করোনায় প্রাণ গেল আরও ৩৯ জনের
jugantor
করোনায় প্রাণ গেল আরও ৩৯ জনের

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৬ নভেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনাভাইরাসে দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর পর থেকে শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েই চলছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এ রোগে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ১৫৬ জন। এতে দেশে করোনাভাইরাসে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৫৪ হাজার ১৪৬ জনে দাঁড়িয়েছে। আর মোট মৃতের সংখ্যা হয়েছে ৬ হাজার ৪৮৭ জন।

বুধবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা সংক্রান্ত সমন্বিত নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই সময়ে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ২ হাজার ৩০২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। ফলে দেশে সুস্থ রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৬৯ হাজার ১৭৯ জন হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১১৭টি ল্যাবে ১৬ হাজার ১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ২৬ লাখ ৯৬ হাজার ১৫০টি নমুনা। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৪ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮১ দশমিক ২৯ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

সর্বশেষ যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ আর ১২ জন নারী। তাদের সবারই মৃত্যু হয়েছে হাসপাতালে। তাদের মধ্যে ২২ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, ১২ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে এবং ৫ জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে ছিল। মৃতদের মধ্যে ২৬ জন ঢাকা বিভাগের, ৫ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৩ জন রাজশাহী বিভাগের, ২ জন করে মোট ৪ জন খুলনা ও রংপুর বিভাগের এবং ১ জন সিলেট বিভাগের বাসিন্দা। দেশে এ পর্যন্ত মৃত ৬ হাজার ৪৮৭ জনের মধ্যে ৪ হাজার ৯৮২ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৫০৫ জন নারী।

তাদের মধ্যে ৩ হাজার ৪৩৪ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি। ১ হাজার ৬৯৫ জনের বয়স ৫১-৬০ বছর, ৭৯১ জনের ৪১-৫০, ৩৪০ জনের ৩১-৪০, ১৪৫ জনের ২১-৩০, ৫১ জনের ১১-২০ এবং ৩১ জনের ১০ বছরের কম।

মৃতদের মধ্যে ৩ হাজার ৪৪৮ জন ঢাকা বিভাগের, ১ হাজার ২৪৭ জন চট্টগ্রাম, ৩৯৭ জন রাজশাহী, ৪৯০ জন খুলনা, ২১৫ জন বরিশাল, ২৬৪ জন সিলেট, ২৯৪ জন রংপুর এবং ১৩২ জন ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

করোনায় প্রাণ গেল আরও ৩৯ জনের

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৬ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনাভাইরাসে দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর পর থেকে শনাক্ত ও মৃত্যু বেড়েই চলছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এ রোগে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ১৫৬ জন। এতে দেশে করোনাভাইরাসে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৫৪ হাজার ১৪৬ জনে দাঁড়িয়েছে। আর মোট মৃতের সংখ্যা হয়েছে ৬ হাজার ৪৮৭ জন।

বুধবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা সংক্রান্ত সমন্বিত নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এই সময়ে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ২ হাজার ৩০২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। ফলে দেশে সুস্থ রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৩ লাখ ৬৯ হাজার ১৭৯ জন হয়েছে।

২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১১৭টি ল্যাবে ১৬ হাজার ১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ২৬ লাখ ৯৬ হাজার ১৫০টি নমুনা। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৪ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮১ দশমিক ২৯ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৩ শতাংশ।

সর্বশেষ যাদের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে ২৭ জন পুরুষ আর ১২ জন নারী। তাদের সবারই মৃত্যু হয়েছে হাসপাতালে। তাদের মধ্যে ২২ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, ১২ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে এবং ৫ জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে ছিল। মৃতদের মধ্যে ২৬ জন ঢাকা বিভাগের, ৫ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৩ জন রাজশাহী বিভাগের, ২ জন করে মোট ৪ জন খুলনা ও রংপুর বিভাগের এবং ১ জন সিলেট বিভাগের বাসিন্দা। দেশে এ পর্যন্ত মৃত ৬ হাজার ৪৮৭ জনের মধ্যে ৪ হাজার ৯৮২ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৫০৫ জন নারী।

তাদের মধ্যে ৩ হাজার ৪৩৪ জনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি। ১ হাজার ৬৯৫ জনের বয়স ৫১-৬০ বছর, ৭৯১ জনের ৪১-৫০, ৩৪০ জনের ৩১-৪০, ১৪৫ জনের ২১-৩০, ৫১ জনের ১১-২০ এবং ৩১ জনের ১০ বছরের কম।

মৃতদের মধ্যে ৩ হাজার ৪৪৮ জন ঢাকা বিভাগের, ১ হাজার ২৪৭ জন চট্টগ্রাম, ৩৯৭ জন রাজশাহী, ৪৯০ জন খুলনা, ২১৫ জন বরিশাল, ২৬৪ জন সিলেট, ২৯৪ জন রংপুর এবং ১৩২ জন ময়মনসিংহ বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।