আহা! যদি হয় ব্রাজিল আর্জেন্টিনা সেমি
jugantor
আহা! যদি হয় ব্রাজিল আর্জেন্টিনা সেমি

  ইশতিয়াক সজীব  

০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

এই তো গত মাসেও পিএসজির জার্সিতে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়েছেন দুজন। এরপর বিশ্বকাপ অভিযাত্রায় মরুদেশ কাতারে এসে একই শহর দোহায় থাকলেও আর দেখা হয়নি লিওনেল মেসি ও নেইমারের।

এখানে দুই বন্ধু যে দুই প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী। দলের স্বপ্নের মশালবাহক। বিশ্বকাপের মধ্যে বন্ধুত্ব ঝালিয়ে নেওয়ার জন্য হয়তো তাদের প্রাণ কাঁদছে না, কিন্তু ক্রোয়েশিয়া ও নেদারল্যান্ডস বাদে বাকি বিশ্ব মুখিয়ে তাদের সাক্ষাৎ দেখতে! বহু কাঙ্ক্ষিত সেই সাক্ষাৎ হতে পারে ১৩ ডিসেম্বর লুসাইলে বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে।

শেষ চারে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা স্বপ্নের মহারণের সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে আট দলে নেমে আসা ‘ছোট’ বিশ্বকাপের বড় লড়াইয়ে আজ জিততে হবে নেইমার ও মেসিদের। রাত ৯টায় এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে গতবারের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে নেইমারের ব্রাজিল।

রাত ১টায় লুসাইলে শেষ আটের আরেক হাইভোল্টেজ ম্যাচে মেসির আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডস। আজ ইউরোপের দুদলের বিদায় ঘণ্টা বাজলেই শুধু সেমিফাইনালে দেখা যাবে স্বপ্নের লাতিন সুপার ক্লাসিকো। এমন অমৃতে অরুচি হবে কার। এমন ফুটবলভক্ত এই গ্রহে খুঁজে পাওয়া ভার!

শেষ ষোলোতে জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে লুকা মদরিচের ক্রোয়েশিয়া। মাত্র ৪০ লাখ জনসংখ্যার দেশটি গত বিশ্বকাপেও দেখিয়েছে তাদের সামর্থ্য ও সক্ষমতা। কিন্তু শক্তি ও ঐতিহ্যের বিচারে ক্রোটদের চেয়ে যোজন যোজন এগিয়ে আমাজনের দেশ ব্রাজিল।

চোট কাটিয়ে নেইমার ফেরার পর শেষ ষোলোতে দক্ষিণ কোরিয়াকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পথে যে অনিন্দ্য সুন্দর ফুটবল উপহার দিয়েছে সেলেকাওরা, তাতে আজ ক্রোয়েশিয়া জিতলে সেটা হবে এক মহাঅঘটন। আগের ম্যাচে প্রতিটি গোল নেচে উদযাপন করা ব্রাজিল সাম্বা সুরের মূর্ছনায় এবার জিততে চায় ষষ্ঠ বিশ্বকাপ।

দলটির তরুণ ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়ুস জুনিয়র যেন ঘোষণার সুরেই বললেন, ‘অন্যের সুখ দেখে কেউ কেউ অভিযোগের ন্যাকা কান্না কাঁদবেই। কিন্তু আমরা নাচতে নাচতেই বিশ্বকাপ জিততে চাই। সেটা প্রতিপক্ষকে অসম্মান করে নয়। নাচ আমাদের আনন্দের বহিঃপ্রকাশ। আমরা জানি, এমন উদযাপনের জন্য ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ১১০ ভাগ দিয়ে খেলতে হবে।’

এদিকে নেদারল্যান্ডস দলে মেসির মতো কোনো মহাতারকা না থাকলেও প্রতিশোধের মন্ত্রে শিষ্যদের তাতিয়ে তুলেছেন ডাচ কোচ লুই ফন গাল। ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে টাইব্রেকারে হারের দুঃখ এখনও ভুলতে পারেননি ফন গাল।

এর আগে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ১৯৭৮ বিশ্বকাপের ফাইনালেও আর্জেন্টিনার কাছে হেরেছিল নেদারল্যান্ডস। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে দুটি জয় থাকলেও তাতে কখনও শিরোপা জিততে পারার দুঃখ ঘোচেনি ‘টোটাল ফুটবলের’ জনকদের।

এবার মেসির জাদুকরী পারফরম্যান্সে আর্জেন্টিনা তৃতীয় শিরোপার স্বপ্ন দেখলেও শেষ আটের লড়াইয়ে নিজেদের পিছিয়ে রাখতে নারাজ ফন গাল, ‘মেসি এমন একজন খেলোয়াড়, যে একাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিতে পারে।

কিন্তু ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আমাদের বিপক্ষে সেভাবে বলই স্পর্শ করতে পারেনি সে। এবারও তাকে আটকে দিতে পারি আমরা। সেবার টাইব্রেকারে হেরেছিলাম। এবার চাই প্রতিশোধ।’

আহা! যদি হয় ব্রাজিল আর্জেন্টিনা সেমি

 ইশতিয়াক সজীব 
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

এই তো গত মাসেও পিএসজির জার্সিতে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়েছেন দুজন। এরপর বিশ্বকাপ অভিযাত্রায় মরুদেশ কাতারে এসে একই শহর দোহায় থাকলেও আর দেখা হয়নি লিওনেল মেসি ও নেইমারের।

এখানে দুই বন্ধু যে দুই প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী। দলের স্বপ্নের মশালবাহক। বিশ্বকাপের মধ্যে বন্ধুত্ব ঝালিয়ে নেওয়ার জন্য হয়তো তাদের প্রাণ কাঁদছে না, কিন্তু ক্রোয়েশিয়া ও নেদারল্যান্ডস বাদে বাকি বিশ্ব মুখিয়ে তাদের সাক্ষাৎ দেখতে! বহু কাঙ্ক্ষিত সেই সাক্ষাৎ হতে পারে ১৩ ডিসেম্বর লুসাইলে বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে।

শেষ চারে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা স্বপ্নের মহারণের সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে আট দলে নেমে আসা ‘ছোট’ বিশ্বকাপের বড় লড়াইয়ে আজ জিততে হবে নেইমার ও মেসিদের। রাত ৯টায় এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে গতবারের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে নেইমারের ব্রাজিল।

রাত ১টায় লুসাইলে শেষ আটের আরেক হাইভোল্টেজ ম্যাচে মেসির আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডস। আজ ইউরোপের দুদলের বিদায় ঘণ্টা বাজলেই শুধু সেমিফাইনালে দেখা যাবে স্বপ্নের লাতিন সুপার ক্লাসিকো। এমন অমৃতে অরুচি হবে কার। এমন ফুটবলভক্ত এই গ্রহে খুঁজে পাওয়া ভার!

শেষ ষোলোতে জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে লুকা মদরিচের ক্রোয়েশিয়া। মাত্র ৪০ লাখ জনসংখ্যার দেশটি গত বিশ্বকাপেও দেখিয়েছে তাদের সামর্থ্য ও সক্ষমতা। কিন্তু শক্তি ও ঐতিহ্যের বিচারে ক্রোটদের চেয়ে যোজন যোজন এগিয়ে আমাজনের দেশ ব্রাজিল।

চোট কাটিয়ে নেইমার ফেরার পর শেষ ষোলোতে দক্ষিণ কোরিয়াকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পথে যে অনিন্দ্য সুন্দর ফুটবল উপহার দিয়েছে সেলেকাওরা, তাতে আজ ক্রোয়েশিয়া জিতলে সেটা হবে এক মহাঅঘটন। আগের ম্যাচে প্রতিটি গোল নেচে উদযাপন করা ব্রাজিল সাম্বা সুরের মূর্ছনায় এবার জিততে চায় ষষ্ঠ বিশ্বকাপ।

দলটির তরুণ ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়ুস জুনিয়র যেন ঘোষণার সুরেই বললেন, ‘অন্যের সুখ দেখে কেউ কেউ অভিযোগের ন্যাকা কান্না কাঁদবেই। কিন্তু আমরা নাচতে নাচতেই বিশ্বকাপ জিততে চাই। সেটা প্রতিপক্ষকে অসম্মান করে নয়। নাচ আমাদের আনন্দের বহিঃপ্রকাশ। আমরা জানি, এমন উদযাপনের জন্য ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ১১০ ভাগ দিয়ে খেলতে হবে।’

এদিকে নেদারল্যান্ডস দলে মেসির মতো কোনো মহাতারকা না থাকলেও প্রতিশোধের মন্ত্রে শিষ্যদের তাতিয়ে তুলেছেন ডাচ কোচ লুই ফন গাল। ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনার কাছে টাইব্রেকারে হারের দুঃখ এখনও ভুলতে পারেননি ফন গাল।

এর আগে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ১৯৭৮ বিশ্বকাপের ফাইনালেও আর্জেন্টিনার কাছে হেরেছিল নেদারল্যান্ডস। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে দুটি জয় থাকলেও তাতে কখনও শিরোপা জিততে পারার দুঃখ ঘোচেনি ‘টোটাল ফুটবলের’ জনকদের।

এবার মেসির জাদুকরী পারফরম্যান্সে আর্জেন্টিনা তৃতীয় শিরোপার স্বপ্ন দেখলেও শেষ আটের লড়াইয়ে নিজেদের পিছিয়ে রাখতে নারাজ ফন গাল, ‘মেসি এমন একজন খেলোয়াড়, যে একাই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিতে পারে।

কিন্তু ২০১৪ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে আমাদের বিপক্ষে সেভাবে বলই স্পর্শ করতে পারেনি সে। এবারও তাকে আটকে দিতে পারি আমরা। সেবার টাইব্রেকারে হেরেছিলাম। এবার চাই প্রতিশোধ।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২

২৮ ডিসেম্বর, ২০২২