ফরিদপুরে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত শতাধিক

৬০ বাড়ি-ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর লুটপাট

  ফরিদপুর ব্যুরো ২১ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া গ্রামে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার রাতে এবং শনিবার সকালে সংঘটিত এ সংঘর্ষে কমপক্ষে শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছে। পুলিশ শটগানের ৪০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষ চলাকালে উভয়পক্ষের ৩০টি বাড়ি এবং ১৫টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়। আহতদের নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গ্রামের বিভিন্ন স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে। সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন বলেন, দু’দিনের সংঘর্ষের ঘটনায় এখনও কোনো মামলা হয়নি। সংঘর্ষের সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

এদিকে সালথার রামকান্তপুরে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২৫ ব্যক্তি আহত হয়েছে। সালথা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাঝারদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হামিদের সঙ্গে এলাকার আধিপত্য এবং দলীয় রাজনীতির প্রভাব নিয়ে মাঝারদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম মাতুব্বরের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। গত কয়েক মাসে এ দু’পক্ষের মধ্যে একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। শুক্রবার বিকালে মাঝারদিয়া বাজারে চেয়ারম্যান হামিদের সমর্থকরা সেলিমের এক সমর্থককে মারধর করে। এ ঘটনার জের ধরে সন্ধ্যার পর দু’পক্ষ ঢাল-সড়কি, রামদা-টেঁটাসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে একে অপরের ওপর হামলা চালায়। দুই ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়।

শুক্রবারের ঘটনার জের ধরে শনিবার সকাল থেকে উভয়পক্ষের সমর্থকরা দফায় দফায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে দু’পক্ষের ৪০ ব্যক্তি আহত হয়। সংঘর্ষ চলাকালীন উভয়পক্ষের বেশ কয়েকটি বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় বাড়ি ভাংচুরের পাশাপাশি লুটপাটের ঘটনাও ঘটে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন ও রামকান্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক কাদের মাতুব্বরের সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের প্রায় ২৫ ব্যক্তি আহত হয়। আহতদের নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় সংঘর্ষকারীরা রামকান্তপুর বাজারের উভয় গ্রুপের প্রায় ১৫টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter