প্রশাসনের দুই স্তরে পদোন্নতি শিগগিরই

বিবেচনায় আসতে পারে তিনশ’র বেশি কর্মকর্তা

  উবায়দুল্লাহ বাদল ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রশাসন
ফাইল ছবি

জাতীয় নির্বাচনের আগেই প্রশাসনের আরও দুই স্তরের (যুগ্ম সচিব ও উপসচিব) পদোন্নতি আসছে। ইতিমধ্যে এ বিষয়ে কয়েকটি বৈঠকও করেছে প্রশাসনের পদোন্নতির সুপারিশকারী কর্তৃপক্ষ সুপিরিয়র সিলেকশন বোর্ড (এসএসবি)।

এবার যুগ্ম সচিব ও উপসচিব পদে তিনশ’রও বেশি কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেয়া হতে পারে। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (এপিডি) শেখ ইউসুফ হারুন যুগান্তরকে বলেন, প্রশাসনে ইতিমধ্যে ১৬৩ অতিরিক্ত সচিবের পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। এবার যুগ্ম সচিব ও উপসচিব পদে পদোন্নতির জন্য যোগ্য কর্মকর্তাদের তথ্য-উপাত্ত চাওয়া হয়েছে। এ দুই পদে পদোন্নতি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় কাজ চলছে। প্রক্রিয়া শেষে শিগগিরই পদোন্নতির প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

জানা গেছে, এই দুই পদে নির্ধারিত পদের তুলনায় অতিরিক্ত কর্মকর্তা কর্মরত থাকলেও পদোন্নতিযোগ্য কর্মকর্তাদের তথ্য-উপাত্ত বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কাছে চেয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি উপসচিব পদে পদোন্নতি বিবেচনার জন্য প্রশাসন ক্যাডার ছাড়া অন্যান্য ক্যাডারের কাছ থেকেও নামের তালিকা চাওয়া হয়েছে।

গত ২৯ আগস্ট ১৬৩ অতিরিক্ত সচিবের পদোন্নতির পর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের গত ৪ সেপ্টেম্বরের হিসাব অনুযায়ী, বর্তমানে উপসচিবের নিয়মিত (ডিউটি) ১০০৬টি পদের বিপরীতে কর্মরত আছেন ১৭৫৬ জন। আর যুগ্ম সচিবের ৪১১টি স্থায়ী পদের বিপরীতে আছেন ৬১৩ জন।

সূত্র জানায়, উপসচিব থেকে যুগ্ম সচিব পদে পদোন্নতির ক্ষেত্রে বিসিএস ১৫তম ব্যাচকে পদোন্নতির জন্য নিয়মিত ব্যাচ হিসেবে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ১৭ ও ১৮তম ব্যাচের কর্মকর্তাদেরও পদোন্নতির জন্য আমলে নেয়া হতে পারে।

এর মধ্যে ১৫তম ব্যাচের ১০৫ জন কর্মকর্তার মধ্যে ৮১ জন, ১৭তম ব্যাচের ৫১ জন কর্মকর্তার মধ্যে ৪০ জন ও ১৮তম ব্যাচের ৮৯ কর্মকর্তার মধ্যে ৭৬ জন পদোন্নতির জন্য প্রয়োজনীয় যোগ্যতা অর্জন করেছেন।

পদোন্নতির সব যোগ্যতা অর্জন করলেও ১৮তম ব্যাচের কর্মকর্তাদের এখনই পদোন্নতি দেয়ার বিষয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছেন এসএসবি সংশ্লিষ্টরা।

এছাড়া যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও আগে পদোন্নতিবঞ্চিত বিভিন্ন ব্যাচের উল্লেখযোগ্যসংখ্যক কর্মকর্তাকে এই পদে পদোন্নতির জন্য বিবেচনা করা হতে পারে। তবে এখন পর্যন্ত তাদের গোয়েন্দা প্রতিবেদন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পৌঁছেনি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

সিনিয়র সহকারী সচিব থেকে উপসচিব পদের পদোন্নতিতে নিয়মিত হিসেবে ২৫তম ব্যাচকে বিবেচনা করা হচ্ছে। এই ব্যাচের ১৮৯ কর্মকর্তার মধ্যে উপসচিব পদে ১৫৮ জন কর্মকর্তা পদোন্নতির জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছেন। প্রশাসন ক্যাডারের পাশাপাশি অন্যান্য ক্যাডার থেকেও উল্লেখযোগ্যসংখ্যক কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেয়া হবে।

এছাড়া যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও আগে পদোন্নতিবঞ্চিত বিভিন্ন ব্যাচের কিছু কর্মকর্তাকেও এই পদে পদোন্নতির জন্য বিবেচনা করা হতে পারে। সব মিলে এই দুই স্তরে তিন থেকে সাড়ে তিনশ’ কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেয়া হতে পারে। তবে উপসচিব পদে পদোন্নতির বিষয়টি এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

এর আগে গত ৪ এপ্রিল উপসচিব পদে পদোন্নতির জন্য আগ্রহী বা যোগ্য বিভিন্ন ক্যাডারের ২৫তম ব্যাচ পর্যন্ত কর্মকর্তাদের তালিকা চেয়ে চিঠি পাঠানো হয়। এতে বলা হয়েছে, যেসব কর্মকর্তার সিনিয়র স্কেল পদে নূ্যূনতম পাঁচ বছর চাকরিসহ সংশ্লিষ্ট ক্যাডারের সদস্য হিসেবে অন্যূন ১০ বছর পূর্ণ হয়েছে তাদের মধ্য থেকে ১০ জনের (জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে) নামের তালিকা ১০ মের মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে বলা হয়।

পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বর্তমান ঠিকানা ( টেলিফোন/মোবাইল নম্বরসহ), স্থায়ী ঠিকানা এবং চাকরির পূর্ণ বৃত্তান্ত আলাদা কাগজে পাঠাতে বলা হয়।

অযোগ্য কর্মকর্তাদের তালিকা না পাঠানোর নির্দেশনা দিয়ে চিঠিতে আরও বলা হয়, উপসচিব হতে অনাগ্রহী কর্মকর্তাদের নাম তালিকা থেকে বাদ দিতে হবে।

এছাড়া সিনিয়র স্কেলে চাকরির মেয়াদ পাঁচ বছর পূর্ণ না হলে ও ২৫তম ব্যাচের কর্মকর্তাদের যোগদানের জন্য নির্ধারিত তারিখের পরে যারা ক্যাডার সার্ভিসে যোগ দিয়েছেন তাদের নামও তালিকায় রাখা যাবে না।

একই সঙ্গে জ্যেষ্ঠতা সম্পর্কে কোনো আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকলে এবং ওই সব কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দেয়া হলে আদালত অবমাননা হতে পারে এমন কর্মকর্তাদের নামও রাখা যাবে না। কর্মকর্তাদের তালিকার জ্যেষ্ঠতা অনুযায়ী সঠিক এবং নির্ভুলভাবে পাঠাতে হবে।

কোনো ব্যত্যয়ের কারণে কোনো কর্মকর্তা যদি ভুলক্রমে পদোন্নতি পান বা পদোন্নতি থেকে বঞ্চিত হন তাহলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা বিভাগকে এর দায়িত্ব বহন করতে হবে।

প্রসঙ্গত, সর্বশেষ যুগ্মসচিব পদে গত বছরের ২১ ডিসেম্বর ১৯৩ জন পদোন্নতি দেয়া হয়। আর উপসচিব পদে চলতি বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি ৩৯৬ জন সিনিয়র সহকারী সচিবকে এবং গত ২৯ আগস্ট ১৬৩ জনকে অতিরিক্ত সচিব পদে পদোন্নতি দেয় সরকার।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter