তপ্ত মরুর বুকে ভারত-পাকিস্তান আগুনে লড়াই

  ইশতিয়াক সজীব ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তপ্ত মরুর বুকে ভারত-পাকিস্তান আগুনে লড়া

এবারের এশিয়া কাপে ছয় দলেরই অদৃশ্য প্রতিপক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রচণ্ড গরম। দুবাইয়ের তাপমাত্রা ৪৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে।

তবে আজ সেটা কোথায় গিয়ে ঠেকবে, বলা মুশকিল। তপ্ত মরুর বুকে আজ যে সত্যিকারের আগুনে লড়াই। ভারত বনাম পাকিস্তান। যা ক্রিকেটের সবচেয়ে উত্তেজনাকর ও আবেদনময় লড়াইগুলোর একটি। দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে আজ এ-গ্রুপের অগ্নিগর্ভ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই চিরবৈরী পড়শি।

শুধু উপমহাদেশ নয়, ক্রিকেটবিশ্বেই এ এক পরম প্রার্থনীয় দ্বৈরথ। সবাই ব্যাকুল হয়ে তাকিয়ে থাকে এই লড়াইয়ের দিকে। কিন্তু দুই দেশের রাজনৈতিক টানাপোড়েনের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ দু’দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। আইসিসি বা এসিসির টুর্নামেন্ট ছাড়া তাই দেখা হয় না দু’দলের।

গত পাঁচ বছরে ভারত-পাকিস্তান ওয়ানডে হয়েছে মাত্র চারটি। এবারই যেমন পাকিস্তানের আপত্তির কারণে ভারত থেকে এশিয়া কাপ সরিয়ে নিতে হয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। সবকিছুতেই চিরবৈরিতার ইতিহাস ও সাম্প্রতিক অগ্নিগর্ভ প্রেক্ষাপট এবারের ভারত-পাকিস্তান মহারণকে আরও মোহনীয় করে তুলেছে। দু

ই অধিনায়ক রোহিত শর্মা ও সরফরাজ আহমেদ মুখে লড়াইয়ের ঝাঁজ না আনলেও ম্যাচের আবহ সঙ্গীত হিসেবে ঠিকই বাজছে যুদ্ধের দামামা! সেটা অবুঝ সমর্থকদের কারণে। ক্রিকেটাররা আগুনের মাঝেই চেষ্টা করছেন সম্প্রীতির ফুল ফোটানোর।

গত শুক্রবার দুবাইয়ে অনুশীলনের ফাঁকে ভারতের মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে হাত মিলিয়ে হৃদয়ের উষ্ণতা বিনিময় করেছেন পাকিস্তানের শোয়েব মালিক। দু’দলের সবচেয়ে সিনিয়র দুই ক্রিকেটারের সম্প্রীতি দারুণ সাড়া ফেলেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

তবে বাইশ গজে আজ তারা যখন মুখোমুখি হবেন, ঠিকই উড়বে আগুনের ফুলকি। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বলে কথা! এই লড়াইয়ে কাউকে ফেভারিট বলার সুযোগ থাকে না। তবে উদ্ভট সূচির কারণে ভারত কিছুটা বেকায়দায় পড়েছে।

হংকংকে আট উইকেটে হারিয়ে এশিয়া কাপে শুভসূচনার পর মহারণের আগে দু’দিন বিশ্রাম পেয়েছে পাকিস্তান। সেখানে কাল হংকংয়ের বিপক্ষে খেলার ক্লান্তি নিয়েই আজ আবার বড় ম্যাচে নামতে হচ্ছে ভারতকে।

ঠাসা সূচির দরুন বিশ্রামে থাকায় এশিয়া কাপে নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেও পাচ্ছে না বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। বিপরীতে পাকিস্তান পাচ্ছে তাদের দ্বিতীয় হোম ভেন্যুতে খেলার বাড়তি সুবিধা। দু’দলের সর্বশেষ ম্যাচটাও হতে পারে পাকিস্তানের জন্য প্রেরণা।

২০১৭ সালের জুনে ইংল্যান্ডে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে ১৮০ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছিল ভারত। সব মিলিয়ে ওয়ানডেতে দু’দলের আগের ১২৯ ম্যাচে ভারতের ৫২ জয়ের বিপরীতে পাকিস্তানের জয় ৭৩টি।

তবে ইতিহাস ও পরিসংখ্যান থেকে প্রেরণা খুঁজতে ঘোর আপত্তি পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজের, ‘চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয় আমরা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলেছি। সেটা এক বছর আগের ঘটনা। আমরা মাঠে নামব নতুন কৌশল ও উদ্দীপনা নিয়ে।

কোহলিকে ছাড়াও যথেষ্ট শক্তিশালী দল ভারত। ব্যবধান গড়ে দেয়ার মতো অনেক ভালো খেলোয়াড় আছে তাদের। আমি মনে করি না যে, কোহলির অনুপস্থিতি তাদের ভোগাবে। দারুণ একটি ম্যাচ আশা করছি আমি।’

মঙ্গলবার হংকংয়ের বিপক্ষে ম্যাচ থাকায় পাকিস্তানের দিকে পুরো মনোযোগ দেয়ার সুযোগ ছিল না ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মার। তবে ভাবনা পরিষ্কার, ‘ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ সবসময়ই রোমাঞ্চকর।

তবে প্রথম ম্যাচ শেষ করে তবেই পাকিস্তানের দিকে নজর দেব আমরা। তাদের শক্তি, দুর্বলতা নিয়ে ভাবার আগে নিজেদের সেরা সমন্বয়টা খুঁজে পেতে হবে আমাদের।’

ঘটনাপ্রবাহ : এশিয়া কাপ ২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter