দেশে সম্প্রীতি অটুট রাখার প্রত্যয়
jugantor
শান্তি সমাবেশ অব্যাহত
দেশে সম্প্রীতি অটুট রাখার প্রত্যয়

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ, মানববন্ধন ও সম্প্রীতি সমাবেশ এবং শান্তি শোভাযাত্রা অব্যাহত রয়েছে।

সারা দেশে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বন্ধ, এর সঙ্গে জড়িত ও মদদদাতাদের গ্রেফতার এবং বিচারের দাবিতে বুধ ও বৃহস্পতিবার এ সমাবেশ করা হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, কয়েকজন দুষ্কৃতকারীর অপকর্মের মাধ্যমে আমাদের অসাম্প্রদায়িক চেতনা ভূলুণ্ঠিত হতে পারে না। যে কোনো মূল্যে বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে সম্প্রীতি ও ভ্রাতৃত্ববোধ অটুট রাখতে হবে।

তারা আরও বলেন, সাম্প্রতিক এসব সহিংসতার সূত্রপাত কীভাবে হলো, কীভাবে এর বিস্তার ঘটল তা এখনো তদন্তাধীন বিষয়। কারা এসব ঘটিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করে জানা না গেলেও এটা নিশ্চিত যে, এ ঘটনা আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে অত্যন্ত নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। বক্তারা বলেন, ধর্মের নাম দিয়ে সুযোগসন্ধানীদের এমন তাণ্ডব মানবতাবিরোধী। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ বাংলাদেশ। এখানে সাম্প্রদায়িকতার কোনো স্থান নেই। বাংলাদেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ, তবে ধর্মান্ধ নয়। প্রত্যেকে নিজ নিজ ধর্ম পালনের অধিকার রাখেন। ব্যুরো, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ঢাবি : রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে বুধবার বিকাল চারটায় ‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ ব্যানারে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশ শেষে একটি মশাল মিছিল বের হয়ে আবার সমাবেশস্থলে এসে শেষ হয়।

সমাবেশে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, সরকার আমাদের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে, ভাতের অধিকার পর্যন্ত হুমকির মুখে, বাকি ছিল ধর্ম পালনের অধিকার।

নিরাপদে, শান্তিতে, আনন্দের আবহে আমরা ধর্ম পালন করব, উদযাপন করব, সে সুযোগ পর্যন্ত আজকে বাংলাদেশের মানুষের নেই।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এমএম আকাশ। উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপনের সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের নেতা বজলুর রশিদ ফিরোজ, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নু, বাসদ মার্কসবাদী কেন্দ্রীয় নেতা মানস নন্দী, উদীচীর সদস্য আকরামুল হক প্রমুখ।

এদিকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, আমরা যারা মুসলমান, যারা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সব ধর্মের মানুষ তার ধর্ম পালন করবে। আমরা ধর্মপরায়ণ হতে চাই, ধর্মান্ধ হতে চাই না।

ধর্মান্ধতার মাধ্যমে সমাজকে কলুষিত করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে গৌরব একাত্তর আয়োজিত এক প্রতিরোধ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

রাজশাহী ও রাবি : রাজশাহী কলেজ রিপোর্টার্স ইউনিটির (আরসিআরইউ) উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজশাহী কলেজের বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের সামনে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় এ কর্মসূচি পালিত হয়। রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা. আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি (আরইউজে) সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক, রাজশাহী টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মেহেদী হাসান শ্যামল, আরইউজের সদস্য সেলিম জাহাঙ্গীর, রাজশাহী মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, মুক্তিযুদ্ধের তথ্য সংগ্রাহক ওলিউর রহমান বাবু ও আরসিআরইউয়ের সাবেক সভাপতি বাবর মাহমুদ। এদিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০টায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের ব্যানারে সিনেট ভবনের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এ সময় অংশ নেন রাবি ভিসি অধ্যাপক ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার, প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. সুলতান উল ইসলাম প্রমুখ।

সিলেট : সিলেট প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে মানববন্ধন ও সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সিলেট প্রেস ক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ মো. রেনুর পরিচালনায় সম্প্রীতি সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, সহ-সভাপতি আবদুল কাদের তাপাদার, সাবেক সহসভাপতি মোহাম্মদ বদরুদ্দোজা বদর, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন ইমজার সভাপতি বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী প্রমুখ। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ও মহানগর ইউনিটের উদ্যোগে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

বরিশাল : বরিশালে পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে নগরীর সদর রোডে ও একই সময়ে ববি ক্যাম্পাসের সামনে বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) পরিবারের আয়োজনে ওই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির (বিআরইউ) সভাপতি নজরুল বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সিনিয়র সাংবাদিক আনিসুর রহমান খান স্বপন, নারী নেত্রী পুষ্প রানী চক্রবর্তী, সাংবাদিক ইউনিয়ন বরিশালের সভাপতি সাইফুর রহমান মিরণ, বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ চক্রবর্তী, সংগঠক মারিফ বাপ্পি, ৭১ এর চেতনা বরিশালের সভাপতি বাহাউদ্দিন গোলাপ প্রমুখ। অন্যদিকে ববি ক্যাম্পাসের সামনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের আয়োজনে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য উপাচার্য ড. মো. ছাদেকুল আরেফিনসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বাকৃবি : মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) সনাতন সংঘ। সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তনের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বাকৃবি সনাতন সংঘের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড. লাভলু মজুমদারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাকৃবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. সুবাস চন্দ্র দাস, প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এএস মাহফুজুল বারি প্রমুখ।

এ ছাড়া নড়াইল প্রতিনিধি, নেত্রকোনা প্রতিনিধি, গাইবান্ধা প্রতিনিধি, রাঙামাটি প্রতিনিধি, সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি, সদর দক্ষিণ (কুমিল্লা) প্রতিনিধি, চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি, শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি, গলাচিপা ও দক্ষিণ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি, বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি, স্বরূপকাঠি (পিরোজপুর) প্রতিনিধি, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি, গুরুদাসপুর নাটোর প্রতিনিধি, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি, বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি, জয়দেবপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন পাঠিয়েছেন।

শান্তি সমাবেশ অব্যাহত

দেশে সম্প্রীতি অটুট রাখার প্রত্যয়

 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ, মানববন্ধন ও সম্প্রীতি সমাবেশ এবং শান্তি শোভাযাত্রা অব্যাহত রয়েছে।

সারা দেশে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বন্ধ, এর সঙ্গে জড়িত ও মদদদাতাদের গ্রেফতার এবং বিচারের দাবিতে বুধ ও বৃহস্পতিবার এ সমাবেশ করা হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, কয়েকজন দুষ্কৃতকারীর অপকর্মের মাধ্যমে আমাদের অসাম্প্রদায়িক চেতনা ভূলুণ্ঠিত হতে পারে না। যে কোনো মূল্যে বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে সম্প্রীতি ও ভ্রাতৃত্ববোধ অটুট রাখতে হবে।

তারা আরও বলেন, সাম্প্রতিক এসব সহিংসতার সূত্রপাত কীভাবে হলো, কীভাবে এর বিস্তার ঘটল তা এখনো তদন্তাধীন বিষয়। কারা এসব ঘটিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করে জানা না গেলেও এটা নিশ্চিত যে, এ ঘটনা আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে অত্যন্ত নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। বক্তারা বলেন, ধর্মের নাম দিয়ে সুযোগসন্ধানীদের এমন তাণ্ডব মানবতাবিরোধী। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ বাংলাদেশ। এখানে সাম্প্রদায়িকতার কোনো স্থান নেই। বাংলাদেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ, তবে ধর্মান্ধ নয়। প্রত্যেকে নিজ নিজ ধর্ম পালনের অধিকার রাখেন। ব্যুরো, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ঢাবি : রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে বুধবার বিকাল চারটায় ‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ ব্যানারে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশ শেষে একটি মশাল মিছিল বের হয়ে আবার সমাবেশস্থলে এসে শেষ হয়।

সমাবেশে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, সরকার আমাদের ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে, ভাতের অধিকার পর্যন্ত হুমকির মুখে, বাকি ছিল ধর্ম পালনের অধিকার।

নিরাপদে, শান্তিতে, আনন্দের আবহে আমরা ধর্ম পালন করব, উদযাপন করব, সে সুযোগ পর্যন্ত আজকে বাংলাদেশের মানুষের নেই।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এমএম আকাশ। উদীচীর সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপনের সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের নেতা বজলুর রশিদ ফিরোজ, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন নান্নু, বাসদ মার্কসবাদী কেন্দ্রীয় নেতা মানস নন্দী, উদীচীর সদস্য আকরামুল হক প্রমুখ।

এদিকে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, আমরা যারা মুসলমান, যারা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সব ধর্মের মানুষ তার ধর্ম পালন করবে। আমরা ধর্মপরায়ণ হতে চাই, ধর্মান্ধ হতে চাই না।

ধর্মান্ধতার মাধ্যমে সমাজকে কলুষিত করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে গৌরব একাত্তর আয়োজিত এক প্রতিরোধ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

রাজশাহী ও রাবি : রাজশাহী কলেজ রিপোর্টার্স ইউনিটির (আরসিআরইউ) উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাজশাহী কলেজের বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের সামনে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় এ কর্মসূচি পালিত হয়। রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা. আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি (আরইউজে) সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হক, রাজশাহী টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মেহেদী হাসান শ্যামল, আরইউজের সদস্য সেলিম জাহাঙ্গীর, রাজশাহী মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, মুক্তিযুদ্ধের তথ্য সংগ্রাহক ওলিউর রহমান বাবু ও আরসিআরইউয়ের সাবেক সভাপতি বাবর মাহমুদ। এদিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১০টায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মূল্যবোধে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের ব্যানারে সিনেট ভবনের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এ সময় অংশ নেন রাবি ভিসি অধ্যাপক ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার, প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. সুলতান উল ইসলাম প্রমুখ।

সিলেট : সিলেট প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে মানববন্ধন ও সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সিলেট প্রেস ক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ মো. রেনুর পরিচালনায় সম্প্রীতি সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবির, সহ-সভাপতি আবদুল কাদের তাপাদার, সাবেক সহসভাপতি মোহাম্মদ বদরুদ্দোজা বদর, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন ইমজার সভাপতি বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী প্রমুখ। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ও মহানগর ইউনিটের উদ্যোগে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

বরিশাল : বরিশালে পৃথক বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে নগরীর সদর রোডে ও একই সময়ে ববি ক্যাম্পাসের সামনে বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) পরিবারের আয়োজনে ওই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির (বিআরইউ) সভাপতি নজরুল বিশ্বাসের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সিনিয়র সাংবাদিক আনিসুর রহমান খান স্বপন, নারী নেত্রী পুষ্প রানী চক্রবর্তী, সাংবাদিক ইউনিয়ন বরিশালের সভাপতি সাইফুর রহমান মিরণ, বরিশাল সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ চক্রবর্তী, সংগঠক মারিফ বাপ্পি, ৭১ এর চেতনা বরিশালের সভাপতি বাহাউদ্দিন গোলাপ প্রমুখ। অন্যদিকে ববি ক্যাম্পাসের সামনে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের আয়োজনে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য উপাচার্য ড. মো. ছাদেকুল আরেফিনসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বাকৃবি : মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) সনাতন সংঘ। সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদীন মিলনায়তনের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বাকৃবি সনাতন সংঘের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড. লাভলু মজুমদারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাকৃবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. সুবাস চন্দ্র দাস, প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এএস মাহফুজুল বারি প্রমুখ।

এ ছাড়া নড়াইল প্রতিনিধি, নেত্রকোনা প্রতিনিধি, গাইবান্ধা প্রতিনিধি, রাঙামাটি প্রতিনিধি, সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি, সদর দক্ষিণ (কুমিল্লা) প্রতিনিধি, চিতলমারী (বাগেরহাট) প্রতিনিধি, শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণপাড়া (কুমিল্লা) প্রতিনিধি, গলাচিপা ও দক্ষিণ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি, বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি, স্বরূপকাঠি (পিরোজপুর) প্রতিনিধি, ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি, গুরুদাসপুর নাটোর প্রতিনিধি, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি, বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি, জয়দেবপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন পাঠিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন