আজ থেকে যুগান্তর ১২ টাকা
jugantor
আজ থেকে যুগান্তর ১২ টাকা

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৫ জুলাই ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিন। আপনারা জানেন, কোভিড-১৯ এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে পৃথিবী একটা কঠিন সময় পার করছে। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। আমরা জানি, বর্তমান বাস্তবতায় সংসার নামক হিসাবের খাতা মেলাতে আপনারা হিমশিম খাচ্ছেন। তবুও যুগান্তরকে আগলে রেখেছেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আপনারাই যুগান্তরের প্রাণ। ‘পাঠকের অন্তর জুড়ে যুগান্তর’, তা আপনারা প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছেন। বর্তমান এই কঠিন সময়েও পাশে থাকায় আমরা আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। আপনারা পাশে আছেন বলেই যুগান্তর সফলতার সঙ্গে ২৩ বছর অতিক্রম করছে। আমরা সব সময় মনে করি-পাঠক, এজেন্ট, হকার, শুভানুধ্যায়ী ও বিজ্ঞাপনদাতারাই আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি।

আপনারা জানেন সংবাদপত্র শিল্প নানা সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। ছাপার ব্যয় অনেক বেড়েছে। নিউজপ্রিন্টের দাম গত বছরের মধ্যভাগ থেকে বাড়ছিল। গত বছরের শুরুতে যে দাম ছিল, বিগত কয়েক মাসে তা দ্বিগুণ হয়েছে। পত্রিকার কালি, প্লেট ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য বেড়েছে। সেই সঙ্গে পরিবহণ ব্যয় বাড়ায় সংবাদপত্রের ব্যয় দ্বিগুণ হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা দৈনিক যুগান্তরের দাম বৃদ্ধি করতে বাধ্য হচ্ছি। আজ সোমবার থেকে দৈনিক যুগান্তর ১০ টাকার পরিবর্তে ১২ টাকায় বিক্রি হবে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ সবক্ষেত্রে ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় এতে আপনাদের কষ্ট হবে জানি। কিন্তু যুগান্তর পরিবার নিরুপায়। নিউজপেপারস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব)-এর আগে বর্তমান সার্বিক পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করে পত্রিকার মূল্যবৃদ্ধির সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আশা করি, শত কষ্টের মধ্যেও অতীতের মতো আপনারা যুগান্তরের পাশে থাকবেন। -সম্পাদক

আজ থেকে যুগান্তর ১২ টাকা

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৫ জুলাই ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিন। আপনারা জানেন, কোভিড-১৯ এবং রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে পৃথিবী একটা কঠিন সময় পার করছে। বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। আমরা জানি, বর্তমান বাস্তবতায় সংসার নামক হিসাবের খাতা মেলাতে আপনারা হিমশিম খাচ্ছেন। তবুও যুগান্তরকে আগলে রেখেছেন। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে আপনারাই যুগান্তরের প্রাণ। ‘পাঠকের অন্তর জুড়ে যুগান্তর’, তা আপনারা প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছেন। বর্তমান এই কঠিন সময়েও পাশে থাকায় আমরা আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। আপনারা পাশে আছেন বলেই যুগান্তর সফলতার সঙ্গে ২৩ বছর অতিক্রম করছে। আমরা সব সময় মনে করি-পাঠক, এজেন্ট, হকার, শুভানুধ্যায়ী ও বিজ্ঞাপনদাতারাই আমাদের সবচেয়ে বড় শক্তি।

আপনারা জানেন সংবাদপত্র শিল্প নানা সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। ছাপার ব্যয় অনেক বেড়েছে। নিউজপ্রিন্টের দাম গত বছরের মধ্যভাগ থেকে বাড়ছিল। গত বছরের শুরুতে যে দাম ছিল, বিগত কয়েক মাসে তা দ্বিগুণ হয়েছে। পত্রিকার কালি, প্লেট ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য বেড়েছে। সেই সঙ্গে পরিবহণ ব্যয় বাড়ায় সংবাদপত্রের ব্যয় দ্বিগুণ হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা দৈনিক যুগান্তরের দাম বৃদ্ধি করতে বাধ্য হচ্ছি। আজ সোমবার থেকে দৈনিক যুগান্তর ১০ টাকার পরিবর্তে ১২ টাকায় বিক্রি হবে। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিসহ সবক্ষেত্রে ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় এতে আপনাদের কষ্ট হবে জানি। কিন্তু যুগান্তর পরিবার নিরুপায়। নিউজপেপারস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব)-এর আগে বর্তমান সার্বিক পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করে পত্রিকার মূল্যবৃদ্ধির সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আশা করি, শত কষ্টের মধ্যেও অতীতের মতো আপনারা যুগান্তরের পাশে থাকবেন। -সম্পাদক

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন