জিতলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

  ওমর ফারুক রুবেল ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশ দল

ভুটানকে হারিয়ে ক্ষত শুকিয়েছে। পাকিস্তানকে হারিয়ে সেমিফাইনালের পথ হয়েছে মসৃণ। এবার নেপাল-বধের পালা। যাদের হারালে শুধু সেমিফাইনালই নয়, গ্রুপ চ্যাম্পিয়নও হবে বাংলাদেশ। সেই প্রতিজ্ঞা নিয়েই আজ মাঠে নামবেন কোচ জেমি ডে’র শিষ্যরা। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৭টায় ম্যাচটি শুরু হবে। বাংলাদেশ টেলিভিশন ও চ্যানেল নাইন ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে।

একটা সময় ছিল, বাংলাদেশের কাছে পাত্তাই পেত না নেপাল। কিন্তু সেটা অতীত। ফুটবলের অস্থির সময়ে যেন স্বস্তির বাতাস। বর্তমান সময়ে লাল-সবুজ ফুটবলের অন্যতম প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়িয়েছে হিমালয়কন্যার দেশটি। পরিসংখ্যানও তাই বলে। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে নেপালের কাছে ৩৩ ধাপ পেছনে থাকলেও মুখোমুখি লড়াইয়ে বেশ এগিয়ে বাংলাদেশ। এ পর্যন্ত ২১ বারের সাক্ষাতে ১২ ম্যাচ জিতেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। ছয় হারের বিপরীতে ড্র হয়েছে তিন ম্যাচ। ১৯৮৪ সালের সাউথ এশিয়ান ফেডারেশন গেমসে ২১ সেপ্টেম্বর ও ৩০ সেপ্টেম্বর দু’দফায় ৫-০ গোলে এই নেপালকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

চার দিনে দুই ম্যাচ খেলায় সেরা একাদশকে বিশ্রাম দিয়ে বাকিদের নিয়ে কাল বিকালে কমলাপুর স্টেডিয়ামে হাজির হয়েছিলেন কোচ জেমি ডে। একাদশের বাইরে থাকা রনি, সোহেল রানাদের নিয়ে প্রায় ঘণ্টাখানেক ঘাম ঝড়ালেন কোচ। এর ফাঁকেই কোচ বলেন, ‘পাকিস্তান আমাদের স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে দেয়নি।

নেপাল ভিন্ন কৌশলে খেলে। আমরাও এই ম্যাচে ভিন্ন কৌশলে খেলব। এশিয়ান গেমস থেকেই বাংলাদেশের খেলার ধরনে পরিবর্তন এসেছে। এখন পুরো ৯০ মিনিটই লড়াই করতে পারে বাংলাদেশ। শেষ দিকে এখন গোল হজমের বিপদ থেকেও অনেকটা বেরিয়ে এসেছে।’ তবে নেপাল ম্যাচের আগে কোচ জানান, ‘আমরা দুটি ম্যাচ জিতেছি। কিন্তু কালকের (আজ) ম্যাচই আমাদের আসল ম্যাচ। নেপাল ও ভুটানের ম্যাচটি আমি দেখেছি। সেখানে দুর্দান্ত খেলেছে নেপাল। ওই ম্যাচের ভিভিও দেখেই আমি আমার পরিকল্পনা সাজাব। আমার মনে হয় না আমাদের ডিফেন্ডাররা ওদের ফরোয়ার্ডদের ভয়ংকর হয়ে উঠার সুযোগ দেবে।’

পাকিস্তানের কাছে হার দিয়ে এবারের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করেছে নেপাল। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় হিমালয়ের দেশটি। ভুটানকে ৪-০ গোলে হারিয়ে এখনও সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রেখেছে নেপাল। এই ম্যাচ জিতে শেষ চারে জায়গা করে নিতে চায় হিমালয়বাসীরা। ভুটানের বিপক্ষে পাওয়া বড় জয়ই মূলত নেপালের আত্মবিশ্বাসের পালে দিয়েছে ধমকা হাওয়া। সেই হাওয়াতেই বাংলাদেশকে উড়িয়ে দেয়ার স্বপ্ন দেখছেন নেপাল কোচ বাল গোপাল মহারজন।

তার কথায়, ‘সাফে শুরুটা আমাদের ভালো হয়নি। পাকিস্তানের বিপক্ষে ভালো খেলেও শেষ মুহূর্তে আমরা গোল খেয়েছি। সেই গোলে হেরেছে দল। তবে ভুটানের বিপক্ষে দারুণ খেলেছে ছেলেরা। এই খেলাটা ধরে রাখতে পারলে শুধু বাংলাদেশ কেন, যে কোনো দলকেই হারানোর ক্ষমতা রাখে আমার দল।’

ভুটানের জালে চার গোল দেয়া উৎসবের প্রথম নায়ক অনন্ত তামাং। বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচ সামনে রেখে অনন্ত বলেন, ‘বাংলাদেশ অনেক কঠিন প্রতিপক্ষ। তবে আমরাও পিছিয়ে নেই। পাকিস্তানের বিপক্ষে আমরা সেরাটা দিতে পারিনি। তবে ভুটানের বিপক্ষে দল হিসেবে খেলে দারুণ ম্যাচ বের করে এনেছি। যদি বাংলাদেশের বিপক্ষে দল হিসেবে খেলতে পারি তাহলে অবশ্যই আমরা জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারব। সেই সামর্থ্য আমাদের রয়েছে।’

ঘটনাপ্রবাহ : সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter