মিঠাপুকুরে নৈশপ্রহরীকে চুরির অপবাদে পিটিয়ে হত্যা
jugantor
৪ ঘণ্টা বেঁধে রেখে নির্যাতন
মিঠাপুকুরে নৈশপ্রহরীকে চুরির অপবাদে পিটিয়ে হত্যা

  রংপুর ব্যুরো  

১০ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মিঠাপুকুরে চুরির অপবাদে ৪ ঘণ্টা বেঁধে রেখে পিটিয়ে এক নৈশপ্রহরীকে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার শঠিবাড়ী বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ।

ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার রাতে রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার কারণে মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলী বিশ্বাসকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে ইয়াছিন আলী মিঠাপুকুর থানায় রোববার হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রমজান আলী, আমিনুল ইসলাম ও জামিরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, শঠিবাড়ী বাজারে ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলামের মুদির দোকানে শনিবার ভোররাতে চুরির ঘটনা ঘটে।

এ সময় স্থানীয়রা রমজান আলীকে ধরে ফেলে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে, তিনি নৈশ্যপ্রহরী তছলিম মিয়ার সম্পৃক্ততা স্বীকার করে। ক্ষিপ্ত হয়ে স্থানীয় ক্ষুব্ধ জনতা তাকে (তছলিম) ৪ ঘণ্টা বেঁধে রেখে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এতে তার অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তছলিম মিয়া মারা যান। তছলিম দুর্গাপুর ইউনিয়নের শীতলগাড়ী গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

মিঠাপুকুর থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাকির হোসেন বলেন, চুরি ও হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। হত্যা মামলায় দু’জন ও চুরির ঘটনায় একজনকে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

৪ ঘণ্টা বেঁধে রেখে নির্যাতন

মিঠাপুকুরে নৈশপ্রহরীকে চুরির অপবাদে পিটিয়ে হত্যা

 রংপুর ব্যুরো 
১০ আগস্ট ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মিঠাপুকুরে চুরির অপবাদে ৪ ঘণ্টা বেঁধে রেখে পিটিয়ে এক নৈশপ্রহরীকে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার শঠিবাড়ী বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ।

ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার রাতে রংপুর-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার কারণে মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলী বিশ্বাসকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে ইয়াছিন আলী মিঠাপুকুর থানায় রোববার হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রমজান আলী, আমিনুল ইসলাম ও জামিরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানায়, শঠিবাড়ী বাজারে ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলামের মুদির দোকানে শনিবার ভোররাতে চুরির ঘটনা ঘটে।

এ সময় স্থানীয়রা রমজান আলীকে ধরে ফেলে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে, তিনি নৈশ্যপ্রহরী তছলিম মিয়ার সম্পৃক্ততা স্বীকার করে। ক্ষিপ্ত হয়ে স্থানীয় ক্ষুব্ধ জনতা তাকে (তছলিম) ৪ ঘণ্টা বেঁধে রেখে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এতে তার অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তছলিম মিয়া মারা যান। তছলিম দুর্গাপুর ইউনিয়নের শীতলগাড়ী গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে।

মিঠাপুকুর থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাকির হোসেন বলেন, চুরি ও হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। হত্যা মামলায় দু’জন ও চুরির ঘটনায় একজনকে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।