজার ৪২৩ জন, যা ৪৬ দশমিক ১৬ শতাংশ।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগভিত্তিক মৃতের সংখ্যা ঢাকা বিভাগে ১৭ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১২ জন, খুলনা এবং সিলেট বিভাগে পাঁচজন করে, রাজশাহীতে তিনজন এবং বরিশাল, রংপুর ও ময়মনসিংহ বিভাগে দুই জন করে। এ পর্যন্ত বিভাগভিত্তিক মৃতের সংখ্যা এবং শতকরা হারে দেখা গেছে, ঢাকা বিভাগে ১৪৭৫ জন, যা ৪৭ দশমিক ৮৪ শতাংশ।

চট্টগ্রাম বিভাগে ৭৫১ জন, যা ২৪ দশমিক ৩৬ শতাংশ। রাজশাহীতে ১৮২ জন, যা পাঁচ দশমিক ৯০ শতাংশ। খুলনা বিভাগে ২১৯ জন, যা সাত দশমিক ১০ শতাংশ। বরিশালে ১০২ জন, যা তিন দশমিক ৯২ শতাংশ। সিলেটে ১৫১ জন, যা চার দশমিক ৯০ শতাংশ। রংপুর বিভাগে ১৭৭ জন, যা তিন দশমিক ৮০ শতাংশ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৬৭ জন, যা দুই দশমিক ১৭ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৬৩৫ জন, আর ছাড় পেয়েছেন ৭৩৬ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে গেছেন মোট ৪৯ হাজার ৯৫১ জন এবং ছাড় পেয়েছেন ৩১ হাজার ৩৮৩ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৫৬৮ জন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত