টানা চার দিন শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে
jugantor
২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩১
টানা চার দিন শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। শনাক্তের হার টানা চার দিন ধরে ৫ শতাংশের নিচে। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় সংক্রমণের হার ৪ দশমিক ৫৪ শতাংশ। আগের দিন এ হার ছিল ৪ দশমিক ৬১ শতাংশ। সংক্রমণ স্থিতিশীল থাকলেও বেড়েছে মৃত্যু। একদিনে আক্রান্তদের মধ্যে আরও ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আগের দিন মারা যায় ২৪ জন। সব মিলিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৭ হাজার ৩৬৮ জনে। ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ২৩৩ জন। আগের দিন ১ হাজার ১৪৪ জন শনাক্ত হয়েছিল। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৪৯ হাজার ৫৫৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় আরও ১ হাজার ৪১৩ জন সুস্থ হয়েছেন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ৯ হাজার ২০২ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শুক্রবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮১৫টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৪৫টি, জিন এক্সপার্ট ৫৬টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৬১৪টি। এসব ল্যাবে ২৭ হাজার ৫৫৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ হাজার ১৪১টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৫ লাখ ৭৯ হাজার ১১১টি। এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ১৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৪০ ও মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ১৮ ও নারী ১৩ জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ২৬ ও বেসরকারি হাসপাতালে পাঁচজন মারা যায়। মারা যাওয়াদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে আটজন, রাজশাহী বিভাগে দুজন, খুলনা বিভাগে একজন, সিলেট বিভাগে একজন, রংপুর বিভাগে দুজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন রয়েছেন। তাদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৯১ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে একজন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের পাঁচজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের নয়জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ছয়জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের চারজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুজন রয়েছেন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩১

টানা চার দিন শনাক্তের হার ৫ শতাংশের নিচে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দেশে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। শনাক্তের হার টানা চার দিন ধরে ৫ শতাংশের নিচে। ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় সংক্রমণের হার ৪ দশমিক ৫৪ শতাংশ। আগের দিন এ হার ছিল ৪ দশমিক ৬১ শতাংশ। সংক্রমণ স্থিতিশীল থাকলেও বেড়েছে মৃত্যু। একদিনে আক্রান্তদের মধ্যে আরও ৩১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আগের দিন মারা যায় ২৪ জন। সব মিলিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৭ হাজার ৩৬৮ জনে। ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ২৩৩ জন। আগের দিন ১ হাজার ১৪৪ জন শনাক্ত হয়েছিল। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৪৯ হাজার ৫৫৩ জন। ২৪ ঘণ্টায় আরও ১ হাজার ৪১৩ জন সুস্থ হয়েছেন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন ১৫ লাখ ৯ হাজার ২০২ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শুক্রবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮১৫টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৪৫টি, জিন এক্সপার্ট ৫৬টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৬১৪টি। এসব ল্যাবে ২৭ হাজার ৫৫৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ হাজার ১৪১টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৫ লাখ ৭৯ হাজার ১১১টি। এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ১৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৪০ ও মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ১৮ ও নারী ১৩ জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ২৬ ও বেসরকারি হাসপাতালে পাঁচজন মারা যায়। মারা যাওয়াদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে আটজন, রাজশাহী বিভাগে দুজন, খুলনা বিভাগে একজন, সিলেট বিভাগে একজন, রংপুর বিভাগে দুজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন রয়েছেন। তাদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৯১ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে একজন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের পাঁচজন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের নয়জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ছয়জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের চারজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুজন রয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন