চুমুকে চুমুকে পান করি আল্লাহর রহমত

  হাফেজ মুফতি আহসান শরিফ ২৭ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রমজান,

স্বপ্নময় রমজান মানুষকে অবিরত পরিশ্রম করতে সাহায্য করে। সাধনায় উৎসাহ জোগায়। কিন্তু একজন আদর্শ মানুষের স্বপ্ন কী হবে বা কী হওয়া উচিত, পবিত্র কুরআন এবং রাসুলের হাদিস মানুষকে তা শিখিয়েছে। একজন মানুষের চরম লক্ষ্য হবে তার স্রষ্টা আল্লাহর সন্তুষ্টি ও নৈকট্য লাভ করা। মানুষ আল্লাহ পর্যন্ত পৌঁছলেই বলা হয় আল্লাহর সন্তুষ্টি বা নৈকট্য লাভ হয়েছে।

এর উপায় হচ্ছে সংযম সাধনা ও আল্লাহর ইবাদতে নিজেকে ব্যস্ত রাখা। এতে শারীরিক কিছু কষ্ট হলেও তা মানুষকে আল্লাহ পর্যন্ত পৌঁছতে সাহায্য করবে। এতে আল্লাহর প্রেম অর্জিত ও বর্ধিত হবে। আল্লাহ বলেন, যারা আমার পথে সাধনায় আত্মনিয়োগ করে, আমি অবশ্যই তাদের আমার পথে পরিচালিত করি। নিশ্চয় আল্লাহ সৎকর্মপরায়ণদের সঙ্গে আছেন। [সূরা আনকাবুত, আয়াত : ৬৯]

সিয়াম মানে সংযম। সিয়াম মানে সাধনা। সিয়াম মানে একমাত্র আল্লাহর ইবাদত ও দাসত্ব মেনে নেয়া। সংযম সাধনা কিংবা আল্লাহর ইবাদত অর্জনের জন্য ভালো-মন্দ, কল্যাণ এবং অকল্যাণের ব্যবধান এবং বোধ সৃষ্টি করতে হবে সিয়াম পালন করে। এ বোধ ভালোকে গ্রহণ করে এবং মন্দকে বর্জন করতে সাহায্য করবে।

দুটি নদীর পানি। একটি নোনা, অপরটি মিষ্টি। একটি পরিচ্ছন্ন, অপরটি ঘোলাটে। একটি আরেকটির সঙ্গে মেশে না। পবিত্র কুরআনের সূরা আর রাহমানের ১৯ ও ২০ নং আয়াতে আল্লাহতায়ালা এর দৃষ্টান্ত দিয়ে বান্দাকে শিখিয়েছেন। দেখ আমার বান্দা, ভালো-মন্দ একসঙ্গে থাকবে। হয়তো একই রকম মনে হবে। তাই বলে মন্দকে গ্রহণ করা যাবে না।

আল্লাহতায়ালা দোষ এবং গুণ দুটিই সৃষ্টি করেছেন। ক্ষেত্রবিশেষে দুটিকে একই রকম দেখতে লাগে। দোষ এবং গুণ দেখতে কখনও একরকম মনে হলেও এর প্রভাব, প্রতিক্রিয়া, উদ্দেশ্য এবং ভিত্তিতে রয়েছে বিরাট ব্যবধান। যেমন- দানশীলতার উদ্দেশ্য হয় অন্যের সেবা ও উপকার আর অপব্যয়ের উদ্দেশ্য হয় নিজের ভোগ-বিলাস ও বাবুগিরি।

ভালো-মন্দ দুটিই সায়েমের সামনে আসবে। সায়েমের কাজ হবে মন্দ স্বভাব পরিহার করে ভালো গুণ অর্জন করা। ভালো গুণ চেনার জন্য কোথাও যাওয়া লাগে না। মানুষের রুচিবোধ এবং কলবই বলে দেয়- কোনটি ভালো। কোনটি মন্দ। কোনটি গ্রহণীয়। কোনটি বর্জনীয়।

এ সম্পর্কে পবিত্র হাদিসের বর্ণনা রয়েছে। সাহাবি ওয়াবেছা (রা.) নবীজির দরবারে হাজির হলেন। নবীজি বললেন, হে ওয়াবেছা, তুমি নেক-বদ ও ভালো-মন্দের ব্যবধান সম্পর্কে জিজ্ঞেস করতে এসেছ? সাহাবি বললেন, জি, ইয়া রাসুলুল্লাহ। নবীজি তার বুকে আলতো থাপ্পড় দিয়ে বললেন, ইসতাফতি কল্বিকা। অর্থাৎ ন্যায়-অন্যায় ও ভালো-মন্দের বিষয়ে তোমার বিবেকের কাছে জিজ্ঞেস কর। এ কথাটি তিনবার বলে নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, নেক হচ্ছে সওয়াব এবং ভালো হচ্ছে- যার ওপর বিবেক আশ্বস্ত হয়। অন্তর শান্তি পায়। খারাপ ও গুনাহ হচ্ছে, যে ব্যাপারে বিবেকে খটকা লাগে, অন্তরে দ্বিধা ও সংশয়ের সৃষ্টি হয়।

ভালো স্বভাব অর্জনের জন্য রহমতের এই ১০ দিন আমরা প্রচেষ্টা চালিয়েছি। আশা করি আল্লাহ আমাদের সফলতা দান করেছেন। সুবোধ হওয়া এবং এর ওপর অবিচল থাকার জন্য নবীজি (সা.) দোয়া করতেন। আল্লাহু আরিনাল হাক্কা হাক্কাও, ওর্য়াজুকনাত্তি বাআ। ওয়া আরিনিল বাতিলা বাতিলাও ওয়ারজুকনাজতি নাবা। অর্থাৎ হে আল্লাহ, আমাকে ভালোকে ভালো করে দেখাও, এর ওপর আমল করার তৌফিক দাও এবং মন্দ ও খারাপকে খারাপ করে দেখাও, এর থেকে বেঁচে থাকার তৌফিক দাও।

এভাবে প্রতিদিন সায়েম দোয়া করবে আর নিজের ভেতরকার মন্দ স্বভাবগুলো ছেড়ে দেবে। তাহলেই তো রোজার রহমত পাওয়া যাবে। হে আল্লাহ আমাদের রহমতের পেয়ালা ভরিয়ে দিন। জীবন ভর এ রহমতে আমাদের ঢেকে রাখুন।

লেখক : প্রিন্সিপাল, মাদরাসাতুল, বালাগ, ঢাকা

ই-মেইল : [email protected]

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.