চট্টগ্রামে মাদকবাহী গাড়ির ধাক্কায় এএসআই নিহত
jugantor
চট্টগ্রামে মাদকবাহী গাড়ির ধাক্কায় এএসআই নিহত
৭৩০ লিটার চোলাই মদ জব্দ, কনস্টেবল আহত

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

১২ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রামে মাদকবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় পুলিশের এক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম কাজী মো. সালাউদ্দিন (৩৮)। মাদক উদ্ধারে গাড়িটিকে থামার সঙ্কেত দিলে বেপরোয়া গতিতে তাকে ধাক্কা দিয়ে চালক পালিয়ে যায় বলে পুলিশ জানায়। এ সময় আহত হয়েছেন পুলিশের গাড়িচালক কনেস্টবল মো. মাসুম। তারা দু’জনই সিএমপির চান্দগাঁও থানায় কর্মরত ছিলেন।

নগরীর কাপ্তাই রাস্তার মাথা মেহেরাজ খান ঘাটা এলাকায় শুক্রবার ভোর পৌনে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। মাইক্রোবাসটি থেকে ৭৩০ লিটার মদ জব্দ করেছে চান্দগাঁও থানা পুলিশ। তবে গাড়ির চালককে গ্রেফতার করতে পারেনি। নিহত কাজী সালাউদ্দিন লক্ষ্মীপুর জেলার সদর থানার দক্ষিণ জয়পুর হাজিপাড়ার নাদেরুজ্জামানের ছেলে।

পুলিশের ধারণা, মাইক্রোবাসে মাদক বহন করার সময় গ্রেফতার এড়াতে দ্রুতগতিতে পালাতে গিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাকে ধাক্কা দিলে তিনি নিহত হন। এ ঘটনায় বিকাল পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

চান্দগাঁও থানা পুলিশ জানায়, এএসআই কাজী সালাউদ্দিনসহ পুলিশের একটি টিম মৌলভী পুকুরপাড় থেকে সিঅ্যান্ডবি ও আশপাশ এলাকায় রাত্রিকালীন দায়িত্বরত ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার ভোরে তিনি জানতে পারেন, একটি কালো মাইক্রোবাসে করে (রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঢাকা-মেট্রো-চ-১৫-৩৬৬৫) পার্বত্য এলাকা থেকে চোলাই মদ চট্টগ্রাম শহরে আনা হচ্ছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে এএসআই কাজী সালাউদ্দিন ও চালক কনস্টেবল মো. মাসুম কাপ্তাই রাস্তার মাথার মেহেরাজ খান ঘাটা পেট্রোল পাম্পের সামনে ওই গাড়িকে থামার জন্য সঙ্কেত দেন। চালক থামানোর মতো করে গাড়ির গতি কমিয়ে আনলে ওই দুই পুলিশ সদস্য গাড়ির সামনে যান। কিন্তু গাড়ির চালক আবারও গতি বাড়িয়ে দেন। এতে সালাউদ্দিন ধাক্কা খেয়ে সড়কে ছিটকে পড়ে মাথা, কোমর ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত পান। মাসুমও আঘাত পান। ঘটনাস্থলে এএসআই কাজী মো. সালাউদ্দিনের মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা কনেস্টবল মাসুমকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে মাইক্রোবাসটি চোলাই মদসহ জব্দ করে।

সিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ও গণসংযোগ কর্মকর্তা শাহ মো. আবদুর রউফ যুগান্তরকে বলেন, মাদক কারবারিরা মাইক্রোবাসের চাপায় একজন দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যা করেছে। ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। পুলিশ মাইক্রোবাসটি আটক করেছে। বিপুল পরিমাণ মাদক জব্দ করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই চালককে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

চট্টগ্রামে মাদকবাহী গাড়ির ধাক্কায় এএসআই নিহত

৭৩০ লিটার চোলাই মদ জব্দ, কনস্টেবল আহত
 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
১২ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চট্টগ্রামে মাদকবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় পুলিশের এক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম কাজী মো. সালাউদ্দিন (৩৮)। মাদক উদ্ধারে গাড়িটিকে থামার সঙ্কেত দিলে বেপরোয়া গতিতে তাকে ধাক্কা দিয়ে চালক পালিয়ে যায় বলে পুলিশ জানায়। এ সময় আহত হয়েছেন পুলিশের গাড়িচালক কনেস্টবল মো. মাসুম। তারা দু’জনই সিএমপির চান্দগাঁও থানায় কর্মরত ছিলেন।

নগরীর কাপ্তাই রাস্তার মাথা মেহেরাজ খান ঘাটা এলাকায় শুক্রবার ভোর পৌনে ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। মাইক্রোবাসটি থেকে ৭৩০ লিটার মদ জব্দ করেছে চান্দগাঁও থানা পুলিশ। তবে গাড়ির চালককে গ্রেফতার করতে পারেনি। নিহত কাজী সালাউদ্দিন লক্ষ্মীপুর জেলার সদর থানার দক্ষিণ জয়পুর হাজিপাড়ার নাদেরুজ্জামানের ছেলে।

পুলিশের ধারণা, মাইক্রোবাসে মাদক বহন করার সময় গ্রেফতার এড়াতে দ্রুতগতিতে পালাতে গিয়ে পুলিশ কর্মকর্তাকে ধাক্কা দিলে তিনি নিহত হন। এ ঘটনায় বিকাল পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

চান্দগাঁও থানা পুলিশ জানায়, এএসআই কাজী সালাউদ্দিনসহ পুলিশের একটি টিম মৌলভী পুকুরপাড় থেকে সিঅ্যান্ডবি ও আশপাশ এলাকায় রাত্রিকালীন দায়িত্বরত ছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার ভোরে তিনি জানতে পারেন, একটি কালো মাইক্রোবাসে করে (রেজিস্ট্রেশন নম্বর ঢাকা-মেট্রো-চ-১৫-৩৬৬৫) পার্বত্য এলাকা থেকে চোলাই মদ চট্টগ্রাম শহরে আনা হচ্ছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে এএসআই কাজী সালাউদ্দিন ও চালক কনস্টেবল মো. মাসুম কাপ্তাই রাস্তার মাথার মেহেরাজ খান ঘাটা পেট্রোল পাম্পের সামনে ওই গাড়িকে থামার জন্য সঙ্কেত দেন। চালক থামানোর মতো করে গাড়ির গতি কমিয়ে আনলে ওই দুই পুলিশ সদস্য গাড়ির সামনে যান। কিন্তু গাড়ির চালক আবারও গতি বাড়িয়ে দেন। এতে সালাউদ্দিন ধাক্কা খেয়ে সড়কে ছিটকে পড়ে মাথা, কোমর ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত পান। মাসুমও আঘাত পান। ঘটনাস্থলে এএসআই কাজী মো. সালাউদ্দিনের মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা কনেস্টবল মাসুমকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে মাইক্রোবাসটি চোলাই মদসহ জব্দ করে।

সিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার ও গণসংযোগ কর্মকর্তা শাহ মো. আবদুর রউফ যুগান্তরকে বলেন, মাদক কারবারিরা মাইক্রোবাসের চাপায় একজন দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যা করেছে। ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। পুলিশ মাইক্রোবাসটি আটক করেছে। বিপুল পরিমাণ মাদক জব্দ করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই চালককে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন