গাজায় ইসরাইলি হামলা অব্যাহত, নিহত ১৮১
jugantor
গাজায় ইসরাইলি হামলা অব্যাহত, নিহত ১৮১

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি বাহিনীর বিমান হামলা অব্যাহত রয়েছে। সর্বশেষ রোববার সকালের এক হামলায় ৩৩ জন নিরীহ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে সাত দিনে প্রাণহানি দাঁড়ায় ১৮১ জনে। এর মধ্যে ৫২ জনই শিশু। শনিবার গাজায় মিসাইল হামলায় আলজাজিরা ও এপির অফিস গুঁড়িয়ে দিয়েছে ইসরাইল। ফিলিস্তিনি বেসামরিক নাগরিককে নির্বিচারে হত্যার প্রতিবাদে ব্রিটেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে বিক্ষোভ হয়েছে। হামলা বন্ধে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ দাবি করেছে মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া সরকার। পৃথকভাবে জরুরি বৈঠকে বসেছে জাতিসংঘ এবং বসছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। এদিকে গাজায় জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছে মালয়েশিয়ার ইসলামিক সংস্থা দুনিয়া মেলায়েউ দুনিয়া ইসলাম (ডিএমডিআই)। খবর বিবিসি, এএফপি, রয়টার্সের।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানান, রোববার ভোরে গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলায় ১৩ শিশুসহ কমপক্ষে ৩৩ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও অর্ধশত। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাদের অনেকের অবস্থা গুরুতর।

আগের দিন শনিবার ইসরায়েলি বাহিনী গাজার ১২ তলা ভবনে মিসাইল হামলা চালিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। ওই ভবনে এপি ও আলজাজিরার কার্যালয় ছিল। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের ধারণ করা ভিডিও ও ছবিতে দেখা গেছে, ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় মুহূর্তেই সুবিশাল ভবনটি নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। হামলার আগে ইসরাইল ওই ভবনের মালিককে সতর্ক করে। এরপর ভবনটি জনশূন্য করা হয়। ইসরাইলের দাবি, ভবনটিতে হামাসের সদস্যদের উপস্থিতি রয়েছে। একইদিন গাজায় হামাস প্রধান ইয়াহইয়া আল সিনওয়ারের বাড়িও মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে। হামাসের আল আকসা টেলিভিশনের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়। তবে হামাস প্রধান আহত কিংবা নিহত হয়েছেন কিনা, তা জানায়নি সংগঠনটি। ইয়াহইয়া আল সিনওয়ার ২০১৭ সাল থেকে গাজায় হামাসের রাজনৈতিক ও সামরিক শাখার নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। ইসরাইলি হামলা মোকাবিলায় হামাস পালটা রকেট হামলা চালালেও ইসরাইল প্রায় ৯০ ভাগ রকেটই থামিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে।

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে সংঘর্ষের শুরু গত সপ্তাহে। জেরুজালেমের আল-আকসায় পবিত্র জুমাতুল বিদাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত। বলা হচ্ছে, বিগত কয়েক বছরের মধ্যে ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড় সংঘর্ষের ঘটনা।

যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘ এবং মিসরের দূতেরা পরিস্থিতি শান্ত করতে কাজ করছেন। তবে এ পর্যন্ত পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি। ইতোমধ্যে তেল আবিব পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফিলিস্তিন ও ইসরাইল সম্পর্কবিষয়ক ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি হাদি আমর। এ ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নও বৈঠক ডেকেছে। ইসরাইল ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যকার সংঘাত অবিলম্বে বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেজ। রোববার সকালে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠকে তিনি এ আহ্বান জানান।

জেরুজালেম ও গাজায় ইসরাইলের অব্যাহত হামলার বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে জরুরি বৈঠক ডেকেছে ওআইসি। বিশ্বের ৫৭টি মুসলিম দেশের প্রতিনিধিদের বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সৌদি আরবের উদ্যোগে জরুরি এ বৈঠক ডাকা হয়েছে।
এদিকে ফিলিস্তিনে হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়ে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, যতদিন প্রয়োজন, ততদিন হামলা চলবে। সাধারণ মানুষকে সুরক্ষা দিতে সবকিছু করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। নেতানিয়াহুর ভাষ্য, চলমান সংঘর্ষের জন্য ইসরাইলি বাহিনী দায়ী নয়; বরং হামাস দায়ী।

গাজায় জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছে ডিএমডিআই। রোববার এক বিবৃতিতে ডিএমডিআই নীতিনির্ধারকরা বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের সামরিক আক্রমণ চালিয়ে যাওয়া থেকে বিরত রাখতে গাজায় শান্তিরক্ষী মোতায়েন করা উচিত। ডিএমডিআই সভাপতি তুন মোহাম্মদ আলী রুস্তম বলেছেন, জাতিসংঘ ও ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) অবিলম্বে ইসরাইলকে এ নৃশংসতা বন্ধের দাবি জানাতে হবে। যাতে ফিলিস্তিনিরা তাদের দেশে শান্তিতে বাস করতে পারে।

ঢাবিতে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দাহ : ঢাবি প্রতিনিধি জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়েছে। রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ এই কুশপুত্তলিকা দাহ করে। মঞ্চের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের সঞ্চালনায় ও সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ভাস্কর শিল্পী রাশা, সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ প্রমুখ।

ওআইসির জরুরি বৈঠকে তীব্র নিন্দা : ফিলিস্তিনিদের অধিকার ‘নগ্নভাবে লঙ্ঘন’ করায় ইসরাইলের নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। রোববার দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ এ নিন্দা জানান। তিনি সামরিক হামলা বন্ধের জন্য জরুরি পদক্ষেপ নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান। অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশনের (ওআইসি) ৫৭ সদস্যের এক জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠকে এ আহ্বান জানান তিনি। ইসলামের পবিত্র জায়গাগুলোর পবিত্রতা লঙ্ঘন ও পূর্ব জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের জোরপূর্বক উচ্ছেদের নিন্দা জানান সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বৈঠকে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেবলুত সাবুসোলু উপস্থিত নির্বাহী কমিটির সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর নিপীড়ন বন্ধ করা আমাদের সবার মানবিক দায়িত্ব। ফিলিস্তিনি ভাইবোনদের বাঁচাতে আমরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সব ধরনের চেষ্টা অব্যাহত রাখব।

গাজায় ইসরাইলি হামলা অব্যাহত, নিহত ১৮১

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি বাহিনীর বিমান হামলা অব্যাহত রয়েছে। সর্বশেষ রোববার সকালের এক হামলায় ৩৩ জন নিরীহ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে সাত দিনে প্রাণহানি দাঁড়ায় ১৮১ জনে। এর মধ্যে ৫২ জনই শিশু। শনিবার গাজায় মিসাইল হামলায় আলজাজিরা ও এপির অফিস গুঁড়িয়ে দিয়েছে ইসরাইল। ফিলিস্তিনি বেসামরিক নাগরিককে নির্বিচারে হত্যার প্রতিবাদে ব্রিটেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে বিক্ষোভ হয়েছে। হামলা বন্ধে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপ দাবি করেছে মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়া সরকার। পৃথকভাবে জরুরি বৈঠকে বসেছে জাতিসংঘ এবং বসছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। এদিকে গাজায় জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছে মালয়েশিয়ার ইসলামিক সংস্থা দুনিয়া মেলায়েউ দুনিয়া ইসলাম (ডিএমডিআই)। খবর বিবিসি, এএফপি, রয়টার্সের।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানান, রোববার ভোরে গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলায় ১৩ শিশুসহ কমপক্ষে ৩৩ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও অর্ধশত। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাদের অনেকের অবস্থা গুরুতর। 

আগের দিন শনিবার ইসরায়েলি বাহিনী গাজার ১২ তলা ভবনে মিসাইল হামলা চালিয়ে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। ওই ভবনে এপি ও আলজাজিরার কার্যালয় ছিল। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের ধারণ করা ভিডিও ও ছবিতে দেখা গেছে, ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় মুহূর্তেই সুবিশাল ভবনটি নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। হামলার আগে ইসরাইল ওই ভবনের মালিককে সতর্ক করে। এরপর ভবনটি জনশূন্য করা হয়। ইসরাইলের দাবি, ভবনটিতে হামাসের সদস্যদের উপস্থিতি রয়েছে। একইদিন গাজায় হামাস প্রধান ইয়াহইয়া আল সিনওয়ারের বাড়িও মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে। হামাসের আল আকসা টেলিভিশনের এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়। তবে হামাস প্রধান আহত কিংবা নিহত হয়েছেন কিনা, তা জানায়নি সংগঠনটি। ইয়াহইয়া আল সিনওয়ার ২০১৭ সাল থেকে গাজায় হামাসের রাজনৈতিক ও সামরিক শাখার নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন। ইসরাইলি হামলা মোকাবিলায় হামাস পালটা রকেট হামলা চালালেও ইসরাইল প্রায় ৯০ ভাগ রকেটই থামিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে।

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে সংঘর্ষের শুরু গত সপ্তাহে। জেরুজালেমের আল-আকসায় পবিত্র জুমাতুল বিদাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত। বলা হচ্ছে, বিগত কয়েক বছরের মধ্যে ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড় সংঘর্ষের ঘটনা। 

যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘ এবং মিসরের দূতেরা পরিস্থিতি শান্ত করতে কাজ করছেন। তবে এ পর্যন্ত পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি। ইতোমধ্যে তেল আবিব পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফিলিস্তিন ও ইসরাইল সম্পর্কবিষয়ক ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি হাদি আমর। এ ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নও বৈঠক ডেকেছে। ইসরাইল ও ফিলিস্তিনিদের মধ্যকার সংঘাত অবিলম্বে বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেজ। রোববার সকালে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠকে তিনি এ আহ্বান জানান। 

জেরুজালেম ও গাজায় ইসরাইলের অব্যাহত হামলার বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে জরুরি বৈঠক ডেকেছে ওআইসি। বিশ্বের ৫৭টি মুসলিম দেশের প্রতিনিধিদের বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। সৌদি আরবের উদ্যোগে জরুরি এ বৈঠক ডাকা হয়েছে।
এদিকে ফিলিস্তিনে হামলা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়ে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, যতদিন প্রয়োজন, ততদিন হামলা চলবে। সাধারণ মানুষকে সুরক্ষা দিতে সবকিছু করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। নেতানিয়াহুর ভাষ্য, চলমান সংঘর্ষের জন্য ইসরাইলি বাহিনী দায়ী নয়; বরং হামাস দায়ী।

গাজায় জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মোতায়েনের আহ্বান জানিয়েছে ডিএমডিআই। রোববার এক বিবৃতিতে ডিএমডিআই নীতিনির্ধারকরা বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের সামরিক আক্রমণ চালিয়ে যাওয়া থেকে বিরত রাখতে গাজায় শান্তিরক্ষী মোতায়েন করা উচিত। ডিএমডিআই সভাপতি তুন মোহাম্মদ আলী রুস্তম বলেছেন, জাতিসংঘ ও ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসি) অবিলম্বে ইসরাইলকে এ নৃশংসতা বন্ধের দাবি জানাতে হবে। যাতে ফিলিস্তিনিরা তাদের দেশে শান্তিতে বাস করতে পারে।

ঢাবিতে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর কুশপুত্তলিকা দাহ : ঢাবি প্রতিনিধি জানান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়েছে। রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ এই কুশপুত্তলিকা দাহ করে। মঞ্চের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের সঞ্চালনায় ও সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ভাস্কর শিল্পী রাশা, সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সনেট মাহমুদ প্রমুখ।

ওআইসির জরুরি বৈঠকে তীব্র নিন্দা : ফিলিস্তিনিদের অধিকার ‘নগ্নভাবে লঙ্ঘন’ করায় ইসরাইলের নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব। রোববার দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ এ নিন্দা জানান। তিনি সামরিক হামলা বন্ধের জন্য জরুরি পদক্ষেপ নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান। অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশনের (ওআইসি) ৫৭ সদস্যের এক জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠকে এ আহ্বান জানান তিনি। ইসলামের পবিত্র জায়গাগুলোর পবিত্রতা লঙ্ঘন ও পূর্ব জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের জোরপূর্বক উচ্ছেদের নিন্দা জানান সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বৈঠকে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেবলুত সাবুসোলু উপস্থিত নির্বাহী কমিটির সদস্যদের উদ্দেশে বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর নিপীড়ন বন্ধ করা আমাদের সবার মানবিক দায়িত্ব। ফিলিস্তিনি ভাইবোনদের বাঁচাতে আমরা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সব ধরনের চেষ্টা অব্যাহত রাখব। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন