ঢাকার বাসে শর্ত দিয়ে হাফ ভাড়া শিক্ষার্থীদের ‘না’
jugantor
ঢাকার বাসে শর্ত দিয়ে হাফ ভাড়া শিক্ষার্থীদের ‘না’

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দাবি মেনে পরিবহণ মালিকরা আজ বুধবার থেকে ঢাকা মহানগর এলাকায় বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া চালুর ঘোষণা দিয়েছেন। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে বাসে হাফ ভাড়া দিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটি এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অন্যসব ছুটির দিনে হাফ ভাড়া দেওয়ার সুযোগ থাকবে না।

এছাড়া ভাড়া দেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছবিযুক্ত আইডি কার্ড দেখাতে হবে। তবে শর্তসাপেক্ষে ‘হাফ’ ভাড়ার ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করেছেন শিক্ষার্থীরা। কেবল ঢাকা মহানগরে তারা হাফ ভাড়া চান।

মঙ্গলবার সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের সঙ্গে দেখা করে এ ঘোষণা মানতে তারা অস্বীকার করেন। এরপর তারা আজ সারা দেশে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

ঢাকা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ মঙ্গলবার দুপুরে পরীবাগে সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, এ সিদ্ধান্ত শুধু ঢাকা মেট্রো এলাকার জন্য কার্যকর হবে। কোনোভাবে ঢাকার বাইরের জন্য কার্যকর হবে না।

ঢাকা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেন তিনি। খন্দকার এনায়েত উল্যাহ রামপুরায় বাসে পিষ্ট হয়ে নিহত শিক্ষার্থী মাইনুদ্দিন ইসলাম দুর্জয়ের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান এবং দায়ী ব্যক্তিদের শাস্তি দাবি করেন। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে সরে আসারও অনুরোধ জানান তিনি।

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, ছাত্রদের দাবির ব্যাপারে তারা মালিক-শ্রমিক ও বিআরটিএর সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন। সোমবার ১২০টি পরিবহণ কোম্পানির এমডিদের সঙ্গে এবং ৫টি শ্রমিক সংগঠন ও ফেডারেশনে সঙ্গে বৈঠক করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

সংবাদ সম্মলেন উপস্থিত ছিলেন-ঢাকা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির সভাপতি আজমল উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী ও সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সাদেকুর রহমান হিরু প্রমুখ।

ডিজেলের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানোর পর পরিবহণ মালিকদের চাপে সরকার বাস ভাড়া ২৭ শতাংশ বাড়ায়। এরপর থেকেই বাসে আগের মতো অর্ধেক ভাড়া দেওয়ার দাবিতে আন্দোলন করে আসছিল শিক্ষার্থীরা।

২৪ নভেম্বর গুলিস্তানে সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হওয়ার পর সেই আন্দোলন আরও গতি পায়। পরদিন পথে পথে বিক্ষোভ-অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা।

তারা গণপরিবহণের অর্ধেক ভাড়ার দাবিসহ নয় দফা দাবিতে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ অব্যাহত রাখে। এ পরিস্থিতির মধ্যে ২৫ নভেম্বর রাজধানীর পান্থপথে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ময়লার গাড়ির চাপায় প্রাণ হারান ব্যবসায়ী আহসান কবির।

এছাড়া সোমবার রাতে ১০টার দিকে রামপুরায় রাস্তা পার হওয়ার সময় দুটি বাসের প্রতিযোগিতায় চাপা পড়ে নিহত হয় শিক্ষার্থী মাইনুদ্দিন ইসলাম দুর্জয়। সে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল। দুর্জয় নিহত হওয়ার পর রামপুরায় বিক্ষোভরতরা ১২টি বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে।

চালককে ধরে গণপিটুনি দেওয়া হয়। এতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে নিরাপদ সড়কের দাবি আরও জোরালো হয়ে ওঠে। মঙ্গলবারও রাজধানীর রামপুরা, ধানমন্ডির রাপা প্লাজাসহ বিভিন্ন এলাকায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে সড়কে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।

এর আগে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মুখে সারা দেশে বিআরটিসির বাসে ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। শুক্রবার এ তথ্য জানান সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, ১ ডিসেম্বর থেকেই এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। সেজন্য ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা বিআরটিসি বাসে চলাচলে এ সুবিধা পাবে এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির দিনে এ সুবিধা প্রযোজ্য হবে না বলে সেদিন জানান মন্ত্রী।

বেসরকারি বাসেও শিক্ষার্থীদের জন্য অর্ধেক ভাড়ার নিয়ম চালু করতে ২৫ ও ২৭ নভেম্বর পরিবহণ মালিকদের সঙ্গে দুদফা বৈঠকে বসে সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। কিন্তু কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সেসব বৈঠক শেষ হয়। সর্বশেষ মঙ্গলবার হাফ পাশের দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি : কেবল ঢাকা মহানগরে শর্তসাপেক্ষে ‘হাফ’ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করে শিক্ষার্থীরা সারা দেশে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন।

মঙ্গলবার বনানীতে বিআরটিএ ভবনে গিয়ে সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের কাছে নিজেদের দাবিনামা তুলে ধরে শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দল। পরে তারা নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

প্রতিনিধি দলের এক সদস্য ও স্টেট কলেজের শিক্ষার্থী এনজামুল হক রামিম বলেন, নয় দফা দাবিতে বুধবার (আজ) সারা দেশে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে।

ঢাকার বাসে শর্ত দিয়ে হাফ ভাড়া শিক্ষার্থীদের ‘না’

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দাবি মেনে পরিবহণ মালিকরা আজ বুধবার থেকে ঢাকা মহানগর এলাকায় বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া চালুর ঘোষণা দিয়েছেন। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে বাসে হাফ ভাড়া দিতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটি এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অন্যসব ছুটির দিনে হাফ ভাড়া দেওয়ার সুযোগ থাকবে না।

এছাড়া ভাড়া দেওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছবিযুক্ত আইডি কার্ড দেখাতে হবে। তবে শর্তসাপেক্ষে ‘হাফ’ ভাড়ার ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করেছেন শিক্ষার্থীরা। কেবল ঢাকা মহানগরে তারা হাফ ভাড়া চান।

মঙ্গলবার সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের সঙ্গে দেখা করে এ ঘোষণা মানতে তারা অস্বীকার করেন। এরপর তারা আজ সারা দেশে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

ঢাকা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ মঙ্গলবার দুপুরে পরীবাগে সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, এ সিদ্ধান্ত শুধু ঢাকা মেট্রো এলাকার জন্য কার্যকর হবে। কোনোভাবে ঢাকার বাইরের জন্য কার্যকর হবে না।

ঢাকা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেন তিনি। খন্দকার এনায়েত উল্যাহ রামপুরায় বাসে পিষ্ট হয়ে নিহত শিক্ষার্থী মাইনুদ্দিন ইসলাম দুর্জয়ের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান এবং দায়ী ব্যক্তিদের শাস্তি দাবি করেন। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে সরে আসারও অনুরোধ জানান তিনি। 

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, ছাত্রদের দাবির ব্যাপারে তারা মালিক-শ্রমিক ও বিআরটিএর সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন। সোমবার ১২০টি পরিবহণ কোম্পানির এমডিদের সঙ্গে এবং ৫টি শ্রমিক সংগঠন ও ফেডারেশনে সঙ্গে বৈঠক করে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

সংবাদ সম্মলেন উপস্থিত ছিলেন-ঢাকা সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির সভাপতি আজমল উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী ও সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট সাদেকুর রহমান হিরু প্রমুখ।

ডিজেলের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানোর পর পরিবহণ মালিকদের চাপে সরকার বাস ভাড়া ২৭ শতাংশ বাড়ায়। এরপর থেকেই বাসে আগের মতো অর্ধেক ভাড়া দেওয়ার দাবিতে আন্দোলন করে আসছিল শিক্ষার্থীরা।

২৪ নভেম্বর গুলিস্তানে সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হওয়ার পর সেই আন্দোলন আরও গতি পায়। পরদিন পথে পথে বিক্ষোভ-অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা।

তারা গণপরিবহণের অর্ধেক ভাড়ার দাবিসহ নয় দফা দাবিতে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ অব্যাহত রাখে। এ পরিস্থিতির মধ্যে ২৫ নভেম্বর রাজধানীর পান্থপথে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ময়লার গাড়ির চাপায় প্রাণ হারান ব্যবসায়ী আহসান কবির।

এছাড়া সোমবার রাতে ১০টার দিকে রামপুরায় রাস্তা পার হওয়ার সময় দুটি বাসের প্রতিযোগিতায় চাপা পড়ে নিহত হয় শিক্ষার্থী মাইনুদ্দিন ইসলাম দুর্জয়। সে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল। দুর্জয় নিহত হওয়ার পর রামপুরায় বিক্ষোভরতরা ১২টি বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে।

চালককে ধরে গণপিটুনি দেওয়া হয়। এতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনে নিরাপদ সড়কের দাবি আরও জোরালো হয়ে ওঠে। মঙ্গলবারও রাজধানীর রামপুরা, ধানমন্ডির রাপা প্লাজাসহ বিভিন্ন এলাকায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে সড়কে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। 

এর আগে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের মুখে সারা দেশে বিআরটিসির বাসে ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। শুক্রবার এ তথ্য জানান সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, ১ ডিসেম্বর থেকেই এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। সেজন্য ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র সঙ্গে রাখতে হবে। সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা বিআরটিসি বাসে চলাচলে এ সুবিধা পাবে এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির দিনে এ সুবিধা প্রযোজ্য হবে না বলে সেদিন জানান মন্ত্রী।

বেসরকারি বাসেও শিক্ষার্থীদের জন্য অর্ধেক ভাড়ার নিয়ম চালু করতে ২৫ ও ২৭ নভেম্বর পরিবহণ মালিকদের সঙ্গে দুদফা বৈঠকে বসে সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। কিন্তু কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই সেসব বৈঠক শেষ হয়। সর্বশেষ মঙ্গলবার হাফ পাশের দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ। 

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি : কেবল ঢাকা মহানগরে শর্তসাপেক্ষে ‘হাফ’ ভাড়া নেওয়ার ঘোষণা প্রত্যাখ্যান করে শিক্ষার্থীরা সারা দেশে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন।

মঙ্গলবার বনানীতে বিআরটিএ ভবনে গিয়ে সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের কাছে নিজেদের দাবিনামা তুলে ধরে শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দল। পরে তারা নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

প্রতিনিধি দলের এক সদস্য ও স্টেট কলেজের শিক্ষার্থী এনজামুল হক রামিম বলেন, নয় দফা দাবিতে বুধবার (আজ) সারা দেশে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করা হবে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন