মাগুরায় নির্বাচনি সংঘাতে নিহত চার, আহত ১০
jugantor
মাগুরায় নির্বাচনি সংঘাতে নিহত চার, আহত ১০

  মাগুরা প্রতিনিধি  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মাগুরা সদর উপজেলার জগদল ইউনিয়নের জগদল গ্রামে শুক্রবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থিতা নিয়ে সমর্থকদের হামলা-পালটা হামলায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন। নিহতরা হচ্ছেন-দক্ষিণ জগদল গ্রামের সাহাবাজ মোল্যার ছেলে সবুর মোল্যা, কবির হোসেন, চাচাতো ভাই রহমান মোল্যা ও ইমরান।

এলাকাবাসী জানান, ৩নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য নজরুল হোসেন। কিন্তু দ্বিতীয় ধাপে তফসিল ঘোষণার পর এ ওয়ার্ড থেকে সৈয়দ আলি নামে আরেকজন সদস্য প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেন। এ নিয়ে কয়েকদিন ধরে এলাকায় দুজনের সমর্থকদের মধ্যে বাদ-বিবাদ লেগে ছিল। উভয়পক্ষই তিন দিনে কয়েক দফায় লাঠিসোঠা নিয়ে অবস্থান নেয়। তবে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়নি। কিন্তু শুক্রবার এক পক্ষ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালালে প্রতিপক্ষও পালটা হামলা চালায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ৪টার দিকে দক্ষিণ জগদল বাজারে অবস্থান নেয় নজরুল মেম্বর সমর্থিতরা। একপর্যায়ে তারা গ্রামে ঢুকে সৈয়দ আলি সমর্থিতদের ওপর হামলা চালায়। এতে ১২ জন আহত হন। তাদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সবুর মোল্যা, কবির হোসেন, চাচাতো ভাই রহমান মোল্যাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে সৈয়দ আলি সমর্থিতরা পালটা হামলা চালালে আরও দুজন আহত হন। এরমধ্যে ইমরান হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে মারা যান। জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রফিকুল আহসান জানিয়েছেন, আহত অন্যদের অবস্থাও গুরুতর।

বিরোধে জড়িয়ে পড়া নজরুল মেম্বর এবং একই ওয়ার্ডে মনোনয়ন প্রত্যাশী সৈয়দ আলির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতরা এ হামলার জন্য বর্তমান ইউপি মেম্বর নজরুল মোল্যা ও তার সমর্থকদের দায়ী করেছেন।

এ বিষয়ে মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল হাসান জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকজনকে আটকও করা হয়েছে।

মাগুরায় নির্বাচনি সংঘাতে নিহত চার, আহত ১০

 মাগুরা প্রতিনিধি 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মাগুরা সদর উপজেলার জগদল ইউনিয়নের জগদল গ্রামে শুক্রবার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থিতা নিয়ে সমর্থকদের হামলা-পালটা হামলায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০ জন। নিহতরা হচ্ছেন-দক্ষিণ জগদল গ্রামের সাহাবাজ মোল্যার ছেলে সবুর মোল্যা, কবির হোসেন, চাচাতো ভাই রহমান মোল্যা ও ইমরান।

এলাকাবাসী জানান, ৩নং ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য নজরুল হোসেন। কিন্তু দ্বিতীয় ধাপে তফসিল ঘোষণার পর এ ওয়ার্ড থেকে সৈয়দ আলি নামে আরেকজন সদস্য প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেন। এ নিয়ে কয়েকদিন ধরে এলাকায় দুজনের সমর্থকদের মধ্যে বাদ-বিবাদ লেগে ছিল। উভয়পক্ষই তিন দিনে কয়েক দফায় লাঠিসোঠা নিয়ে অবস্থান নেয়। তবে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়নি। কিন্তু শুক্রবার এক পক্ষ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালালে প্রতিপক্ষও পালটা হামলা চালায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকাল ৪টার দিকে দক্ষিণ জগদল বাজারে অবস্থান নেয় নজরুল মেম্বর সমর্থিতরা। একপর্যায়ে তারা গ্রামে ঢুকে সৈয়দ আলি সমর্থিতদের ওপর হামলা চালায়। এতে ১২ জন আহত হন। তাদের মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সবুর মোল্যা, কবির হোসেন, চাচাতো ভাই রহমান মোল্যাকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে সৈয়দ আলি সমর্থিতরা পালটা হামলা চালালে আরও দুজন আহত হন। এরমধ্যে ইমরান হোসেন চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে মারা যান। জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রফিকুল আহসান জানিয়েছেন, আহত অন্যদের অবস্থাও গুরুতর।

বিরোধে জড়িয়ে পড়া নজরুল মেম্বর এবং একই ওয়ার্ডে মনোনয়ন প্রত্যাশী সৈয়দ আলির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতরা এ হামলার জন্য বর্তমান ইউপি মেম্বর নজরুল মোল্যা ও তার সমর্থকদের দায়ী করেছেন।

এ বিষয়ে মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল হাসান জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকজনকে আটকও করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন