১০ মাস পর মুক্তি পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর
jugantor
১০ মাস পর মুক্তি পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

০৫ মার্চ ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে থাকা কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর প্রায় ১০ মাস পর মুক্তি পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কাশিমপুর কারাগার পার্ট-২ থেকে তিনি পুক্তি পান। কাশিমপুর কারাগার-২-এর জেল সুপার আব্দুল জলিল জানান, জামিনের কাগজ ১১টার দিকে কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছায়। যাচাই-বাছাই শেষে কিশোরকে মুক্তি দেওয়া হয়। এ সময় কারাফটকে উপস্থিত ছিলেন কিশোরের স্বজনরা। কিন্তু তারা মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেননি।

এর আগে জামিনের জন্য কিশোরের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ জামিন দেন।

মুশতাক আহমেদ ও কার্টুনিস্ট আহমেদ কিশোরকে গত বছর মে মাসে গ্রেফতার করে র‌্যাব। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক কথাবার্তা ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এ দুজনসহ মোট ১১ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়।

গ্রেফতার হওয়া লেখক মুশতাক আহমেদ ২৫ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে মারা যান।

বরিশালে সমাবেশ : বরিশার ব্যুরো জানায়, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বিক্ষুব্ধ ছাত্র জনতার ব্যানারে বরিশাল নগরীর অশ্বিনী কুমার হল সংলগ্ন সদর রোডে সমাবেশ হয়েছে।

ছাত্র ইউনিয়নের বরিশাল জেলা কমিটির সহসভাপতি কিশোর কুমার বালার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক দেওয়ান আব্দুর রসিদ নিলু, বরিশাল গণফোরামের সভাপতি হিরন কুমার দাস মিঠু, বরিশাল ট্রেড ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট একে আজাদ, বরিশাল জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য মোজাম্মেল হক ফিরোজ, মহানগর ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ মুন্না, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের নেত্রী অদিতি সপ্তশ্রী, ছাত্র ফেডারেশন নেতা হাসিব আহমেদ, সংবাদকর্মী মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দেশের স্বার্থে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করতে হবে। কারণ এই আইনের কারণে সাংবাদিক-লেখকরা স্বাধীন মতপ্রকাশ করতে পারছেন না। কিছুদিন আগে এই আইনে করা মামলায় কারাবন্দি হয়ে লেখক মুশতাক আহমেদ মারা গেছেন। দেশে ধর্ষণ-দুর্নীতির মামলায় জামিন হয়, অথচ মুশতাক আহমেদ বারবার জামিন আবেদন করেও জামিন পাননি।

ইসলামী যুব আন্দোলনের মানববন্ধন : ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন ও অপব্যবহার বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইসলামী যুব আন্দোলন। এদিন দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে ইসলামী যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ নেছার উদ্দিন, সেক্রেটারি জেনারেল আতিকুর রহমান মুজাহিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মনসুর আহমেদ সাকী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

১০ মাস পর মুক্তি পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
০৫ মার্চ ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে থাকা কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর প্রায় ১০ মাস পর মুক্তি পেয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কাশিমপুর কারাগার পার্ট-২ থেকে তিনি পুক্তি পান। কাশিমপুর কারাগার-২-এর জেল সুপার আব্দুল জলিল জানান, জামিনের কাগজ ১১টার দিকে কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছায়। যাচাই-বাছাই শেষে কিশোরকে মুক্তি দেওয়া হয়। এ সময় কারাফটকে উপস্থিত ছিলেন কিশোরের স্বজনরা। কিন্তু তারা মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেননি।

এর আগে জামিনের জন্য কিশোরের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ জামিন দেন।

মুশতাক আহমেদ ও কার্টুনিস্ট আহমেদ কিশোরকে গত বছর মে মাসে গ্রেফতার করে র‌্যাব। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক কথাবার্তা ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এ দুজনসহ মোট ১১ জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়।

গ্রেফতার হওয়া লেখক মুশতাক আহমেদ ২৫ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে মারা যান।

বরিশালে সমাবেশ : বরিশার ব্যুরো জানায়, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বিক্ষুব্ধ ছাত্র জনতার ব্যানারে বরিশাল নগরীর অশ্বিনী কুমার হল সংলগ্ন সদর রোডে সমাবেশ হয়েছে।

ছাত্র ইউনিয়নের বরিশাল জেলা কমিটির সহসভাপতি কিশোর কুমার বালার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা গণসংহতি আন্দোলনের আহ্বায়ক দেওয়ান আব্দুর রসিদ নিলু, বরিশাল গণফোরামের সভাপতি হিরন কুমার দাস মিঠু, বরিশাল ট্রেড ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট একে আজাদ, বরিশাল জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য মোজাম্মেল হক ফিরোজ, মহানগর ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ মুন্না, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের নেত্রী অদিতি সপ্তশ্রী, ছাত্র ফেডারেশন নেতা হাসিব আহমেদ, সংবাদকর্মী মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, দেশের স্বার্থে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করতে হবে। কারণ এই আইনের কারণে সাংবাদিক-লেখকরা স্বাধীন মতপ্রকাশ করতে পারছেন না। কিছুদিন আগে এই আইনে করা মামলায় কারাবন্দি হয়ে লেখক মুশতাক আহমেদ মারা গেছেন। দেশে ধর্ষণ-দুর্নীতির মামলায় জামিন হয়, অথচ মুশতাক আহমেদ বারবার জামিন আবেদন করেও জামিন পাননি।

ইসলামী যুব আন্দোলনের মানববন্ধন : ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন ও অপব্যবহার বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ইসলামী যুব আন্দোলন। এদিন দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। মানববন্ধনে ইসলামী যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ নেছার উদ্দিন, সেক্রেটারি জেনারেল আতিকুর রহমান মুজাহিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি মনসুর আহমেদ সাকী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন