বিজিবি মোতায়েন ২২ জেলায়
jugantor
কঠোর অবস্থানে সরকার 
বিজিবি মোতায়েন ২২ জেলায়
তদন্ত কমিটি গঠন, পুলিশ বাদী হয়ে চার মামলা বিভিন্ন স্থানে গ্রেফতার ৬১ * হাজিগঞ্জে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪ * হেফাজতসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের নিন্দা * ‘উৎসবমুখর পরিবেশে দুর্গোৎসব পালন হচ্ছে’

  যুগান্তর প্রতিবেদন ও কুমিল্লা ব্যুরো   

১৫ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিজিবি

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কুরআন অবমাননার অভিযোগে বিভিন্ন স্থানে হামলা-সংঘর্ষ ভাঙচুরের পরিপ্রেক্ষিতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে সরকার। এসব ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পুলিশ বাদী হয়ে চারটি মামলা করেছে। নিরাপত্তার স্বার্থে দেশের ২২ জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে বিজিবি।

এদিকে বুধবারের ঘটনায় হাজিগঞ্জে মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের। এতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার। সারা দেশে গত দুদিনে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৫ পুলিশসহ ৭৭ জন।

গ্রেফতার করা হয়েছে ৬১ জনকে। এসব ঘটনায় জড়িতদের ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একাধিক বৈঠক হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এসব বৈঠক থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তা ও গোয়েন্দাদের বিশেষ দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়। কুরআন অবমাননার ঘটনায় বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

হামলা, ভাঙচুর, সংঘর্ষে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে গ্রেফতার অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বর্তমানে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে শারদীয় দুর্গোৎসব পালন করছেন বলে জানিয়েছেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ও পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লার নানুয়া দিঘিরপাড় পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

তিনি বলেন, দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন একটি চক্র অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। এটা যে ষড়যন্ত্র তা স্পষ্ট। আমি দেশবাসীকে অনুরোধ করব আপনারা শান্ত থাকুন, কোনো উসকানিতে কান দেবেন না। এসব ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

একই সময় মণ্ডপ পরিদর্শনে আসেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

বুধবার সকালে নানুয়া দিঘিরপাড়ের ঘটনায় প্রথম যে ভিডিওটি ফেসবুকে প্রকাশ পেয়েছে, তাতে খুবই উসকানিমূলকভাবে ধারা বর্ণনা দেওয়া হচ্ছিল। পুলিশ ওই ভিডিও পোস্টকারী ফয়েজ আহাম্মদসহ ৪১ জনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

ঘটনা তদন্তে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসানের নির্দেশে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. সায়েদুল আরেফিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অপর ২ সদস্য হলেন-অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম তানভীর আহমেদ ও আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিন। কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে এ বিষয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

বিকালে সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ও পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ। এ সময় তারা বলেন, বিভিন্ন স্থানে হামলা-সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে চারটি মামলা করেছে।

ঘটনার নেপথ্যে যারা রয়েছে তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসবও শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হচ্ছে।

২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন : দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে নিরাপত্তার স্বার্থে কুমিল্লা, নরসিংদী, মুন্সীগঞ্জসহ ২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবির পরিচালক (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় তিনি জানান, জেলা প্রশাসনের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

চাঁদপুরে নিহত বেড়ে চার, ১৪৪ ধারা জারি : হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি জানান, হাজীগঞ্জ বাজারে বিক্ষোভ মিছিলে গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে চারজন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে শামীম (১৮) নামে আরও একজন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন।

তিনি রান্ধুনীমুড়া গ্রামের আব্বাসের ছেলে। এর আগে ওই ঘটনায় বাবলু (২৮), আল আমিন (১৮) ও ইয়াসিন হোসেন হৃদয় (১৪) নিহত হন। একই ঘটনায় পুলিশসহ আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন।

হাজীগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশিদ যুগান্তরকে বলেন, এ ঘটনায় সাতজনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এদিকে সহিংস পরিস্থিতিতে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত হাজীগঞ্জ উপজেলায় ১৪৪ ধারা জারি করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিস জানিয়েছেন, এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বিভিন্ন স্থানে হামলা, প্রতিবাদ, নিরাপত্তা জোরদার : এদিকে যুগান্তর ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে জানা যায়, বরিশাল ও রাজশাহীতে পূজার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। চট্টগ্রাম, নোয়াখালী ও বগুড়ায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

দোষীদের শাস্তির দাবিতে ভোলার মনপুরায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও দোয়া হয়েছে। বরিশালেও প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ হয়েছে। এছাড়া কক্সবাজারের পেকুয়ায় বুধবার রাতে মন্দিরে হামলার ঘটনায় ৯ জনকে আটক করা হয়েছে।

কুড়িগ্রামের উলিপুুরে বুধবার রাতে তিনটি ইউনিয়নে সাতটি মন্দিরে হামলার ঘটনায় ১৮ জনকে আটক করা হয়েছে। সেখানে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে বৃহস্পতিবার পূজামণ্ডপে হামলা ও সংঘর্ষ হয়েছে।

এতে পুলিশসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। একই জেলার হাতিয়ায় বুধবার রাতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুরের ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে মন্দির ও পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। খুলনা মহানগরীর একটি পূজামণ্ডপের প্রবেশপথ থেকে ১৮টি ককটেল উদ্ধার করেছে র‌্যাব ৬ এর একটি টিম।

নবীগঞ্জে সংঘর্ষে ওসিসহ আহত ২০ : বৃহস্পতিবার রাত ৭টার দিকে উপজেলার করগাও ইউনিয়নের গুমগুমিয়া দুর্গা মন্দরিরের পূজামণ্ডপের সামনে সংঘর্ষ হয়েছে।

এতে নবীগঞ্জ থানার ওসিসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নবীগঞ্জ থানার ওসি ডালিম আহমদ মাথায় আঘাত পেয়েছেন।

তাকে নবীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে রাতে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে, পূজামণ্ডপে পূজা শুরু হয়েছে।

দায়ীদের শাস্তি দাবি হেফাজতসহ ৫ সংগঠনের : কুমিল্লার ঘটনায় সব অপরাধীকে দ্রুত গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে অবস্থিত হেফাজত মহাসচিবের কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত খাস কমিটির বৈঠক থেকে এ দাবি জানান হেফাজত নেতারা। হেফাজত নেতৃবৃন্দ বলেন, কুমিল্লার ঘটনার প্রতি আমরা গভীরভাবে নজর রাখছি।

আমরা জানতে পেরেছি, অভিযুক্ত কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এজন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। হেফাজত নেতারা বলেন, চাঁদপুরের ঘটনায় কারও উসকানি ছিল কিনা, কীভাবে ৩ জন মারা গেল এর সুষ্ঠু তদন্ত হতে হবে।

এ ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কোনো ত্রুটি ছিল কিনা, তাও খতিয়ে দেখতে হবে। আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জীর সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান চৌধুরী, মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ি, মাওলানা আবদুল আওয়াল প্রমুখ।

এ ঘটনায় আরও নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আমত বাংলাদেশ, খেলাফত মজলিস ও বাংলাদেশ ফরায়েজি আন্দোলন।

ঢাবিতে মৌন প্রতিবাদ : কুমিল্লার ঘটনায় মৌন প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মুখে কালো কাপড় বেঁধে অবস্থান করেন বিভিন্ন বর্ষের পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী।

এ সময় তাদের হাতে ‘আমি হিন্দু আমাকে গুলি করো রাষ্ট্র’, ‘জীবনানন্দ-রবীন্দ্রনাথের বাংলায় সাম্প্রদায়িকতা কেন?’ ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ ইত্যাদি প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

কঠোর অবস্থানে সরকার 

বিজিবি মোতায়েন ২২ জেলায়

তদন্ত কমিটি গঠন, পুলিশ বাদী হয়ে চার মামলা বিভিন্ন স্থানে গ্রেফতার ৬১ * হাজিগঞ্জে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪ * হেফাজতসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের নিন্দা * ‘উৎসবমুখর পরিবেশে দুর্গোৎসব পালন হচ্ছে’
 যুগান্তর প্রতিবেদন ও কুমিল্লা ব্যুরো  
১৫ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
বিজিবি
কুমিল্লার নানুয়া দীঘিপাড়ে সাম্প্রদায়িক উসকানির ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে বৃহস্পতিবার বিজিবির টহল -যুগান্তর

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কুরআন অবমাননার অভিযোগে বিভিন্ন স্থানে হামলা-সংঘর্ষ ভাঙচুরের পরিপ্রেক্ষিতে কঠোর অবস্থান নিয়েছে সরকার। এসব ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পুলিশ বাদী হয়ে চারটি মামলা করেছে। নিরাপত্তার স্বার্থে দেশের ২২ জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে বিজিবি।

এদিকে বুধবারের ঘটনায় হাজিগঞ্জে মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের। এতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার। সারা দেশে গত দুদিনে বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়েছেন ২৫ পুলিশসহ ৭৭ জন।

গ্রেফতার করা হয়েছে ৬১ জনকে। এসব ঘটনায় জড়িতদের ছাড় দেওয়া হবে না। তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। 

পরিস্থিতি সামাল দিতে বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একাধিক বৈঠক হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এসব বৈঠক থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তা ও গোয়েন্দাদের বিশেষ দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়। কুরআন অবমাননার ঘটনায় বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনা ঘটেছে।

হামলা, ভাঙচুর, সংঘর্ষে উসকানি দেওয়ার অভিযোগে বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে গ্রেফতার অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বর্তমানে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে শারদীয় দুর্গোৎসব পালন করছেন বলে জানিয়েছেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ও পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে কুমিল্লার নানুয়া দিঘিরপাড় পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল।

তিনি বলেন, দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন একটি চক্র অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছে। এটা যে ষড়যন্ত্র তা স্পষ্ট। আমি দেশবাসীকে অনুরোধ করব আপনারা শান্ত থাকুন, কোনো উসকানিতে কান দেবেন না। এসব ঘটনা যারা ঘটিয়েছে তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। 

একই সময় মণ্ডপ পরিদর্শনে আসেন পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

বুধবার সকালে নানুয়া দিঘিরপাড়ের ঘটনায় প্রথম যে ভিডিওটি ফেসবুকে প্রকাশ পেয়েছে, তাতে খুবই উসকানিমূলকভাবে ধারা বর্ণনা দেওয়া হচ্ছিল। পুলিশ ওই ভিডিও পোস্টকারী ফয়েজ আহাম্মদসহ ৪১ জনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। 

ঘটনা তদন্তে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসানের নির্দেশে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. সায়েদুল আরেফিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কমিটির অপর ২ সদস্য হলেন-অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম তানভীর আহমেদ ও আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিয়া আফরিন। কমিটিকে তিন দিনের মধ্যে এ বিষয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

বিকালে সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ও পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ। এ সময় তারা বলেন, বিভিন্ন স্থানে হামলা-সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে চারটি মামলা করেছে।

ঘটনার নেপথ্যে যারা রয়েছে তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসবও শান্তিপূর্ণভাবে পালিত হচ্ছে।

২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন : দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে নিরাপত্তার স্বার্থে কুমিল্লা, নরসিংদী, মুন্সীগঞ্জসহ ২২ জেলায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবির পরিচালক (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় তিনি জানান, জেলা প্রশাসনের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। 

চাঁদপুরে নিহত বেড়ে চার, ১৪৪ ধারা জারি : হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি জানান, হাজীগঞ্জ বাজারে বিক্ষোভ মিছিলে গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে চারজন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে শামীম (১৮) নামে আরও একজন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন।

তিনি রান্ধুনীমুড়া গ্রামের আব্বাসের ছেলে। এর আগে ওই ঘটনায় বাবলু (২৮), আল আমিন (১৮) ও ইয়াসিন হোসেন হৃদয় (১৪) নিহত হন। একই ঘটনায় পুলিশসহ আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন।

হাজীগঞ্জ থানার ওসি হারুনুর রশিদ যুগান্তরকে বলেন, এ ঘটনায় সাতজনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এদিকে সহিংস পরিস্থিতিতে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত হাজীগঞ্জ উপজেলায় ১৪৪ ধারা জারি করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিস জানিয়েছেন, এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে প্রধান করে ৫ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বিভিন্ন স্থানে হামলা, প্রতিবাদ, নিরাপত্তা জোরদার : এদিকে যুগান্তর ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে জানা যায়, বরিশাল ও রাজশাহীতে পূজার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। চট্টগ্রাম, নোয়াখালী ও বগুড়ায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

দোষীদের শাস্তির দাবিতে ভোলার মনপুরায় প্রতিবাদ সমাবেশ ও দোয়া হয়েছে। বরিশালেও প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ হয়েছে। এছাড়া কক্সবাজারের পেকুয়ায় বুধবার রাতে মন্দিরে হামলার ঘটনায় ৯ জনকে আটক করা হয়েছে। 

কুড়িগ্রামের উলিপুুরে বুধবার রাতে তিনটি ইউনিয়নে সাতটি মন্দিরে হামলার ঘটনায় ১৮ জনকে আটক করা হয়েছে। সেখানে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে বৃহস্পতিবার পূজামণ্ডপে হামলা ও সংঘর্ষ হয়েছে।

এতে পুলিশসহ ৪ জন আহত হয়েছেন। একই জেলার হাতিয়ায় বুধবার রাতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুরের ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে মন্দির ও পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। খুলনা মহানগরীর একটি পূজামণ্ডপের প্রবেশপথ থেকে ১৮টি ককটেল উদ্ধার করেছে র‌্যাব ৬ এর একটি টিম। 

নবীগঞ্জে সংঘর্ষে ওসিসহ আহত ২০ : বৃহস্পতিবার রাত ৭টার দিকে উপজেলার করগাও ইউনিয়নের গুমগুমিয়া দুর্গা মন্দরিরের পূজামণ্ডপের সামনে সংঘর্ষ হয়েছে।

এতে নবীগঞ্জ থানার ওসিসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নবীগঞ্জ থানার ওসি ডালিম আহমদ মাথায় আঘাত পেয়েছেন।

তাকে নবীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে রাতে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে, পূজামণ্ডপে পূজা শুরু হয়েছে। 

দায়ীদের শাস্তি দাবি হেফাজতসহ ৫ সংগঠনের : কুমিল্লার ঘটনায় সব অপরাধীকে দ্রুত গ্রেফতার করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে অবস্থিত হেফাজত মহাসচিবের কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত খাস কমিটির বৈঠক থেকে এ দাবি জানান হেফাজত নেতারা। হেফাজত নেতৃবৃন্দ বলেন, কুমিল্লার ঘটনার প্রতি আমরা গভীরভাবে নজর রাখছি।

আমরা জানতে পেরেছি, অভিযুক্ত কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এজন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। হেফাজত নেতারা বলেন, চাঁদপুরের ঘটনায় কারও উসকানি ছিল কিনা, কীভাবে ৩ জন মারা গেল এর সুষ্ঠু তদন্ত হতে হবে।

এ ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কোনো ত্রুটি ছিল কিনা, তাও খতিয়ে দেখতে হবে। আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জীর সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান চৌধুরী, মাওলানা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ি, মাওলানা আবদুল আওয়াল প্রমুখ।

এ ঘটনায় আরও নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আমত বাংলাদেশ, খেলাফত মজলিস ও বাংলাদেশ ফরায়েজি আন্দোলন। 

ঢাবিতে মৌন প্রতিবাদ : কুমিল্লার ঘটনায় মৌন প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মুখে কালো কাপড় বেঁধে অবস্থান করেন বিভিন্ন বর্ষের পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী।

এ সময় তাদের হাতে ‘আমি হিন্দু আমাকে গুলি করো রাষ্ট্র’, ‘জীবনানন্দ-রবীন্দ্রনাথের বাংলায় সাম্প্রদায়িকতা কেন?’ ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ ইত্যাদি প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন